বৃহস্পতিবার ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ০৯ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

হাসিনা জীবনবাজি রেখে ফিরেছিলেন বলেই আজ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত

  • আ’লীগের আলোচনা সভা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ৩৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবন বাজি রেখে সেদিন দেশে ফিরে এসেছিলেন বলেই বাংলাদেশে আজ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, দেশ আজ জঙ্গীমুক্ত। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হচ্ছে। তারা বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের এই অগ্রযাত্রা কেউ রুখতে পারবে না।

শনিবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে সভায় সংসদ উপনেতা ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ও বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর আওয়ামী লীগ নেতারা যখন দিশেহারা তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরে দলের হাল ধরেন। তিনি ফিরে এসেছিলেন বলেই দেশে আজ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তোফায়েল আহমেদ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একটানা ৯২ দিন আন্দোলন সংগ্রামের নামে পেট্রোলবোমা মেরে নিরীহ মানুষকে হত্যা করেছে। কিন্তু মানুষ হত্যা করে তার ষড়যন্ত্র সফল হয়নি। তিনি বলেছিলেন, সরকারের পতন না ঘটা পর্যন্ত ঘরে ফিরবেন না। পরে আদালতে হাজিরা দিয়ে ঘরে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন। আগামীতেও খালেদা জিয়ার পরাজয় হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। কেউ বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে আটকাতে পারবে না। যত বাধাই আসুক শেখ হাসিনা এ দেশকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করবেন। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা এগিয়ে যেতে শুরু করেছি বলেই আন্তর্জাতিক বিশ্বের মানুষ বলতে শুরু করেছে- কে বলে বাংলাদেশ একটি তলাবিহীন ঝুড়ি? কে বলে বাংলাদেশ ঘূর্ণিঝড়-জলোচ্ছ্বাসের দেশ ছিল? কে বলে বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ? আজকে মানুষ বলে আগামী দিনে এই বিশ্বের বুকে একটি সমৃদ্ধ দেশ হবে বাংলাদেশ। শেখ হাসিনা সেই স্বপ্ন পূরণ করে চলছেন।

বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার উদ্দেশে বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, আপনি সিটি নির্বাচন বর্জন করলেন, কিন্তু আপনার দলের কমিশনাররা বিজয়ী হয়ে শপথ গ্রহণ করলেন। তাহলে আমরা কি বুঝব, আপনার দলের নেতারা আপনার কমান্ড মানেন না। ২০১৯ সালের নির্বাচনে বেগম খালেদা জিয়াকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আপনি বার বার ভুল করছেন বলেই আজ আপনার দলের এই অবস্থা। তাই আপনাকে বলি ২০১৯ সালের নির্বাচনের জন্য আপনি আপনার দল গোছান। আমরা কিন্তু আগামী নির্বাচনের জন্য কাজ শুরু করে দিয়েছি। আমরা ফাঁকা মাঠে গোল দিতে চাই না। আমরা সবাই চাই আগামী নির্বাচনের মাঠে আপনিও থাকুন।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২২শ' ছাড়ালো, নতুন আক্রান্ত ৩৩৬০         করোনায় আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর         পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন ॥ কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়         রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদের প্রধান সহযোগী গ্রেফতার         শিক্ষার্থীদের অটোপাসের খবর ‘গুজব ॥ শিক্ষা মন্ত্রণালয়         বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নরের চাকরির সময়সীমা বাড়িয়ে বিল পাস         দেড় শতাধিক বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে ইতালি         ক্রেডিট কার্ড ‘জালিয়াত চক্রের’ চারজন গ্রেফতার         মাস্ক দুর্নীতি ॥ মেডিটেকের পরিচালক হুমায়ুনকে জিজ্ঞাসাবাদ         ভারতে আবারও একদিনে ২৪ হাজারের বেশি সংক্রমণ         রিজেন্টের চেয়ারম্যান সাহেদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা         পল্টন থেকে ৩ মানবপাচারকারী আটক         আইভরি কোস্টের প্রধানমন্ত্রীকে ‘সিংহ’ বলে ডাকত সবাই         করোনা ॥ আগাম ১৫ লাখ কবর খুঁড়ে রাখছে দ. আফ্রিকা         সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা শক্তিশালী করবে ইরান         জেনারেল সোলাইমানি হত্যা ॥ বোল্টনের দাম্ভিক উক্তির জবাব দিল রাশিয়া         করোনায় হলেও দম্ভ যায়নি ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্টের!         চীনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র         বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটি ২০ লাখ         কাতারে আক্রান্ত লাখ ছাড়ালেও সুস্থই ৯৬ হাজারের বেশি        
//--BID Records