ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

তবু আত্মবিশ্বাসী ইংলিশ অধিনায়ক মরগান

প্রকাশিত: ০৬:৪৫, ৩১ মে ২০১৭

তবু আত্মবিশ্বাসী ইংলিশ অধিনায়ক মরগান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকা র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল। সেই তাদের বিপক্ষে টানা দুই জয়ে সিরিজ নিশ্চিত করে ইংল্যান্ড। কিন্তু লর্ডসের শেষ ওয়ানডেতে হেরে বসে বাজে ভাবে। ৫ ওভারের মধ্যে ৬ উইকেট হারিয়ে লজ্জার রেকর্ডে নাম লেখানোর পর শেষ পর্যন্ত ১৫৩ রান করে স্বাগতিকদের হার ৭ উইকেটে। লর্ডসের অতিরিক্ত ঘাসের উইকেটের সমালোচনা করলেও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে এর কোন প্রভাব পড়বে না বলেই বিশ্বাস ইয়ন মরগানের। রঙিন পোশাকের ইংলিশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমি হার নিয়ে যতটা না, লর্ডসের পিচ নিয়ে তার চেয়ে বেশি চিন্তিত! আন্তর্জাতিক সিরিজে এটা মেনে নেয়া যায় না। এমন পরিস্থিতিতে টস জেতাটাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয়। তবে আমি এ নিয়ে চিন্তিত নই। কারণ টানা দুই জয়ে সিরিজ নিশ্চিতের পথেই প্রমাণ হয়েছে আমরা ঠিক পথে আছি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্র্রফিতে ভাল করতে শতভাগ আত্মবিশ্বাসী আমি।’ লর্ডসে পরশু ৫ ওভারে স্কোর বোর্ডে ২০ রান জমা করতেই ৬ উইকেট হারায় ইংলিশরা। ওয়ানডে ইতিহাসে মাত্র ৩০ বলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উইকেট পতনের লজ্জার রেকর্ড এটি। শেষ পর্যন্ত জনি বেয়ারস্টো (৫১), রোল্যান্ড জোন্স (৩৭*) এবং ডেভিড উইলির (২৬) দৃঢ়তায় ৩১.১ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ১৫৩ রান করে স্বাগতিকরা। ২৮.৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে সেটি টপকে যায় প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। পিচ নিয়ে ক্ষুব্ধ মরগান বলেন, ‘চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে যদি এমন উইকেট হয়, তাহলে আমি সত্যি হতাশ হব।’ ইংল্যান্ড অধিনায়কের মন্তব্য এমন উইকেট ওয়ানডের জন্য উপযোগী নয়। কারণ পেসারদেরই সহায়তা দিয়েছে এই উইকেট। তাতেই কাগিসো রাবাদা (৪/৩৯) ও ওয়েইন পারনেল (৩/৪৩) সুযোগ লুফে নিয়েছেন উইকেট তুলে। আর প্রভাবক হিসেবে কাজে দিয়েছে টসভাগ্য। সেটাই মূলত জয় নির্ধারণ করে দিয়েছে প্রোটিয়াদের। এমন ভাবনা মরগানের, ‘বড় ধরনের টুর্নামেন্টে টসের কারণে হেরে যাওয়াটা অনেক কষ্টের। এটা সহজে নেয়া যায় না। এসব ক্ষেত্রে আগে ব্যাট করা দল হারতেই পারে।’ উইকেটকে দায়ী করছেন মরগান। তার আরও কিছু ব্যাখ্যা এভাবেই তুল ধরেন তিনি, ‘আমরা দেখেছি সকালে ব্যাটসম্যানরা যেভাবে শটস খেলেছে, আর পরে যারা ব্যাটিং করেছে- সেসময় শটসগুলোর ধরনে পার্থক্য ছিল।’ তবে প্রোটিয়াদের বোলিংয়ের প্রশংসা করতেও ভুলে যাননি মরগান। তার মতে, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা দুর্দান্ত বোলিং করেছে। ওরা আমাদের শট খেলতেই দেয়নি। যদি দিত তাহলে আমরা সেভাবেই জবাব দিতাম। তবে ওদের কিন্তু কৃতিত্ব দিতেই হবে।’ অবশ্য একদিক থেকে স্বস্তি পেতেই পারে ইংল্যান্ড। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির জন্য ব্যাটিং সহায়ক উইকেট তৈরি হয়েছে। তবু সকালের আবহাওয়া ভাবাতে পারে স্বাগতিকদের। আর্দ্রতা থাকলে কিছুটা চিন্তার ভাঁজ ফেলতে হতে পারে মরগানদের! বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচ দিয়ে ঘড়ের মাটিতে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মিশন শুরু করবে ইংলিশরা। শেষ ছয়টি ওয়ানডে সিরিজের পাঁচটি জিতেছে ইংল্যান্ড। মরগান বেশ ভালভাবেই দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ২০১৩ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালেও দলে ছিলেন তিনি। যদিও দলের হার সামনে থেকে দেখেছিলেন। এবার আর হতাশ করতে চান চান ইংলিশ অধিনায়ক। বড় টুর্নামেন্টে স্বপ্নের শিরোপা জিততে চান। ঘরের মাঠে খেলা বলেই ইংল্যান্ডকে সবাই ফেভারিট মনে করছেন। ইংল্যান্ড দলও যথেষ্ট আশাবাদী।
monarchmart
monarchmart