শনিবার ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

মুসলমানদের ওপর ট্রাম্পের নজরদারি বন্ধে ওবামার পদক্ষেপ

মুসলমানদের ওপর ট্রাম্পের নজরদারি বন্ধে ওবামার পদক্ষেপ

অনলাইন ডেস্ক॥ মুসলিমদের ভিসা প্রদানে কড়াকড়িসহ যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সময় বিশেষ নিবন্ধন কর্মসূচি পুণরায় চালুর পথ বন্ধ করা হলো। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নির্দেশে ২২ ডিসেম্বর মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রণালয় ‘ন্যাশনাল সিকিউরিটি এন্ট্রি-এক্সিট রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম’ (এনএসইইআরএস) কে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

ফেডারেল রেজিস্টারেও তা প্রকাশ করা হয়েছে।

এর ফলে দায়িত্ব গ্রহণের পর ডোনাল্ড ট্রাম্প চাইলেই মুসলমানদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশকালে বিশেষ কড়াকড়ি এবং মুসলিম অভিবাসীদের বিশেষ নজরদারি করতে পারবেন না।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশের নির্দেশ অনুযায়ী ২০০৩ সালে ‘এনএসইইআরএস’ চালু করা হয়। প্রথম দফায় ইরান, ইরাক, লিবিয়া, সুদান এবং সিরিয়ার নাগরিকদের জন্যে এ প্রক্রিয়া বহাল হয়। এরপর দ্বিতীয় দফায় যুক্ত করা হয় আফগানিস্তান, আলজেরিয়া, বাহরাইন, ইরিত্রিয়া, লেবানন, মরক্কো, উত্তর কোরিয়া, উমান, কাতার, সোমালিয়া, তিউনিসিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইয়েমেনকে। তৃতীয় দফায় পাকিস্তান ও সৌদি আরব। শেষ দফায় বাংলাদেশ, মিশর, ইন্দোনেশিয়া, জর্দান এবং কুয়েতকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

এসব দেশের অভিবাসীদের নির্দিষ্ট স্থানে গিয়ে তালিকাভুক্ত হতে হয়। যুক্তরাষ্ট্র থেকে নিজ দেশে যাবার সময় নির্দিষ্ট বিমানবন্দরে গিয়ে পৃথক কর্তৃপক্ষের জিজ্ঞাসাবাদ ও তল্লাশির প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হয়। একইভাবে এসব দেশ থেকে ইমিগ্র্যান্ট, নন-ইমিগ্র্যান্ট ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে আসার সময় বিশেষ পর্যবেক্ষণের আওতায় বিমানবন্দর ছাড়তে পরিচয় লিপিবদ্ধ করতে হয়।

২০১১ সালের এপ্রিল পর্যন্ত বহাল ছিল এই প্রক্রিয়া। এ সময়ের মধ্যে অবশ্য তালিকাভুক্ত একজনকেও সন্ত্রাসে লিপ্ত থাকতে দেখা যায়নি। তবে তালিকাভুক্তদের মধ্য থেকে ১৩ হাজার মানুষকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে, অভিবাসনের বৈধতা না থাকায়।

শীর্ষ সংবাদ: