শনিবার ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রোগীদের ক্ষতিপূরণ কারখানার মালিকদের দিতে বাধ্য করা হবে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

রোগীদের ক্ষতিপূরণ কারখানার মালিকদের দিতে বাধ্য করা হবে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক ॥ কেরানীগঞ্জ উপজেলার চুনকুটিয়া এলাকায় অবস্থিত ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ঘটনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৩৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ১০ জনের শরীরের প্রায় ১০০ শতাংশ পুড়ে গেছে। ২০ থেকে ২২ জনের ৫০ শতাংশ পুড়েছে। এ পর্যন্ত ঢামেক হাসপাতালে নয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে এসে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, বার্ন ইউনিটের চিকিৎসক, নার্স এবং ওষুধের কোনো কমতি নেই। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তাদের চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসার সব খরচ সরকার বহন করবে।

এছাড়া ৩৫ জনের মধ্যে কয়েকজনকে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরও কয়েকজনকে সেখানে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেনি। রাস্তা প্রশস্ত না হওয়ায় তাদের ঘটনাস্থলে পৌঁছতে সময় লেগেছে। এ কারণে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় ক্ষতির পরিমাণটা বেড়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোগীদের ক্ষতিপূরণ কারখানার মালিকদের দিতে বাধ্য করা হবে। ঘটনাস্থলে থাকা কয়েকজন শ্রমিকে সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, হঠাৎ করে বিকট শব্দে আগুন চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার ভোর থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যু হয়। এছাড়া ঘটনাস্থলে একজনের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন- ইমরান, বাবুল, রায়হান, খালেক, সালাউদ্দিন, সুজন, জিনারুল ইসলাম, আলম, জাকির হোসেন, ফয়সাল ও জাহাঙ্গীর।

জানা গেছে বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টা পর্যন্ত অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে অধিকাংশেরই ৯০ শতাংশ বার্ন রয়েছে।

‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানার গত দুই বছরে তিনবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে, যার দুটোই ঘটেছে চলতি বছরে। প্রতিটি অগ্নিকাণ্ড ছিল ভয়াবহ।

২০১৬ সালের ২৮ নবেম্বর কারখানাটিতে প্রথম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এরপর চলতি বছরের ২৫ এপ্রিল দ্বিতীয়বারের মতো আগুন লাগে। তবে ওই দু’টি অগ্নিকাণ্ডে কারখানার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সর্বশেষ বুধবার তৃতীয়বারের মতো আগুন লাগে কারখানাটিতে।

শীর্ষ সংবাদ:
সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছি ॥ মির্জা ফখরুল         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে ১২৪৭ জনের মৃত্যু         করোনা ভাইরাসে আরও ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৬৭         হাওড় ভ্রমণে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা-পুত্র নিহত ॥ আহত ১২         করোনায় দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী ॥ হুইপ ইকবালুর রহিম         মসজিদে বিস্ফোরণ ॥ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ জন         হেফাজত আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর জানাজায় লাখো মানুষ         দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের অবশ্যই মূল্যায়ন করতে হবে ॥ কাদের         মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাসের ৮ জন গ্রেফতার         সীমান্তে হত্যাকান্ড বন্ধে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেয়ার প্রতিশ্রুতি বিএসএফের         যুক্তরাষ্ট্রের চার অঙ্গরাজ্যে ভোটগ্রহণ শুরু, এগিয়ে জো বাইডেন         ভারতের মুর্শিদাবাদে ৬ আল কায়দা জঙ্গি গ্রেফতার         করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় ফের লকডাউনে যাচ্ছে ইউরোপ         পারস্য উপসাগরে বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের         বিশ্বে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৯ লাখ ছাড়াল         রাশিয়ার হস্তক্ষেপের বিষয়ে এফবিআইর সতর্কবার্তা         ভারতের মোহ কাটিয়ে চীন ঘেঁষছে বাংলাদেশ ॥ ইকোনমিস্টের প্রতিবেদন         বাড়ছে চীন-তাইওয়ান উত্তেজনা