মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৮ আগস্ট ২০১৭, ৩ ভাদ্র ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

নেত্রকোনায় তোপের মুখে হিজড়াদের টাকা ফেরত

প্রকাশিত : ৮ জুলাই ২০১৫, ০৬:২৯ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা ॥ আন্দোলন করে নিজেদের ন্যায্য পাওনা আদায় করলেন নেত্রকোনার হিজড়া সম্প্রদায়। তাদের কড়া প্রতিবাদের মুখে অবশেষে জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপে প্রশিক্ষণের সম্মানী ভাতা ফেরত দিতে বাধ্য হলেন নেত্রকোনার সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ডিডি) আমিনুল ইসলাম।

জানা গেছে, হিজড়াদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও সমাজের মূল স্্েরাতধারায় একীভূত করার লক্ষ্যে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে গত ৪ এপ্রিল থেকে নেত্রকোনায় ৫০ দিনব্যাপী কম্পিউটার ও বিউটি পার্লার বিষয়ে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৩০জন হিজড়া অংশগ্রহণ করেন। গত ২৩ জুন সমাপনী অনুষ্ঠানে সনদপত্র ও ভাতা প্রদানের মধ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ শেষ হয়। ওই দিন প্রত্যেককে সাড়ে ৭ হাজার টাকা করে প্রশিক্ষণ ভাতা দিয়ে ১৫ হাজার টাকার মাস্টার রোলে স্বাক্ষর নেয়া হয়। এতে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দেয়। তারা এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক ড. তরুণ কান্তি শিকদারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের এবং প্রতিবাদ-বিক্ষোভ শুরু করেন। ফলে বিষয়টি জটিল আকার ধারণ করে।

বিরূপ পরিস্থিতির মুখে মঙ্গলবার বিকালে জেলা প্রশাসকের উপস্থিতিতে তার সম্মেলন কক্ষে হিজড়াদের ডেকে এনে প্রশিক্ষণের বাকি (অদেয়) ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম। এছাড়া ১০ জন সেরা প্রশিক্ষনার্থীর পুরস্কার বাবদ বাকি ১ লাখ টাকাও বৃহস্পতিবারের মধ্যে ফেরত দেয়ার সময় চেয়ে নেন তিনি। সাংবাদিকদের কাছে বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন জেলা প্রশাসক ড. তরুণ কান্তি শিকদার। তবে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের ডিডি আমিনুল ইসলাম মুঠোফোন রিসিভ না করায় তার মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

প্রকাশিত : ৮ জুলাই ২০১৫, ০৬:২৯ পি. এম.

০৮/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: