সোমবার ২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পয়সা ছাড়ায় এই রেস্তরাঁয় সবার জন্যই খাবার

পয়সা ছাড়ায় এই রেস্তরাঁয় সবার জন্যই খাবার

অনলাইন ডেস্ক॥ বিদেশের আর পাঁচটা ভারতীয় রেস্তরাঁয় যে খানাখাজানা আপনি পাবেন, তা পাবেন এখানেও, কানাডার এডমন্টনের এই রেস্তরাঁয়। কিন্তু, অন্যখানে যা পাবেন না, তাহল, এমন আতিথেয়তা, ভালোবাসা মাখানো আপ্যায়ন এবং সমবেদনা।

'সমবেদনা'র কথা শুনে, হোঁচট খেতেই পারেন। খাবেন রেস্তরাঁয়, তার সঙ্গে সমবেদনার সম্পর্ক কী? কানাডাবাসী পরকাশ ছিব্বের রেস্তরাঁয় ঢুঁ মারলে, উত্তরটা পেয়ে যাবেন।

ফ্যালো কড়ি মাখো তেলের এই দুনিয়ায় পরকাশ পকেটে এক কানাকড়িও না-থাকা ক্ষুধার্তকে পেটপুরে তাঁর রেস্তোরাঁয় খাওয়ান, পানীয় চাইলে তা-ও দেন। কোনো একজনও পয়সার জন্য না-খেতে পেয়ে ফিরে আসেন না এই ভারতীয়ের রেস্তোরাঁর দরজা থেকে। বিনে পয়সায় খাওয়াচ্ছেন বলে যে অপ্যায়নে খামতি থাকে, তা কিন্তু নয়।

পরকাশ চানই হতদরিদ্র, ক্ষুধার্ত মানুষ তাঁর রেস্তরাঁয় আসুক। দু-মুঠো খেয়ে তৃপ্তি পাক। সেজন্য রেস্তরাঁর পিছনের দরজার গায়ে বড় বড় হরফে নোটিশও ঝোলানো রয়েছে। যাতে কারও নজর না এড়ায়। তাতে লেখা, বন্ধুরা, যদি ক্ষুধার্ত হন, পকেটে পয়সা না-থাকে, দবাইরে থেকে বেল টিপে রেস্তরাঁর ভেতরে চলে আসুন। ফ্রি-মিল খান বা যে কোনও সময় কফিতে চুমুক দিন।

নিরামিশ চাইলে নিরামিশ, আমিষ পছন্দ হলে, আমিষ। এমনকী কারও কোনও খাবারে অ্যালার্জি থাকলে, খাবার পরিবেশনের আগে তা-ও জেনে নেওয়া হয়।

ভারতীয় এই রেস্তোরাঁ মালিক জানালেন, ২০০৯ সাল থেকে তিনি রেস্তোরাঁ চালাচ্ছেন। তবে, সামর্থ্যহীনদের নিখরচে খাওয়াচ্ছেন বিগত দু-বছর ধরে। বললেন, এক এক করে সবার কাছে গিয়ে তো আর জিগ্যেস করতে পারব না, খিদে পেয়েছে কি না? খাবার কিনে খাওয়ারমতো সামর্থ্য রয়েছে কি না। তাই উদ্যোগী হয়ে রেস্তোরাঁর বাইরে একটি নোটিশ ঝুলিয়েছি। এটুকু করতে পেরে খুশি পরকাশ। তবে, কখনোই মনে করেন না বিশাল কিছু করে ফেললেন। তাঁর কথায়, এটা আসলে আমার চলার পথেরই অঙ্গ। আমি জানি, পেটে খিদে নিয়ে বেঁচে থাকার যন্ত্রণা কী। তাই বাড়তি কিছু করছি না।

সূত্র: এই সময়

শীর্ষ সংবাদ:
করোনায় মারা গেলেন সিএমপি উপ-কমিশনার মিজানুর         এমপি পাপুলের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে দুদকে তলব         করোনার ভ্যাকসিনের সফল ট্রায়ালের দাবি রাশিয়ার         মেয়র উন-সুনের নাটকীয় মৃত্যুতে দুই ভাগে বিভক্ত দ. কোরিয়া         ‘করোনার ভয়াবহতা গোপন করেছিল চীন’         চীন সীমান্তে উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে অস্ত্র কিনছে ভারত         পূর্ণাঙ্গ তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করল ইরান         সিরিয়ার বিমান ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা প্রতিহত করল রাশিয়া         ক্রিমিয়ার আগেই ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক খারাপ ছিল ॥ পুতিন         ২৫ কিশোরীর জীবন যুদ্ধ নিয়ে যা বলবেন মালালা         আমেরিকার বিমানবাহী রণতরীতে আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি         মাঠে ফিরেই এমবাপে-নেইমারদের গোল উৎসব         জেকেজি প্রতারণার হোতা সাবরিনা গ্রেফতার         প্রধানমন্ত্রী ১ কোটি গাছের চারা রোপণ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন বৃহস্পতিবার         অনিয়ম, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে সরকার ॥ কাদের         আপীল বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম হবে ভার্চুয়াল         সভরেন ওয়েলথ ফান্ড ॥ বৈদেশিক রিজার্ভ থেকে ঋণ নেয়ার একমাত্র পথ         পালাতে পারবে না সাহেদ ধরা পড়তেই হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         করোনার প্রকোপ বাড়লে ভার্চুয়াল কোর্টের সাহায্য নিতেই হবে ॥ আইনমন্ত্রী         করোনায় ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে ॥ শামীম ওসমান        
//--BID Records