বুধবার ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পার্ল হারবার পরিদর্শনে শিনজো আবে

শিনজো আবে পার্ল হারবার পরিদর্শনকারী প্রথম জাপানী প্রধানমন্ত্রী নন। সম্ভবত তিনি চতুর্থ ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত এলাকটি পরিদশন করলেন। চলতি বছর মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা জাপানের হিরোশিমা পরিদর্শন করেন। এটি ছিল এক ঐতিহাসিক সফর। কারণ তার আগে ৭১ বছরের মধ্যে কোন ক্ষমতাসীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিরোশিমা যাননি। আবের পার্ল হারবার সফরকে ওবামার জবাব বলা যেতে পারে। প্রশ্ন হলো, ওবামার সফরের মতো একেও কি ঐতিহাসিক সফর হিসেবে আখ্যায়িত করা যায় কি না।

পার্ল হারবার নামের যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় সামরিক ঘাঁটিটিতে ৭৫ বছর আগে জাপান অতর্কিতে হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্র দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে নিয়ে সেখানে গেলেন আবে। তিনি যে পার্ল হারবার সফরে যাচ্ছেন সেটি তিনি চলতি মাসের গোড়ার দিকেই ঘোষণা করা হয়েছিল। জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা ওই কথা বলেছিলেন, ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আবে প্রথম পার্ল হারবার যাচ্ছেন। পুরনো সংবাদ ও নথিপত্র ঘাঁটাঘাঁটি করে মার্কিন সংবাদপত্রকর্মী জানতে পেরেছে আবের আগে প্রায় তিন জন প্রধানমন্ত্রী পার্ল হারবার পরিদর্শন করেছেন। তবে সেগুলো ঘটা করে মিডিয়ার কাছে প্রকাশ করা হয়নি। পার্ল হারবার আক্রমণের ১০ বছরের মাথায় জাপানের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শিজেরু ইয়োশিদা যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে হাওয়াইতে যাত্রা বিরতি করেন এবং পার্ল হারবারের সেই স্থানটি পরিদর্শনে যান। মার্কিন প্যাসিফিক কমান্ডের প্রধান আর্থার র‌্যাডফোর্ড এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন। ইয়োশিদা জাপানের ইয়োমুরি শিম্বুন পত্রিকাকে এ পরিদর্শনের কথা জানিয়েছিলেন। গত সপ্তাহে হাওয়াইভিত্তিক জাপানী ইংলিশ দ্বিভাষিক সংবাদপত্র হাওয়াই হোচি জানিয়েছে, অন্তত দুজন প্রধানমন্ত্রী ১৯৫০ এর দশকে পার্ল হারবার পরিদর্শন করেন। একজন হলেন ইচিরো হাতোয়ামা, তিনি সেখানে যান ১৯৫৬ সালের ২৯ অক্টোবর।

পরের বছর ১৯৫৭ সালের ২৮ জুন পার্ল হারবার পরিদর্শন করেন আবের নানা নবোসুকি কিশি। তিনি প্রশান্ত মহাসাগরীয় ন্যাশনাল মেমোরিয়াল সিমেট্রিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পার্ল হারবার হামলায় নিহত মার্কিন সৈন্যদের মৃতদেহ সেখানে সমাহিত করা হয়েছে। অতীতে বিভিন্ন সময়ে জাপানী নেতৃবৃন্দ হাওয়াই গেলেও পার্ল হারবার না গিয়ে কেবল ন্যাশনাল মেমোরিয়াল পরিদর্শন করে চলে এসেছেন। তবে এবারের আবের পার্ল হারবার পরিদর্শনের গুরুত্ব হচ্ছে এখানে যে তার সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ছাড়াও দুদেশের কজন শীর্ষ কর্মকর্তা থাকছেন। এছাড়া তিনি এমন এক সময় এ সফর করলেন যখন জাপান অতীত ইতিহাস ঝেড়ে ফেলে নতুনভাবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজেকে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছে। -ওয়াশিংটন পোস্ট

শীর্ষ সংবাদ:
স্বপ্ন পূরণে ভাগ্য বদল ॥ পদ্মা সেতু নামেই ২৫ জুন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         রোহিঙ্গারা অপরাধে জড়াচ্ছে প্রত্যাবাসন অনিশ্চয়তায়         ১৩৫ বিলাসবহুল পণ্যে ২০ ভাগ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক আরোপ         আমি ত্রাস সঞ্চারি ভুবনে সহসা সঞ্চারি ভূমিকম্প...         দিনের ভোট দিনেই হবে, রাতে হবে না ॥ সিইসি         সম্রাটকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠালেন আদালত         হাতিরঝিলের পানির ক্ষতি করা যাবে না ॥ হাইকোর্ট         এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে লড়ছে দুদল         মাঙ্কিপক্সের প্রবেশ রোধে সর্বোচ্চ সতর্ক হতে হবে         ঢাবিতে ছাত্রলীগ ছাত্রদল সংঘর্ষ ॥ আহত ৩০         জামায়াতের সঙ্গেও সংলাপে বসবে বিএনপি ॥ ফখরুল         সিলেটে বন্যার পানি নামছে ধীরে, নানা সঙ্কট         জলাবদ্ধতা থেকে এবারের বর্ষায়ও মুক্তি মিলছে না চট্টগ্রামবাসীর         শেখ হাসিনা সরকার পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে এনেছে ॥ কাদের         প্রত্যাবাসন নিয়ে রোহিঙ্গারা দীর্ঘ অনিশ্চয়তার কারণে হতাশ হয়ে পড়ছে : প্রধানমন্ত্রী         হাতিরঝিলে স্থাপনা উচ্ছেদসহ ওয়াটার ট্যাক্সি নিষিদ্ধে রায় প্রকাশ         মাদকাসক্ত সন্তানকে গ্রেফতারে বাবা-মা আসেন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নিয়মানুযায়ী দিনের ভোট দিনেই হবে ॥ সিইসি         রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনই স্থায়ী সমাধান         ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন