ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মূলহোতা ইউপি চেয়ারম্যান

পাচারের সময় দেড় কোটি টাকার সুপারি জব্দ, গ্রেপ্তার ৩

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১২:১৯, ২৬ জানুয়ারি ২০২৪

পাচারের সময় দেড় কোটি টাকার সুপারি জব্দ, গ্রেপ্তার ৩

পিরোজপুর জেলা।

চোরাই পথে বাংলাদেশ থেকে ভারতে শুকনা সুপারি পাচার করার সময় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (২৪ জানুয়ারি) দিনগত রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ৩ জন হলেন- মো. হারুন হাওলাদার, মো. অলি হাওলাদার, মো. নূর নবী মাঝি। চক্রের মূলহোতা ও মামলার চার নম্বর আসামি মঠবাড়ীয়া উপজেলার ১নং তুষখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাজাহান হাওলাদারকে এখনও গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। 

এ ঘটনায় নেছারাবাদ (স্বরুপকাঠি) থানায় উপ-পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এতে মঠবাড়ীয়া উপজেলার ১নং তুষখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহ জাহান হাওলাদারসহ চারজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। মামলায় অজ্ঞাত আরও ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, নেছারাবাদের সন্ধ্যা নদীতে মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া ২টার সময় দুইটি ফিশিং বোটে করে চোরাই পথে সুপারি পাচার করা হচ্ছে- এমন খবর পেয়ে থানা পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের সিগন্যাল উপেক্ষা করে বোট দুইটি যেতে চাইলে তাদের ধাওয়া করে আটক করে পুলিশ। পরে দুইটি ফিশিং বোট থেকে ১০৮০ বস্তা সুকনা সুপারি উদ্ধার করা হয়। এসব সুপারি সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। জব্দকৃত সুপারির আনুমানিক মূল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা। 

গ্রেপ্তার তিনজন জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, চার নম্বর আসামি শাহ জাহান হাওলাদার দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন মালামাল কর ও শুল্ক ফাঁকি দিয়ে ভারতে পাচার করে আসছেন। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় পণ্যসামগ্রী পাচারের একাধিক মামলা রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সুপারি পাচার মামলার আসামি ইউপি চেয়ারম্যান শাহ জাহান হাওলাদার শুধু সুপারি নয়, নানা অবৈধ ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত। এছাড়া বিভিন্ন পণ্য রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নৌপথে ভারতে পাচার করেন তিনি। আর এসব পাচারকে কেন্দ্র করে গড়ে তুলেছেন বিশেষ সিন্ডিকেট।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নেছারবাদ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. নুর আমিন জাগো নিউজকে বলেন, সুপারি পাচারকালে আটক তিনজনকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। পলাতক ইউপি চেয়ারম্যানসহ মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

 এসআর

×