ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

জয়পুরহাটে হিন্দু পল্লীতে আবারও ডাকাতি

প্রকাশিত: ০০:৩২, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭

জয়পুরহাটে হিন্দু পল্লীতে আবারও ডাকাতি

নিজস্ব সংবাদদাতা,জয়পুরহাট ॥ বুধবার গভীর রাতে জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদশা ইউনিয়নের পাইকড়দাড়িয়া গ্রামের সংখ্যালঘু হিন্দুপল্লীর অখিল চন্দ্র মন্ডলের বাড়িতে দূধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়। দেশীয় অস্ত্রধারী ১৫-১৬ জনের ডাকাত দল ঘন্টাব্যাপি অস্ত্রের মুখে ডাকাতি করে ২১ ভরি সোনার গহনা, নগদ ২৩ হাজার টাকা ,কাঁসার থালা বাসন নিয়ে যায়। গত মঙ্গলবার সদর উপজেলার পার্শ্ববর্তী দোগাছী ইউনিয়নের বজরুক ভারুনিয়া ও দূর্গাদহ গ্রামে সংখ্যালঘু হিন্দু ও খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের ৩টি বাড়িতে ডাকাতির পর বুধবার রাতে অখিল চন্দ্র মন্ডলের বাড়িতে ডাকাতি হওয়ায় সংখ্যালঘুদের মাঝে তীব্র আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। পাইকদাড়িয়া গ্রামের অখিল চন্দ্র মন্ডল ও তার দুই পুত্র বধু মৃদুল রাণী মন্ডল ও সুমি রানী মুন্ডল জানায় বুধবার রাত আনুমানিক ২ টার দিকে ডাকাত দল বাড়ির গেট ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে। এরপর তারা গ্রিল ও শোবার ঘরের দরজা ভেঙ্গে অখিল চন্দ্র মন্ডলের হাত ও চোখ বেধে ফেলে এবং লাঠি দিয়ে মারধর শুরু করে । পর্যায়ক্রমে তারা বড় পুত্র চন্দন ও রনির ঘরে তালা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে। চন্দন আক্কেলপুরে প্রান কোম্মানীর কর্মস্থলে থাকায় তার স্ত্রী মৃদুলাকে অস্ত্রের মুখে রেখে আলমারির চাবি চেয়ে না পেয়ে আলমারি ভেঙ্গে ফেলে ৯ ভরি সোনার গহনা , নগদ ৩ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল নিয়ে যায়। এরপরে ছোট ছেলে রনির ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঢুকে অস্ত্রের মুখে রনির হাত পা চোঁখ বেধে ঘর থেকে বের করে নিয়ে আসে এসময় তার স্ত্রী বাধা দিলে স্ত্রীকে মারধর করে এবং আলমারি ভেঙ্গে ১২ ভরি সোনার গহনা নগদ ২০ হাজার টাকা ,২ টি মোবাইল ফোন ,১২ টি কাসার বাটি, ৪ টি থালা নিয়ে যায়। লুঙ্গি ও প্যান্ট পরিহিত ১৫-১৬ জনের ডাকাত দল রাত তিনটার সময় ঔ বাড়ি থেকে বের হওয়ার পূর্বে অখিল ও তার পুত্র রনিকে এবং তার দুই পুত্রবধু ও অখিলের স্ত্রীকে দুইটি ঘরে বন্ধ করে রেখে যায়।ডাকাত দল চলে গেলে তারা চিৎকার দিলে এলাকাবাসী এসে তাদের উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল সদর থানার ওসি মোঃ সেলিম ও গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মনিরুল ইসলাম পরিদর্শন করেছেন।
monarchmart
monarchmart