মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

এশিয়ার বাজার ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না

প্রকাশিত : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৩:৫২ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এই সপ্তাহে মার্কিন সুদের হার বাড়তে যাচ্ছে। অন্যদিকে তেলের দরপতন অব্যাহত রয়েছে। এ দুই বিষয়কে কেন্দ্র করে বিনিয়োগকারীদের মধ্য এখন উদ্বেগ বাড়ছে। ফলে এশিয়ার পুঁজিবাজার কিছুতেই ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না।

বিবিসির এক খবরে বলা হচ্ছে, সোমবার জাপানের বেঞ্চমার্কে নিক্কেই সূচক ১.৮ শতাংশ কমে ১৮ হাজার ৮৮৩.৪২ পয়েন্টে লেনদেন শেষ করে। ডলারের বিপরীতে ইয়েন শক্তিশালী হওয়ার কারণে এদিন লেনদেনের শুরুতেই সূচক ৩ শতাংশ পর্যন্ত পড়ে যায়। ইয়েন শক্তিশালী হলে সাধারণত রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর বাইরের পণ্য কেনা ব্যয়বহুল হয়। আর সে কারণে তাদের আর্থিক প্রতিবেদনে ধাক্কা লাগে। খবরে বলা হয়, এদিন অস্ট্রেলিয়ার বেঞ্চমার্কে এস অ্যান্ড/এএসএক্স ২০০ সূচক ২ শতাংশ কমে যায়। বাজারে জ্বালানি খাতের কোম্পানিগুলো সবচেয়ে নেতিবাচক প্রবণতার মধ্য দিয়ে অতিক্রম করায় সোমবার লেনদেন শেষ হয় ৪ হাজার ৯২৮.৬০ পয়েন্টে।

সকালের দিকে এদিন হংকংয়ের হ্যাং সেং সূচক ২.৫ শতাংশ পর্যন্ত পতনে যায়। তবে বিকেলের সেশনে তা কাটিয়ে মাত্র .৫ শতাংশ পতনে ২১ হাজার ৩৪৮.৮১ পয়েন্টে বাজার শেষ করে। সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ে সাংহাইভিত্তিক ফোশান গ্রুপের সাব সিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান ফোশান ইনটারন্যাশনালের। এদিন কোম্পানিটি ১০ শতাংশেরও বেশি শেয়ারদর হারায়। ফোশান ইনটারন্যাশনালের চেয়ারম্যান জুও গংচ্যান নিখোঁজ হওয়ার মধ্যেও গত শুক্রবার কোম্পানিটি হল্টেড হয়।

তবে সরকারি ছুটির দিনে ইতিবাচক অর্থনৈতিক প্রতিবেদন প্রকাশের কারণে চীনের আরেক সূচক সাংহাই কম্পোজিট এদিন ২.৫ শতাংশ বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে ৩ হাজার ৫২০ পয়েন্টে লেনদেন শেষ করে। দক্ষিণ কোরিয়ার কোসপি সূচক এদিন ১.০৭ শতাংশ পয়েন্ট হারিয়ে ১ হাজার ৯২৭.৮২ পয়েন্টে শেষ হয়।

প্রকাশিত : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৩:৫২ পি. এম.

১৪/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: