শুক্রবার ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নবম-দশম শ্রেণির পড়াশোনা

  • বিষয় ॥ জীববিজ্ঞান;###;Taslima Afroz

Blessed with SHAH MD.IDRIS ALI & HAMIDA ALI

C/O Md. Sofiul Haq Khandakar (Shohag)

M.Sc. (First Class 1st), B.Sc. (First Class 9th)

Achieved: Best Teacher Award, Lecturer in Zoology,

Arambagh High School & College,

Arambagh, Motijheel, Dhaka -1000.

Mob: 01711-043777 e-mail: [email protected]

(পর্ব-২৯)

চতুর্থ অধ্যায় ॥ জীবনীশক্তি

সুপ্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ, প্রীতি ও শুভেচ্ছা রইল। ইতোপূর্বে তোমরা জীবনীশক্তি, জীবনীশক্তিতে অঞচ এর ভূমিকা, সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়া, ঈ৩ গতিপথ বা ক্যালাভিন চক্র ও ঈ৪ গতিপথ বা হ্যাচ ও স্ল্যাক চক্র, সালোকসংশ্লেষণের প্রভাবসমূহ ও এর গুরুত্ব, সবাত শ্বসন এবং অবাত শ্বসন সম্পর্কে জেনেছো।

আজকের আলোচনা: শ্বসনের গুরুত্ব ও শ্বসন প্রক্রিয়ার প্রভাবকসমূহ

শ্বসন: যে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় ঙ২ এর উপস্থিতি বা অনুপস্থিতিতে কোষস্থ জটিল খাদ্য জারণের মাধ্যমে শক্তি নির্গত হয় এবং উপজাত দ্রব্য হিসেবে ঈঙ২ ও ঐ২ঙ উৎপন্ন হয় তাকে শ্বসন বলে।

শ্বসনের সামগ্রিক সমীকরণটি নিম্নরূপ :

শ্বসনের গুরুত্ব :

শ্বসন প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন শক্তি দিয়ে জীবের সব ধরনের ক্রিয়া-বিক্রিয়া ও কাজকর্ম পরিচালিত হয়। শ্বসনে নির্গত ঈঙ২ জীবের প্রধান খাদ্য শর্করা উৎপনের জন্য সালোকসংশ্লেষণে ব্যবহৃত হয়। এ প্রুক্রয়া উদ্ভিদে খনিজ লবণ পরিশোষণে সাহায্য করে, যা পরোক্ষভাবে উদ্ভিদের বৃদ্ধি ও অন্যান্য জৈবিক প্রক্রিয়া চালু রাখে। কোষ বিভাজনের প্রয়োজনীয় শক্তি ও বিছু আনুষঙ্গিক পদার্থশ্বসন প্রুক্রয়া থেকে অসে। তাই এ প্রক্রিয়া জীবের দৈহিক বৃদ্ধিও নিয়ন্ত্রণ করে। এ প্রক্রিয়া বিভিন্ন উপক্ষার ও জৈব এসিড সৃষ্টিতে সহায়তা করার মাধ্যমে জীবনের অন্যান্য জৈবিক কাজেও সহায়তা করে। কিছু কিছু ব্যাকটেরিয়া অক্সিজেনের উপস্থিতিতে বাচতে পারে না। এদের শক্তি উৎপাদনের একমাত্র উপায় হলো অবাত শ্বসন। এ প্রক্রিয়ায় ইথাইল অ্যালকোহল তৈরি হয়, যাবিভিন্ন শিল্পে ব্যবহৃত হয়। ল্যাকটিক এসিড ফার্মেন্টেশনের মাধ্যমে এ প্রক্রিয়ায় দই, পনির ইত্যাদি উৎপাদিত হয়। রুটি তৈরিতে এ প্রক্রিয়া ব্যবহৃত হয়। ইস্টের অবাত শ্বসনের ফলে অ্যালকোহল ও ঈঙ২ গ্যাস তৈরি হয়। ঈঙ২ গ্যাস এর চাপে রুটি ফাঁপা হয়।

শ্বসন প্রক্রিয়ার প্রভাবকসমূহ :

শ্বসন প্রক্রিয়ার প্রভাবকগুলো বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ দু’রকম হতে পারে।

ক. বাহ্যিক প্রভাবক : বাহ্যিক প্রভাবকসমূহ হলো- তাপমাত্রা, অক্সিজেন, পানি, আলো, কার্বন ডাই-অক্সাইড (ঈঙ২) প্রভৃতি

খ. অভ্যন্তরীণ প্রভাবক : অভ্যন্তরীণ প্রভাবকসমূহ হলো- খাদ্যদ্রব্য, উৎসেচক, কোষের বয়স, অজৈব লবণ, কোষমধ্যস্থ পানি প্রভৃতি

এদের বর্ণনা নি¤œরূপ:

