রবিবার ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ০৫ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাকস্বাধীনতা নিয়ে বিতর্ককালে ডেনমার্কে সন্ত্রাসী হামলা

ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেনের একটি ক্যাফেতে বাকস্বাধীনতা নিয়ে একটি বিতর্ক অনুষ্ঠান চলার সময় গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ইহুদিদের এক সিনাগগেও হামলার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার দিনে ও রাতে এ দুটি হামলায় দুই জন নিহত ও পাঁচজন আহত হয়েছেন। এসব হামলার জেরে রবিবার ডেনমার্কজুড়ে উচ্চ সকর্তাবস্থা জারি করা হয়েছে। দেশটিতে জঙ্গী সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা তৈরি হয়েছে। প্রকাশ্য দিবালোকে প্রথম হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। যে ক্যাফেতে হামলা চালানো হয়েছে সেখানে সুইডিশ চিত্রশিল্পী লার্স ভিল্কস উপস্থিত ছিলেন। মুসলমানদের নবী হযরত মুহম্মদকে (সাঃ) নিয়ে কার্টুন আঁকায়, আগে থেকেই হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছিল তাকে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ফরাসি রাষ্ট্রদূত বিতর্ক বৈঠকটিতে ভূমিকা বক্তব্য রাখার পরপরই ক্যাফের বাইরে ৪০টির মতো গুলির শব্দ হয়, এ সময় এক হামলাকারী ক্যাফের ভিতরেও গুলি করার চেষ্টা করেন। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের ধারণা প্রধান বক্তা ভিল্কসকে লক্ষ্য করেই হামলাটি চালানো হয়েছে। রবিবার সকালে পুলিশ জানিয়েছে, গুলিবর্ষণে ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী হেল থরিং স্মিথড বলেছেন, ‘আমরা এখন নিশ্চিত, এটি রাজনৈতিকভাবে প্ররোচিত হামলা, আর তাই এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা।’ পুলিশ জানিয়েছে, গুলিবর্ষণকারী একটি ভক্সওয়াগন গাড়িযোগে পালিয়েছে এবং তাকে ধরতে কোপেনহেগেনের রাস্তায় রাস্তায় সাঁজোয়া যান ও আকাশে হেলিকপ্টার টহল দিচ্ছে।

ক্যাফেতে হামলার কয়েক ঘণ্টা পর রাতে কোপেনহেগেন শহরের অন্য একটি এলাকায় ইহুদিদের একটি সিন্যাগগে গুলিবর্ষণ করা হয়। ওই ক্যাফে থেকে সিন্যাগগটিতে হাঁটা পথে যেতে আধা ঘণ্টার মতো সময় লাগে। এখানে এক ব্যক্তি মাথায় গুলিবিদ্ধ হন, পরে তার মৃত্যু হয়। এখানে গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাও আহত হয়েছেন। দুটি হামলাই একই ব্যক্তি বা ব্যক্তিরা চালিয়েছেন কিনা তা শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

-বিবিসি, নিউইয়র্ক টাইমস

শীর্ষ সংবাদ:
জামিন আবেদন নিষ্পত্তি এক লাখ ॥ ভার্চুয়াল কোর্টের ৩৫ কার্যদিবস         লকডাউন হলো ওয়ারী         ঈদের আগেই শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করুন ॥ কাদের         অনেক বিএনপি নেতা আইসোলেশনে থেকে প্রেসব্রিফিং করে সরকারের দোষ ধরেন ॥ তথ্যমন্ত্রী         পুলিশের বদলির তদবির কালচার বিদায় করতে চান বেনজীর         পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনা আক্রান্ত         অধস্তনদের ওপর দায় চাপিয়ে বাঁচার চেষ্টা নির্বাহীদের ॥ বিদ্যুতের অতিরিক্ত বিল         উত্তরে বন্যা পরিস্থিতির ফের অবনতি হাজার হাজার পরিবার পানিবন্দী         তিনদিনের রিমান্ড শেষে রবিন কারাগারে         বাচ্চাদের সাবান দিয়ে হাত ধুতে বলুন         অহর্নিশ যুদ্ধের জীবন, করোনার ভয় যেন বিলাসিতা!         এখন আকাশের সংযোগ মিলবে ৩৪৯৯ টাকায়         ৬ মাসে ১০৬ নৌ দুর্ঘটনায় নিহত ১৫৩         পাটকল শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা শোধ করা হবে ॥ কেসিসি মেয়র         ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করা যাবে : সুপ্রিম কোর্ট         ৬ মাসে ১০৬ নৌ দুর্ঘটনায়, ১৫৩ জন নিহত, আহত ৮৪         ভুতুড়ে বিলের ঘটনায় ডিপিডিসির ৫ জন বরখাস্ত         বাংলাদেশকে ৫ কোটি ডলার ঋণ দেবে দ. কোরিয়া         প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন কমিটি         রেলে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করা হবে না : রেলমন্ত্রী        
//--BID Records