বুধবার ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কাশ্মীরি শাল বিক্রেতাদের বাড়তি নিরাপত্তা

কাশ্মীরি শাল বিক্রেতাদের বাড়তি নিরাপত্তা

অনলাইন ডেস্ক ॥ শীত মৌসুম এলেই ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের শাল বিক্রেতারা ছুটে আসেন কলকাতা শহরে। শুধু কলকাতা নয়, এসব শাল বিক্রেতা পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়ও ছড়িয়ে পড়েন। এবার কাশ্মীরের এই ব্যবসায়ীদের জন্য নিরাপত্তা জোরদার করেছে কলকাতা পুলিশ।

কোনো শাল বিক্রেতা কলকাতা বা অন্য কোথাও যাতে লাঞ্ছিত না হন, এ জন্য কলকাতা পুলিশ প্রতিটি থানায় নির্দেশিকা জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, প্রত্যেক কাশ্মীরি শাল বিক্রেতার নিরাপত্তা জোরদার করতে হবে। একই সঙ্গে তাঁদের ওপর নজর রাখতে হবে, যাতে তাঁরা কোনো হামলার শিকার না হন। এসব শাল বিক্রেতা কোথায় থাকছেন, এর তালিকাসহ টেলিফোন নম্বর সংগ্রহ করে রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে শাল বিক্রেতাদের বলা হয়েছে, প্রয়োজনে নিকটবর্তী থানায় যোগাযোগ করতে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে কাশ্মীরের পুলওয়ামায় হামলা, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদ, কাশ্মীরকে রাজ্যের মর্যাদা থেকে বাদ দিয়ে একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রূপান্তর করার পরও কেবল রুটিরুজির তাগিদে শাল ব্যবসায়ীরা ছুটে এসেছেন পশ্চিমবঙ্গে। এর আগে পুলওয়ামা হামলার পর কলকাতার তিলজলা, বেহালাসহ আরও কয়েকটি এলাকায় কাশ্মীরিরা হামলার শিকার হন। বিষয়টি কথা মাথায় রেখেই এবার কলকাতা পুলিশের প্রধান দপ্তর লালবাজার আরও বেশি সজাগ হয়ে কাশ্মীরি শাল বিক্রেতাদের নিরাপত্তা জোরদার করার উদ্যোগ নিয়েছে।

কলকাতায় আসার পর বেশির ভাগ কাশ্মীরি ব্যবসায়ী বাসা ভাড়া করে থাকেন। শাল, সোয়েটার, কার্পেট, জ্যাকেট, কার্ডিগান, স্কার্ফ, কম্বলসহ শীতের নানা জিনিসের পসরা নিয়ে আসেন তাঁরা। অনেক সময় বাকিতেও শাল বিক্রি করেন। আবার কখনো কিস্তিতেও বিক্রয় করেন। শাল বিক্রি করে মৌসুম শেষে চলে যান নিজের রাজ্যে। তারপর আবার একটি নির্দিষ্ট সময়ে ফিরে এসে বাকি টাকা আদায় করেন। এভাবেই কলকাতা ও রাজ্যজুড়ে চলে কাশ্মীরি শাল বিক্রেতাদের ব্যবসা। সাধারণত দুর্গাপূজার পরই কলকাতায় আসতে শুরু করেন তাঁরা। অনেক ব্যবসায়ীর শালের দোকান রয়েছে কলকাতা শহরে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৩২৪৯৫৭৫
আক্রান্ত
১৯০০৫৭
সুস্থ
৭৭১৮৩০৭
সুস্থ
১০৩২২৭
শীর্ষ সংবাদ:
হোতারা রেহাই পাবে না ॥ স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতির বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স         উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয়ে সাশ্রয়ী হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কক্সবাজার-সাতক্ষীরা সুপার ড্রাইভওয়ে হচ্ছে         করোনায় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ তিন হাজার         সীমান্ত পাড়ি দেয়ার জন্য সাহেদ মৌলভীবাজারে!         করোনার নকল সনদ ॥ সাবরিনার বিরুদ্ধে মামলা         নিয়ন্ত্রণহীন বেসরকারী হাসপাতাল         ১৯ দিন ধরে বন্যায় ভাসছে উত্তরের বিভিন্ন জেলা         যশোর-৬ ও বগুড়া-১ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী         সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করতে চায় বিএনপি         বাস ও লঞ্চ টার্মিনালে হকারদের ছবিসহ তালিকা হচ্ছে         ঈদের দিনসহ ৫ দিন ৬ স্থানে বসবে পশুর হাট         চট্টগ্রামে করোনায় ডাক্তার ও ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু         নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিদ্যুত উৎপাদনে চীনা বিনিয়োগ আসছে         করোনা ও উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীসহ ১১ জনের মৃত্যু         একনেকে ১০ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন         কেশবপুর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের শাহীন চাকলাদার নির্বাচিত         ঈদের জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১১ নির্দেশনা         অধিদপ্তরের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১৪ লাখ মানুষ        
//--BID Records