শুক্রবার ৮ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ট্রাম্প সমর্থিত প্রার্থীর পরাজয়, জিতলেন প্রতিপক্ষ রয় মুর

  • আলাবামায় রিপাবলিকান প্রাইমারি

মার্কিন সিনেটের জন্য আলাবামা অঙ্গরাজ্যের রিপাবলিকান প্রাইমারিতে জয়লাভ করেছেন রয় মুর। ‘ঈশ্বরের আইন’ ফেডারেল আইনকে রদ করতে পারে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত প্রাইমারিতে তিনি জয়ী হন। তার এই জয় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রিপাবলিকান পার্টির নেতৃত্বের প্রতি একটি সতর্ক বার্তা। ২০১৮ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচন সামনে রেখে দলের তৃণমূল রক্ষণশীলরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে বলে ধারণা পাওয়া যায়। ওয়াশিংটন পোস্ট।

রয় মুর আলাবামা সুপ্রীমকোর্টের প্রধান বিচারপতির পদ থেকে দুইবার বরখাস্ত হয়েছিলেন। বর্তমান সিনেটর লুথার স্ট্রেঞ্জকে পরাজিত করে তিনি দলের প্রাইমারিতে জয়লাভ করেছেন। জেফ সেশনস এ্যাটর্নি জেনারেল হওয়ার পর পদটি শূন্য হলে স্ট্রেঞ্জ ওই পদে আসীন হন। ট্রাম্প ও সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা মিচ ম্যাককোনেলের তাকে সমর্থন দিয়েছিলেন। মুর এখন ওই আসনে ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে লড়বেন। আলাবামার সাবেক এ্যাটর্নি ডেমোক্র্যাটিক দলীয় ডাউং জোনেসের সঙ্গে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। প্রাইমারিতে জয়লাভের পর প্রথম বক্তৃতায় মুর বলেন, ‘ঈশ্বরের জ্ঞান’ ও যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধানের কাছে আমাদের ফিরে যেতে হবে । আমরা আমাদের দেশের মূল ভিত্তি থেকে অনেক দূরে সরে পড়েছি।

মুরের এ জয়কে রিপাবলিকান পার্টির বর্তমান নেতৃত্বের বিরোধী রক্ষণশীলরা ‘ঈশ্বর প্রদত্ত উপহার’ বলেই মনে করছে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বেও পপুলিস্টরা জায়গা দখল করবে বলে তারা আশা করছে। আলাবামার রাজধানী মন্টগামারিতে হোয়াইট হাউসের সাবেক স্ট্র্যাটেজিস্ট স্টেফান কে ব্যানন বলেন, ‘মানুষ না অর্থ কে সার্বভৌম, মুরের জয়ের মাধ্যমে আলাবামাবাসী সে প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিয়েছে। নির্বাচনে জিততে মুরের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রচুর অর্থ ব্যয় করেন। মঙ্গলবারের প্রাইমারিতে পরাজয়ের পর ম্যাককোনেল বলেন, ‘গত নির্বাচনে জয়ের পর আমরা আমাদের কর্মসূচী বাস্তবায়নে যথেষ্ট সক্রিয় না হওয়ায় জনগণের মধ্যে যে কিছুটা হতাশা তৈরি হয়েছে সেটি আমি উপলব্ধি করি।’ স্ট্রেঞ্জকে জেতানোর জন্য ম্যাককোনেলের নেতৃত্বে রিপাবলিকানদের একটি গ্রুপ প্রায় ৯০ লাখ ডলার ব্যয় করে।

ইউএস চেম্বার্স অব কমার্সের কনসালটেন্ট স্কট রিড বলেন, ‘মুরের জয়ের ফলে ট্রাম্পের এজেন্ডাগুলো বাস্তবায়ন করা কঠিন হয়ে পড়বে।’ তবে তার এ জয় ট্রাম্পের জন্য কতটুকু বিপত্তির কারণ ঘটাবে তা স্পষ্ট নয়। কারণ প্রাইমারির প্রচারকালে উভয় প্রার্থীই ট্রাম্পের ‘আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ স্লোগান ব্যবহার করেছেন। প্রচারাভিযানকালে ট্রাম্প উভয় প্রার্থীর কাছ থেকেই কিছুটা দূরত্ব বজায় রাখেন। ব্যানন, আলাস্কার সাবেক গবর্নর সারা পেলিন এবং একটি রক্ষণশীল রেডিও ব্রডকাস্টার লরা ইনগ্রাহামের মতো প্রথাবিরোধী কিছু ডানপন্থী রক্ষণশীলের সমর্থন মুর পেয়েছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার         রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় এক পরিবারের ৩ জন নিহত         তিন পণ্য দ্রুত আমদানির পরামর্শ         শতবর্ষী কালুরঘাট সেতুর আরও বেহাল দশা         ঐক্য সুদৃঢ় আওয়ামী লীগের বিএনপি হতাশ         ইসি নিয়োগ আইন চলতি অধিবেশনেই পাসের চেষ্টা থাকবে         শান্তিরক্ষা মিশনে র‌্যাবকে বাদ দিতে ১২ সংগঠনের চিঠি         মাদকসেবীর সঙ্গে মাদকের বাজারও বাড়ছে