ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

পাকিস্তান-উইন্ডিজ প্রথম ওয়ানডে আজ

প্রকাশিত: ০৬:২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬

পাকিস্তান-উইন্ডিজ প্রথম ওয়ানডে আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টি২০ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুঃসহ এক সিরিজ শেষ করেছে। আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে। তবে এবার আরেক ফরমেটে পাকদের মুখোমুখি হচ্ছে ক্যারিবীয়রা এই মরুর দেশেই। ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে দারুণ লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। টি২০ ফরমেটের আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে ৪ নম্বরে থাকলেও ওয়ানডেতে আট নম্বরে ক্যারিবীয়রা, পাকিস্তান আছে ৯ নম্বরে। তাই পাকরা সম্প্রতিই ইংল্যান্ড সফরে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হেরে আসলেও উইন্ডিজকে টি২০ সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করে বেশ উজ্জীবিত হয়েই মাঠে নামবে। ক্যারিবীয়দের লক্ষ্য ঘুরে দাঁড়ান। শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায় ম্যাচটা শুরু হবে। এই ওয়ানডে সিরিজ উভয়দলের জন্যই বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে সরাসরি অংশ নেয়ার জন্য র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি করাটা জরুরী উভয়দলের জন্যই। তাই সিরিজ জয়ের প্রত্যয় নিয়েই শুরু থেকে পরস্পরের মুখোমুখি হবে দু’দল। যদিও টি২০ সিরিজে আরব আমিরাতে বেশ সমস্যায় পড়েছে সফরকারী ক্যারিবীয়রা। পাকিস্তানী স্পিনারদের সামনে একেবারেই অসহায় ছিল দলের ব্যাটসম্যানরা। একই চ্যালেঞ্জ ওয়ানডে সিরিজেও থাকবে তাদের জন্য। বিশেষ করে স্পিন অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিম এখন ভয়ঙ্করতম শত্রু ক্যারিবীয়দের কাছে। তিনি টি২০ সিরিজে ৯ উইকেট শিকার করেছেন। তার ওপরই ভরসা থাকবে পাকদের। এছাড়া ইয়াসির শাহ তো থাকছেনই। ওয়ানডে সিরিজে দলে ফিরেছেন উমর আকমল, আসাদ শফিক, সোহেল খান ও রাহাত আলী। কিন্তু ইংল্যান্ড সফরের দল থেকে বাদ পড়েছেন অভিজ্ঞ পেসার উমর গুল ও টপঅর্ডার সামি আসলাম। এদের মোকাবেলায় ক্যারিবীয় দলেও আছেন সুনিল নারাইন ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। এছাড়া ওয়ানডেতে সুযোগ পেয়েছেন ৩১ টেস্ট খেলা ক্রেইগ ব্রেথওয়েট ও ১৯ বছর বয়সী এন্টিগুয়ার পেসার আলজারি জোসেফ। মারকুটে ওপেনার এভিন লুইসও ঠাঁই পেয়েছেন। তারা যোগ দেবেন অভিজ্ঞ মারলন স্যামুয়েলস, ড্যারেন ব্রাভো, কাইরন পোলার্ড ও দিনেশ রামদিনের সঙ্গে। এই সিরিজেও ক্রিস গেইলকে ছাড়াই নামছে ক্যারিবীয়রা। এছাড়া আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্রাভো ও লেন্ডল সিমন্স নেই। টি২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশের ক্ষত নিয়ে উজ্জীবত পাকিদের বিরুদ্ধে লড়াইটা তাই বেশ বড় ধরনের পরীক্ষাই হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য। বিশেষ করে পাক স্পিন আক্রমণের বিরুদ্ধে ব্যাটসম্যানদের বড় চ্যালেঞ্জ থাকবে। অধিনায়ক পেসার জ্যাসন হোল্ডারও ব্যাটসম্যানদের কাছে ওয়ানডে সিরিজে ভাল কিছুর প্রত্যাশা করছেন। অবশ্য এর আগে আরব আমিরাতের মাটিতে দু’দলের ওয়ানডে লড়াইয়ে তেমন পিছিয়ে নেই ক্যারিবীয়রা। ২২ ওয়ানডেতে এই মরুরদেশে মুখোমুখি হয়ে পাকরা ১৩ বার এবং ক্যারিবীয়রা ৯ বার জিতেছে। এখন পর্যন্ত দু’দলের হওয়া ৭১ ওয়ানডেতে ৪০ বারই জিতেছে ক্যারিবীয়রা, হেরেছে ৩১ বার। এবার দেখার বিষয় টি২০ ব্যর্থতা কাটিয়ে অতীতকে পুঁজি করে ঘুরে দাঁড়াতে পারে কিনা তারা!