মঙ্গলবার ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ০৭ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নীলফামারীতে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলো দশ বছরের মিম

নীলফামারীতে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলো দশ বছরের মিম

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ দশ বছরের মিম অজানা কারণে করোনা ভাইরাসে পজেটিভ হয়েছিল। সেই শিশুটি করোনা জয় করে আজ বুধবার দুপুরে নিজ বাড়ি ফিরেছে। স্বাস্থ্য বিভাগ তাঁকে ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়ে হাসপাতাল ছেড়ে নিজবাড়ি ফিরে যেতে সহযোগীতা করেন।

মিম নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ি গ্রামের মেয়ে। সে গ্রামের স্কুলের চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রী।

মিমের বাবা দিনমজুর মশিউর রহমান জানায় তার মেয়ে হঠাৎ করে পেটের ব্যথায় আক্রান্ত হলে তাকে জলঢাকা উপজেলা হাসপাতালে ১১ মে রাতে নিয়ে এসে ভর্তি করাই। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পেটের ব্যাথায় মেয়ে সুস্থ হলে ১৩ মে সকালে তাকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে আসি। এ সময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমার মেয়ের করোনা ভাইরাসের নমুনা নিয়ে পরীক্ষার জন্য পাঠায়। ১৬ মে নমুনার রির্পোটের আমার মেয়ের করোনা পজেটিভ আসে। সেদিন রাতেই স্বাস্থ বিভাগের লোকজন এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে আমার মেয়েকে উপজেলা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়াডে ভর্তি করে। আমার শিশু মেয়েটির কেন করোনা হলো বুঝতে পারিনি। মেয়ের করোনা হওয়ায় আমার পরিবারের সকলেই নমুনা দেই। লকডাউন থাকতে হয় ১৪ দিন। কিন্তু আমাদের রির্পোট নেগেটিভ আসে। তিনি বলেন করোনার মতো জটিল ভাইরাসের চিকিৎসা উপজেলা হাসপাতালে হয় ভাবতে পারেনি। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালে বিনা খরচে জটিল রোগের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে এটি বিশাল পাওয়া আমাদের।

তিনি কান্না বিজরিত কন্ঠে বলেন চিকিৎসা চলাকালীন আমরা কেউ হাসপাতালে মেয়েটির কাছে থাকতে পারিনি। হাসপাতালের চিকিৎসক নার্সরা আমার মেয়েকে নিজের মেয়ে ভেবেই তারাই তার সেবা করেছেন। আমি এমন ঋণ তাদের কোন দিন শোধ করতে পারবোনা বলে কেঁদে ফেলেন মিমের বাবা।

মিম জানায় করোনা ভাইরাসে আমি আক্রান্ত হলেও আমার মনে কোনো ভয় ছিলনা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ডাক্তার আন্টি ও কাকুরা ,ও নার্স আন্টিরা আমাকে নিজের মেয়ের মতো করে সেবা দিয়েছেন। গরম পানি করে দিয়েছেন। ফলমুল এনে নিয়মিত খাইয়েছেন। তিন বেলা ভাল খাবার দিয়েছেন। সময় মতো ঔষুধ সেবন করিয়ে দিয়েছেন। আমি তাদের ভুলতে পারবোনা।

দীর্ঘ ১৬ দিন চিকিৎসা শেষে এখন মিম সুস্থ হয়ে নিজবাড়ি ফিরে যাওয়ার সময় ডাক্তার ও নার্সদের জড়িয়ে কেঁদে উঠেছিল। এ সময় মিমের কন্ঠে ছিল থ্যাংকস ডাক্তার নার্স আন্টি কাকুদ্বয়।

উপজেলা স্বাস্থ কর্মকর্তা ডাঃ আবু হাসান মোঃ রেজওয়ানুল কবির বলেন উপজেলা হাসপাতালের সকল চিকিৎসক ও নার্সরা সকল প্রকার রোগীদের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। ছোট শিশু মিমের সেবাটি ছিল চ্যালেঞ্জ। সকলের মনে ভয় ছিল আমরা তাকে সুস্থ করে তুলতে পারবো কিনা। সেই চ্যালেঞ্জ এখানকার চিকিৎসা ও নার্সরা সফলতার মুখ দেখিয়েছে।

নীলফামারী সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন জানান, জেলার ছয় উপজেলার ডিমলা উপজেলা ছাড়া বাকী ৫ উপজেলা হাসপাতালে আমরা করোনা রোগীর জন্য আইসোলেশ ওয়াড চালু করি। প্রতিটি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়াডে করোনা রোগী রেখে প্রতিজন চিকিৎসক ও নার্স সেবা প্রদান করছে। এই সেবা প্রদানে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক ও নার্স করোনা আক্রান্ত হয়েছে। তারপরেও অন্যান্য চিকিৎসক ও নার্সরা ভয় করেনি। তারা তাদের দায়িত্বের সেবা এখনও পালন করে যাচ্ছে।

তিনি জানান, মঙ্গলবার পর্যন্ত জেলায় করোনা পজেটিভ রোগীর সংখ্যা ১৪৭ জন। ১০ বছরের শিশু মিম সহ সুস্থ্য হয়ে নিজ বড়ি ফিরে গেছে ৫৩ জন। বাকিদের চিকিৎসা চলছে স্বযত্নে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১১৭৬১০৭৩
আক্রান্ত
১৬৮৬৪৫
সুস্থ
৬৭৫৫৩২৪
সুস্থ
৭৮১০২
শীর্ষ সংবাদ:
সারাদেশে ১৫৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৫৫ জনের, নতুন শনাক্ত ৩০২৭         ওয়ারি লকডাউন আরো কঠোর হবে,এলাকাবাসী ধৈর্য্য ধরুন : মেয়র তাপস         একযুগ পর ট্রেনে কোরবানীর পশু পরিবহন করবে রেলওয়ে : রেলপথমন্ত্রী         ‘করোনা পরিস্থিতিতে গণমাধ্যমের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ’: তথ্যমন্ত্রী         লঞ্চ দুর্ঘটনা : হত্যাকাণ্ড প্রমাণিত হলে ‘হত্যা মামলা’ হবে : নৌপ্রতিমন্ত্রী         বিজিবির ১১৯ মুক্তিযোদ্ধার গেজেট বাতিলের প্রজ্ঞাপন স্থগিত         সংসদের মুলতবি অধিবেশন বসছে বুধবার         ১৬ বছর বয়সীরাও অনলাইনে পাচ্ছে এনআইডি         রিজেন্ট হাসপাতাল সিলগালা         শুল্ক কমিয়ে বিদেশ থেকে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত         করোনা ভাইরাস ॥ চিকিৎসক নিয়োগে আসছে বিশেষ বিসিএস         পাপুলকাণ্ডে রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে অভিযোগ খতিয়ে দেখা হবে ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         এক কোটি দুস্থ ১০ কেজি করে চাল পাবেন         উপনির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই ॥ ইসি সচিব         ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের জন্য আসছে বিশেষ বিসিএস         হেফাজত ও ছেলের বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন আল্লামা শফী         বান্দরবানে জনসংহতির সংস্কারপন্থি ছয়জনকে গুলি করে হত্যা         দাউদকান্দিতে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে একই পরিবারের ৩ জন নিহত         ১২ জুলাই থেকে জাবিতে শুরু হতে যাচ্ছে অনলাইন ক্লাস        
//--BID Records