শুক্রবার ৮ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাংলাদেশকে ৮৫০ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশকে জরুরী ভিত্তিতে ১০ কোটি ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৮৫০ কোটি টাকার এই অর্থায়ন অনুমোদনও দিয়ে দিয়েছে সংস্থাটি। শনিবার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সারাবিশ্বে মহামারী রূপ নিয়েছে। উন্নত দেশগুলোও এই মহামারী মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে মহামারী প্রতিরোধ, শনাক্তকরণ ও প্রতিক্রিয়া জানাতে এবং জনস্বাস্থ্যের জরুরী অবস্থার মোকাবেলায় এই অর্থায়নের অনুমোদন দিয়েছে সংস্থাটি। কোভিড-১৯ জরুরী প্রতিক্রিয়া ও মহামারী প্রস্তুতি প্রকল্পটির মাধ্যমে এই অনুমোদন। করোনায় সন্দেহভাজন নিশ্চিত, কেস শনাক্তকরণ, চিকিৎসা পরিচালনা এবং বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সুবিধা বাড়বে। স্বাস্থ্য সুবিধা এবং পরীক্ষাগারগুলোকে উন্নত করতে সহায়তা করা হবে। করোনা সংক্রমণ, ঝুঁকিপূর্ণ জনসংখ্যা ও জরুরী চিকিৎসার পাশাপাশি সরকারী-বেসরকারী পরিষেবা নিশ্চিত করা হবে। চিকিৎসা ও পরীক্ষার সুবিধা এবং জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের উপকৃত করবে।

বাংলাদেশ ও ভুটানের জন্য নিয়োজিত বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রসারের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করছে। এই প্রকল্পটি মহামারীর প্রতিক্রিয়া জানাতে বাংলাদেশের জাতীয় পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহায়তা করবে। এটি কার্যকর নজরদারি এবং ডায়গনস্টিক সিস্টেমগুলো রয়েছে কিনা তা নির্ধারণের মাধ্যমে এবং দেশের স্বাস্থ্যবিধি, ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম, ভেন্টিলেটর এবং বিচ্ছিন্ন ইউনিট নির্ধারিত হাসপাতালে উপলব্ধি রয়েছে তা নিশ্চিত করে দেশের প্রতিক্রিয়া জোরদার করতে সহায়তা করবে।

প্রকল্পটি (কোভিড-১৯) প্রশিক্ষিত কর্মীদের পাশাপাশি ডায়গনস্টিক সরঞ্জাম, পরীক্ষার কিট এবং এজেন্টগুলোর সঙ্গে মনোনীত পরীক্ষাগারগুলো সজ্জিত করবে। এটি সমালোচনামূলক আইটেমগুলোর অধিগ্রহণকে ত্বরান্বিত করার জন্য দ্রুত সংগ্রহের জন্য সংস্থানগুলো পরিচালনা করছে। চিকিৎসা সহায়তা সরবরাহ এবং পরিষেবার জন্য বাড়তি চাহিদা মোকাবেলা করার জন্য, প্রকল্পটি জেলা পর্যায়ের স্বাস্থ্য সুবিধা দেবে। এছাড়া নির্বাচিত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, সংক্রামক রোগ হাসপাতাল এবং বাংলাদেশ ট্রপিকাল ও সংক্রামক রোগ ইনস্টিটিউটসহ অন্যদের পুনর্বাসিত করবে। এটি নতুন ওয়ার্ড স্থাপন এবং নিবিড় পরিচর্যা ইউনিট ক্যাম্প স্থাপন, ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম, ভেন্টিলেটরসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং মনোনীত হাসপাতালে ওষুধ সরবরাহ করতে সহায়তা করবে। প্রকল্পটি মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও নিষ্পত্তি এবং নির্ধারিত স্বাস্থ্য সুবিধাগুলোয় পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা উন্নত করতে সহায়তা করবে।

রোগী ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ঝুঁকি হ্রাস করতে, প্রকল্পটি চিকিৎসা ও হাসপাতালের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য গাইডলাইন তৈরি করতে, চিকিৎসা পেশাদারদের ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণে সহায়তা করবে। আরও এটি সামাজিক দূরত্ব এবং উন্নত স্বাস্থ্যকর অনুশীলনের জন্য আচরণগত পরিবর্তন যোগাযোগ প্রচারগুলো ডিজাইন ও প্রয়োগে সরকারকে সহায়তা করবে। প্রকল্পটি দরিদ্রতম দেশগুলোর জন্য বিশ্বব্যাংকের তহবিল ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এ্যাসোসিয়েশন (আইডিএ) থেকে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কোভিড-১৯ ফাস্ট ট্রাক সুবিধার মাধ্যমে অর্থায়ন করা হয়। পাঁচ বছর গ্রেস দিয়ে ৩০ বছরে এই ঋণ পরিশোধ করতে হবে বাংলাদেশকে।

শীর্ষ সংবাদ:
তিন পণ্য দ্রুত আমদানির পরামর্শ         শতবর্ষী কালুরঘাট সেতুর আরও বেহাল দশা         ঐক্য সুদৃঢ় আওয়ামী লীগের বিএনপি হতাশ         ইসি নিয়োগ আইন চলতি অধিবেশনেই পাসের চেষ্টা থাকবে         শান্তিরক্ষা মিশনে র‌্যাবকে বাদ দিতে ১২ সংগঠনের চিঠি         মাদকসেবীর সঙ্গে মাদকের বাজারও বাড়ছে         দেশে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১ হাজার ছুঁই ছুঁই         বঙ্গবন্ধু জাতীয় আবৃত্তি উৎসব শুরু ২৭ জানুয়ারি         এবার কুমিল্লা ভার্সিটিতে রেজিস্ট্রার হটাও আন্দোলন         শাবিতে অনশনরতরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন, ৪ জন হাসপাতালে         ওয়ারীতে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে যাত্রী হত্যা         বিএনপি কখনও লবিস্ট নিয়োগের প্রয়োজন বোধ করেনি         অবশেষে চট্টগ্রামে হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ, জাদুঘর         ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৪, শনাক্ত ১০৮৮৮         দুর্নীতি রোধে ডিসিদের সহযোগিতা চাইলো দুদক         সন্ত্রাসীরা অস্ত্র তুললেই ফায়ারিং-এনকাউন্টারের ঘটনা ঘটে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধে ডিসিদের নির্দেশ         ব্যাংকারদের বেতন বেধে দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক         মগবাজারে দুই বাসের প্রতিযোগিতায় প্রাণ গেল কিশোরের         জমির ক্ষেত্রে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি বন্ধ হচ্ছে