ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

উখিয়ায় দলীয় পরিচয়ে বনভূমি দখল ॥ অবৈধ স’মিল

প্রকাশিত: ১২:৩৭, ২৪ অক্টোবর ২০১৯

উখিয়ায় দলীয় পরিচয়ে বনভূমি দখল ॥ অবৈধ স’মিল

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ দক্ষিণ বনবিভাগের উখিয়া এলাকায় দলীয় পরিচয়ে সংরক্ষিত বনভূমি দখল ও স’মিল বসিয়ে বনাঞ্চলের গাছ চেরাই করছে। সিন্ডিকেট গঠন করে উখিয়ার থাইংখালী স্টেশনের উভয়পাশে বনবিট কার্যালয়ের অদূরে ৭টি অবৈধ স’মিল বসিয়েছে। ওইসব স’মিল থেকে মাসিক মোটা অঙ্কের ঘুষ পৌঁছে যাচ্ছে বিটকর্মকর্তা থেকে শুরু করে রেঞ্জ কার্যালয় পর্যন্ত। এছাড়া রোহিঙ্গা আগমনের সূত্র ধরে সরকার দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা বনবিভাগের জায়গা দখল করে নিয়েছে। কেউ ঘেরা বা কেউ ঘরও তৈরি করেছে দখলকৃত বনজসম্পদে। বিশেষ করে উখিয়ার রাজাপালং ও পালংখালী ইউনিয়নের কুতুপালং, কচুবনিয়ার ছড়া, টিভি রিলে কেন্দ্র, তেলীপাড়া, বালুখালী পশ্চিমপাড়া, বালুখালী ঢালা, থাইংখালী, শফিউল্লাহ কাটা ও পালংখালী এলাকায় বিপুল পরিমাণ বনভূমি বেদখলে চলে গেছে। করইবনিয়া কবরস্থান সংলগ্ন বনভূমি দখল করে গৃহ নির্মাণ করেছে দলীয় এক নেতা। জানা যায়, করইবনিয়ায় জুম চাষের পাহাড়ে দলীয় ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে বাগান করার নামে এটিএম রশিদ ও হানিফ ছিদ্দিকী এবং ফজলুল করিমের নেতৃত্বে বনভূমি জবর দখল করে নতুন নতুন গৃহ নির্মাণ করেছে। ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বাগানের পাহাড়ে নতুন কিছু ঘরবাড়ি হচ্ছে। উখিয়া বনরেঞ্জ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, উক্ত বনভূমিতে সরকারীভাবে বনায়ন সৃজন করার তালিকা প্রেরণ করা হয়েছে। অনুমোদন হয়ে আসলে শীঘ্রই তা বাস্তবায়ন করা হবে। এদিকে বালুখালী ঢালারমূখ এলাকায় প্রধান সড়কের পূর্বপাশে তাহের নামে এক ব্যক্তি দখলে নিয়েছে ৬ কোটি টাকা মূল্যের বনজসম্পদ।
monarchmart
monarchmart