২৫ জানুয়ারী ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৬, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

নেতৃত্বের দুর্বলতায় বিএনপি ঝুঁকির মুখে

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯
  • ব্রিফিংয়ে কাদের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নেতৃত্বের দুর্বলতায় বিএনপি ঝুঁকির মুখে এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি এখন নেতৃত্ব সঙ্কটে আছে। কে কখন দল থেকে বিদায় নেবেন বলা যায় না।

সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যুতে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় শাজাহান খানের বক্তব্য, দলের সম্মেলন, চলমান রাজনীতিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বলেন মন্ত্রী। এর আগে তার দফতরে সাক্ষাত করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাস।

নেতৃত্বের দুর্বলতায় বিএনপি অস্বিত্বের মুখে

খালেদার জামিন বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, বিএনপির কে যে কখন কি বলেন তা বোঝা বড় কঠিন। এই মুহূর্তে নেতৃত্বের দুর্বলতাই তাদের অস্তিত্বকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছে বলে আমি মনে করি। তাদের নেতৃত্ব সঙ্কট আছে। নেতৃত্বই অস্তিত্ব ঝুঁকির মুখে পড়েছে। তাদের দুইজন নেতা বিদায় নিয়েছেন, কে যে কখন যায় বলা মুশকিল। তাদের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব চলছে, টানাপড়েন চলছে। খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন নিয়েও তাদের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব চলছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন নিয়ে কেউ বলছেন আন্দোলনের এখনও সময় হয়নি। তারা আসলে সিদ্ধান্তটা কী নেবে সেটা বলা মুশকিল। তারা এখন সবকিছুতে ব্যর্থ হয়ে আদালতের বিরুদ্ধে অঘোষিত যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। তাহলে কি তারা আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন, এটা আমার প্রশ্ন?

শ্রমিকদের খুশি রাখতে কিছু বলতে হয়

আওয়ামী লীগের সাবেক মন্ত্রী ও সড়ক পরিবহন শ্রমিক নেতা শাজাহান খানকে শ্রমিকদের খুশি রাখতে কিছু কথা বলতে হয় বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

গত রবিবার নারায়ণগঞ্জে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খান সড়কে দুর্ঘটনা ও সড়ক নিরাপত্তা আইন নিয়ে বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরেই অনেক কিছু হজম করেছি। এখন বদ হজম হয়ে গেছে। সেজন্য কিছু সত্য কথা বলতে হবে। তবে সত্য বললে সরকারের ঘাড়ে যাবে, নয়তো বিআরটিএর (বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ) ঘাড়ে যাবে।

দলে যারা ভাল করবে না দায়িত্বে পরিবর্তন আসবে

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দলে যারা ভাল করবে না, তাদের দায়িত্বে পরিবর্তন আনা হবে। তবে কাউকে বাদ দেয়া হবে না। সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের আসন্ন কাউন্সিল নিয়ে দলটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দলের সভাপতি পদে পরিবর্তনের কোন সম্ভাবনা নেই। নেত্রী তো বারবার বিদায় নিতে চেয়েছেন। তিনি যেতে চাইলেও তাকে যেতে দেয়া যায় না। সাধারণ সম্পাদক পদে নিজের দায়িত্ব সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী চাইলে দলের দায়িত্ব পালন করব। দায়িত্ব পালনে আমি কোন চাপের মুখে নেই। আমি শারীরিকভাবেও সুস্থ আছি।

একসঙ্গে দায়িত্ব পালনে সমস্যা নেই

একসঙ্গে মন্ত্রণালয় ও দল চালাচ্ছেন এতে আপনার কোন সমস্যা হয় না? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মন্ত্রণালয়ের কাজ একটা ট্র্যাকে চলে এসেছে। দলের কাজেও একটা গতি এসেছে। টিম তৈরি করেছি, তারা কাজ করছে। শুক্র ও শনিবার ছাড়া প্রতিদিনই আমি ফাইল সই করি। আমি বিমানবন্দরেও ফাইল সই করেছি। কাজেই একসঙ্গে দায়িত্ব পালনে আমি তো কোনও সঙ্কট অনুভব করছি না।

ব্যর্থ মন্ত্রীদের সরিয়ে দেয়া হবে

মন্ত্রিসভায় যারা ভাল করবে না তাদের দায়িত্বে পরিবর্তন আনা হবে। এছাড়া যারা নিজ নিজ কাজে ব্যর্থ হয়েছেন তাদেরও সরিয়ে দেয়া হবে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

১০/১২/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: