বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সবচেয়ে প্রাণঘাতী বিমান হামলায় ইয়েমেনে নিহত ৮০

ইয়েমেনের সৌদি আরব সংলগ্ন সীমান্ত এলাকায় ও রাজধানী সানায় সৌদি নেতৃত্বাধীন বিমান হামলায় অন্ততপক্ষে ৮০ জন নিহত হয়েছেন। খবর ওয়েবসাইটের।

দুই মাস ধরে চলা যুদ্ধে বুধবারের এই বোমা হামলায়ই একদিনে সবচেয়ে বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে ইরান সমর্থিত শিয়া হুতি বিদ্রোহীরা সানা দখলের পর ইয়েমেনের কেন্দ্রীয় ও দক্ষিণাঞ্চল দখলের লক্ষ্যে অভিযান শুরু করে। হুতিদের অগ্রগতিকে মধ্যপ্রাচ্যে শিয়া ইরানের প্রভাব বৃদ্ধির চেষ্টার অংশ হিসেবে বিবেচনা করে সুন্নি সৌদি আরব ও তার মিত্র আরব দেশগুলো। ‘ইরানী প্রচেষ্টাকে’ বাধা দিতে সানার ক্ষমতাচ্যুত সুন্নি প্রেসিডেন্ট আব্দ-রাব্বু মনসুর হাদির পক্ষ নেয় সৌদি জোট। ২৬ মার্চ ভোর থেকে ইয়েমেনে বিমান হামলা শুরু করে সৌদি নেতৃত্বধীন জোট বাহিনী। হাদিকে ক্ষমতা ফিরিয়ে দিতে হুতি ও তাদের মিত্র সেনাবাহিনীর অংশটির অবস্থান লক্ষ করে হামলা চালানো হচ্ছে বলে দাবি করে সৌদি জোট। বুধবার সৌদি সীমান্তের অপর পাশে ইয়েমেনের হাজ্জাহ প্রদেশের বাকিল আল-মিরে চালানো বিমান হামলায় অন্ততপক্ষে ৪০ জন নিহত হন। নিহতদের বেশিরভাগ বেসামরিক লোক বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এই এলাকাটিতে স্থানীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোর যোদ্ধারাও হুতিদের পক্ষ হয়ে সীমান্তে সৌদি স্থল বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েছে। সীমান্ত অঞ্চলের এ লড়াই যুদ্ধটিকে ক্রমেই বিদ্রোহী শিয়া মুসলিমদের সঙ্গে উপসাগরীয় সুন্নি আরব দেশগুলোর যুদ্ধে পরিণত করে তুলছে। স্থানীয় এক বাসিন্দা টেলিফোনে বলেছেন, “হুতি বিদ্রোহীরা এই এলাকা থেকে সৌদি সীমান্ত অবস্থানগুলো লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে, আর জোট বাহিনীর বিমানগুলো হুতিদের আঘাত করতে ব্যর্থ হয়ে বেসামরিকদের ওপর বোমা ফেলছে।” এর কয়েক ঘণ্টা পর সানায় হুতিদের মিত্র সেনাবাহিনীর বিশেষ বাহিনীর ঘাঁটি লক্ষ করে বোমা হামলা চালানো হয় বলে হুতি নিয়ন্ত্রিত বার্তা সংস্থা সাবা জানিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারাও একই কথা জানিয়েছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে         করের টাকাই দেশের উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি         সারা দেশে হাফ ভাড়া দাবিতে ৯দফা কর্মসূচি শিক্ষার্থীদের         বাংলাদেশকে ২০ লাখ টিকা দিলো ফ্রান্স         ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব         আরও একমাস বাড়লো আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুলের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক         ৬০ বছরের বেশি বয়সী নাগরিকদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১.৩৪         দিনে ময়লার গাড়ি চালানো যাবে না : মেয়র আতিক         আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন         দক্ষিণ সিটি’র আরেক গাড়িচালক বরখাস্ত         গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর ১ ডিসেম্বর থেকে         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         কেউ অপরাধ করে পার পাবে না ॥ সেতুমন্ত্রী