ক. বাহ্যিক প্রভাবক : বাহ্যিক প্রভাবকসমূহ হলো-

তাপমাত্রা : ২০ সেলসিয়াস এর নিচে এবং ৪৫ সেলসিয়াস এর উপরের তাপমাত্রায় শ্বসন হার কমে যায়। শ্বসনের জন্য উত্তম তাপমাত্রা ২০ সেলসিয়াস।

অক্সিজেন : সবাত শ্বসনে পাইরুভিক এসিড জারিত হয়ে ঈঙ২ ও ঐ২ঙ উৎপন্ন করে। কাজেই অক্সিজেনের অভাবে সবাত শ্বসন কোনোক্রমেই চরতে পারে না।

পানি : পরিমিত পানি সরবারাহ শ্বসন ক্রিয়াকে স্বাভাবিক রাখে। কিন্তু অত্যন্ত কম কিংবা অতিরিক্ত পানির উপস্থিতিতে শ্বসন প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়।

আলো : শ্বসন কার্যে আলোর প্রয়োজন পড়ে না সত্যি কিন্তু দিনের বেলা আলোর উপস্থিতিতে পত্ররন্ধ্র খোলা থাকায় ঙ২ গ্রহণ ও ঈঙ২ ত্যাগ করা সহজ হয় বলে শ্বসন হার একটু বেড়ে যায়।

কার্বন ডাইাক্সাইড : বায়ুতে ঈঙ২এর ঘনত্ব বেড়ে গেলে শ্বসন হার কিঞ্চিত কমে যায়।

খ. অভ্যন্তরীণ প্রভাবক : অভ্যন্তরীণ প্রভাবকসমূহ হলো-

খাদ্যদ্রব্য : শ্বসন প্রক্রিয়ায় খাদ্যদ্রব্য (শ্বসনিক বস্তু) ভেঙ্গে শক্তি, পানি ও ঈঙ২ নির্গত করে তাই কোষে খাদ্যদ্রব্যের পরিমাণ ও ধরন শ্বসন হার নিয়œত্রণ করে।

উৎসেচক : শ্বসন প্রক্রিয়ায় বহুবিধ এনজাইম বা উৎসেচক সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে। কাজেই এনজাইমের ঘাটতি শ্বসন হার কমিয়ে দেয়।

কোষের বয়স : অল্পবয়স্ক কোষে বিশেষ করে ভাজক কোষে প্রোটোপ্লাজম বেশি থাকে বলে বয়স্ক কোষ অপেক্ষা শ্বসন হার বেশি হয়।

অজৈব লবণ : কোনো কোনো রবণ শ্বসনন প্রুক্রয়াকে ব্যাহত করলেও কোষের সুষ্ঠু ও স্বাভাবিক কাজের জন্য এবং স্বাভাবিক শ্বসন প্রক্রিয়া পরিচালিনার জন্য কোষের অভ্যন্তরে অজৈব লবণ থাকা বাঞ্চনীয় ।

কোষমধ্যস্থ পানি : বিভিন্ন শ্বসনিক বস্তু দ্রবীভ’ত করতে এবং এনজাইমের কার্যকারিতা প্রকাশের জন্য পনির প্রয়োজন।

শীর্ষ সংবাদ:
আজ ঠাকুরগাঁও মুক্ত দিবস         জবিতে চার বিভাগের ভর্তি মৌখিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা পেছাল         চাঁদপুরে মোটরসাইকেলের ৩ আরোহী বাসচাপায় নিহত         উখিয়ায় ক্যাম্পে আরসা ক্যাডারসহ ২৪১ জন আটক, বিপুল অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার         ৫০ বছর পর মুক্তিযোদ্ধা বাবা- পুত্রের কবর চিহ্নিত         সড়কের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লাল কার্ড দেখাবে শিক্ষার্থীরা         ১২ ডিসেম্বর দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ভাবে চলবে মেট্রোরেল         ভক্তের অভিযোগে দুঃখ প্রকাশ করেছেন কৃতি         ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত কুয়েট বন্ধ ঘোষণা         রামেক হাসপাতালে করোনা উপসর্গে ২ জনের মৃত্যু         বিশ্বের ৩০ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন         জনকন্ঠে সংবাদ প্রকাশের পর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে বরাদ্দ আসছে         বিয়ের পিড়িতে দুই হাত হারানো ফাল্গুনী         রায়পুরায় অপহরণের ৬ দিন পর মিললো শিশু ইয়াছিনের লাশ         ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর রেকর্ডে আর্সেনালকে হারাল ইউনাইটেড         সমুদ্রবন্দরে ১ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত         ফটিকছড়িতে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক         দিনাজপুরে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টায় কাজী কারাগারে, বরের জরিমানা         রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় মোটরসাইকেল আরোহীকে গুলি করে আহত