মঙ্গলবার ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ নভেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জেমস বন্ডকে কেন ০০৭ বলা হয়

  • সারতাজ আলীম

ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থা এমআই সিক্সের এজেন্টদের প্রত্যেককেই একটি অদ্বিতীয় সংখ্যা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়। যাদের সংখ্যার আগে ০০ আছে তারা হচ্ছে খরপবহংবফ ঃড় শরষষ, অর্থাৎ যে কোন সময় তারা ব্রিটেনের হুমকি এমন কাউকে হত্যা করার জন্য অনুমোদিত! বন্ডের পরিচয় ‘০০৭’। ‘০০’ পাওয়া সপ্তম ব্যক্তি বন্ড।

কখনও কি মনে হয়েছে জেমস বন্ডের সংখ্যাটি কেন ০০৭। ০০৬ বা ০০৮ নয় কেন। এর পেছনে দুটি সত্যি ঘটনার প্রভাব আছে বলে মনে করা হয়।

জেমস বন্ডের লেখক স্যার ইয়ান ফ্লেমিং ১ম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর একজন সামরিক গোয়েন্দা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯১৭ সাল, জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্থার জিমারম্যান মেক্সিকোতে তৎকালীন জার্মান রাষ্ট্রদূত হেনরিককে একটি টেলিগ্রাম করেন। সারমর্ম ছিল যে ১ম বিশ্বযুদ্ধে যদি জার্মানি তথা অক্ষশক্তিকে মেক্সিকো সাহায্য করে তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস, এ্যারিজোনা, নিউ মেক্সিকো প্রদেশ দখল করতে মেক্সিকোকে সাহায্য করবে জার্মানি। প্রাচীনকালে এসব অঞ্চল মেক্সিকোর আওতাধীন ছিল। এ ছাড়াও আমেরিকা মহাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার মতো কেউ ছিল না।

আটলান্টিক পাড়ি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূমিতে আক্রমণ করতে হলে অক্ষশক্তিকে বিমান বা জাহাজে করে অবতরণ করতে হবে যা খুবই সুঃসাধ্য। ১৯১৭ সালে যখন এই টেলিগ্রাম করা হয়েছিল তখন জার্মানি ইউরোপের অনেকাংশ পদতলে আনলেও যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক অভিযানের আশঙ্কা করছিল। তাই আমেরিকা মহাদেশের মাটিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কেউ যুদ্ধ ঘোষণা করলে যুক্তরাষ্ট্র নিজের ঘর সামাল দিতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ত এবং ইউরোপের সামরিক সহায়তা দিতে পারত না। জিমারম্যানে পাঠানো এই টেলিগ্রামের সাঙ্কেতিক নাম ছিল ০০৭৫। কিন্তু ব্রিটিশ গোয়েন্দারা এই বার্তা ধরে ফেলে এবং এনক্রিপটেড টেলিগ্রামটির অর্থ উদ্ধার করত সক্ষম হয়। সেই গোয়েন্দাদের দলে স্যার ফ্লেমিংও ছিলেন। এই টেলিগ্রামের ব্যাপারে মিত্রশক্তিকে জানানো হয় এবং এই তথ্যটি যুদ্ধে মিত্রবাহিনীর বিজয় ত্বরান্বিত করে। বলা হয়ে থাকে ০০৭৫ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই স্যার ইয়ান ফ্লেমিং বন্ডকে ০০৭ সংখ্যাটি দিয়েছিলেন।

আরেকটি ব্যাখ্যা পাওয়া যায়। ইতিহাসবিদদের মতে রানী প্রথম এলিজাবেথের খুব বিশ্বস্ত একজন চর ছিলেন। গণিত এবং জ্যোতির্বিদ্যাতে অসামান্য দক্ষতা ছিল তার। জন ডি নামের এই প-িত ১৫২৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ইউরোপের বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ এবং ট্রিনিটি কলেজে অধ্যয়নের পর জন ডি অসামান্য বিদ্যার অধিকারী হন। তার কাছে সে সময়ের প্রায় সব বিখ্যাত বই ছিল। তিনি আবহাওয়া নিয়ে নিখুঁত পূর্বাভাস দিতে পারতেন। ব্রিটিশ চ্যানেলে স্পেনের ১০০ এর বেশি জাহাজ একটি ঝড়ে ধ্বংস হয় এবং জন ডি সেই ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছিলেন। তার খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে ব্রিটেনে। ডি রানীকে চিঠি লিখতেন যেগুলোতে অনেকটা ‘০০৭’-এর মতো লেখা থাকত। ০০ দুটি রানীর চোখকে ইঙ্গিত করত এবং চিঠিগুলো যে শুধু রানীর চোখ দিয়ে দেখার জন্য পাঠানো সেটা বুঝত। সঙ্গে ৭ কে ভাগ্যবান সংখ্যা হিসেবে জুড়ে দেয়া হতো। বেশিরভাগ ইতিহাসবিদের মতে জন ডি রানী প্রথম এলিজাবেথের গুপ্তচর ছিল। সে সময় ইউরোপজুড়ে ব্রিটিশ গুপ্তচরদের আনাগোনা ছিল এবং তাদের প্রধান মনে করা হতো জন ডি কে। রানীর দরবারে তাদের বেশ প্রভাব ছিল এবং রানী ইউরোপকে তাদের চোখ দিয়েই দেখতেন। স্যার ইয়ান ফ্লেমিং পরিষ্কার করে বলে জাননি জেমস বন্ডকে কেন তিনি ০০৭ সংখ্যাটি দিয়েছেন। ধারণা করা হয় এই দুটি ঘটনা থেকেই জেমস বন্ডকে ০০৭ সংখ্যাটি দিতে তিনি অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
সারা দেশে হাফ ভাড়া দাবিতে ৯দফা কর্মসূচি শিক্ষার্থীদের         বাংলাদেশকে ২০ লাখ টিকা দিলো ফ্রান্স         ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব         আরও একমাস বাড়লো আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুলের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক         ৬০ বছরের বেশি বয়সী নাগরিকদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১.৩৪         দিনে ময়লার গাড়ি চালানো যাবে না : মেয়র আতিক         আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন         দক্ষিণ সিটি’র আরেক গাড়িচালক বরখাস্ত         গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর ১ ডিসেম্বর থেকে         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         কেউ অপরাধ করে পার পাবে না ॥ সেতুমন্ত্রী         রাঙ্গামাটিতে জেএসএস কমান্ডারকে গুলি করে হত্যা         নড়াইলে হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন         চট্টগ্রামে ভেঙে পড়লো বিএনপি নেতাদের সমাবেশ মঞ্চ         রামপুরায় শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়া বাসের চালকের সহকারী গ্রেফতার         কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা মামলার দুই আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত         সুইডেনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী মিজ অ্যান্ডারসন পদত্যাগের পর ফের পদে ফিরলেন         মিয়ানমারের সু চির রায় পিছিয়েছে