ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

আজ প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে মরিয়া ইংল্যান্ড

জিএম মোস্তফা

প্রকাশিত: ০১:২৯, ২৫ নভেম্বর ২০২২

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে মরিয়া ইংল্যান্ড

.

দাপুটে জয়ে কাতার বিশ্বকাপের মিশন শুরু করেছে ইংল্যান্ড। নিজেদের প্রথম ম্যাচে গ্যারেথ সাউথগেটের দল ৬-২ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছিল ইরানকে। সেই পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা দ্বিতীয় ম্যাচেও ধরে রাখতে চায় ১৯৬৬ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা। যেখানে আজ তাদের প্রতিপক্ষ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। প্রথম ম্যাচ থেকে ইংল্যান্ড পূর্ণ তিন পয়েন্ট লাভ করলেও ওয়েলসের সঙ্গে ড্র করে অভিযান শুরু করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। যে কারণে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয়েছিল তাদের। তাই ইংল্যালেন্ডর বিপক্ষে এই ম্যাচ যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। আল বাইত স্টেডিয়ামে রাত ১টায় একে অপরের মুখোমুখি হবে আমেরিকা-ইংল্যান্ড।
৫৬ বছর আগে সর্বশেষ বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছিল থ্রি-লায়ন্সরা। এরপর কেটে গেছে দীর্ঘ সময়। এই পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরেই আক্ষেপে পুড়েছে ইংল্যান্ডের ভক্ত-অনুরাগীরা। ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপেও দুর্দান্ত দল নিয়ে মিশন শুরু করেছিলেন গ্যারেথ সাউথগেট। কিন্তু সেমিফাইনালেই আটকে যায় তারা। শেষ চারের খেলার অভিজ্ঞতা লাভ করা ইংল্যান্ড ২০২০ ইউরোর ফাইনালেরও টিকিট নিশ্চিত করেছিল! কিন্তু দুর্ভাগ্য তাদের। এবার শিরোপার লড়াইয়ে ইতালির কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গের বেদনা নিয়ে বাড়ি ফিরেছিল স্টার্লিং-কেনরা। তবে ২০২২ বিশ্বকাপে দাপুটে সূচনা করে গ্যারেথ সাউথগেট জানিয়ে দিলেন যে এবারও হট ফেবারিট তার দল। যে কারণে আজ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষেও এগিয়ে থেকে মাঠে নামবে সাকা-রাশফোর্ডরা। তাছাড়া এই ম্যাচের আগে অতীত ইতিহাসও ইংলিশদের পক্ষে। ১৯৮২, ২০০৬ এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালেও প্রথম দুই ম্যাচের দুটিতেই জয়ের দেখা পেয়েছিল থ্রি-লায়ন্সরা। এবার চতুর্থবারের মতো বিশ^কাপের প্রথম দুই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে নক আউট পর্বের পথে এগিয়ে যেতে উন্মুখ হয়ে রয়েছে সাউথগেটের শিষ্যরা।
এদিকে ১৯৩০ সালে প্রথম বিশ্বকাপে প্রতিনিধিত্ব করা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবার নিয়ে ১১ বারের মতো অংশগ্রহণ করছে এই বিশ্বমঞ্চে। কিন্তু দুর্ভাগ্য তাদের। ২০১৮ বিশ্বকাপে খেলতে পারেনি তারা। তারপরও কাতার বিশ্বকাপে ফিরেই ওয়েলসের বিপক্ষে ড্র করে গ্রেগ বারহল্টারের দল। ওয়েলসের বিপক্ষে তাদের আক্রমণাত্মক পারফর্মেন্স ছিল প্রশংসনীয়।

টিমোথি উইয়াহর গোলে যুক্তরাষ্ট্র বিরতির ৯ মিনিট আগে লিডও নিয়েছিল। ৮১ মিনিট পর্যন্ত এগিয়ে থাকার পর জয়েরও স্বপ্ন বুনছিল আমেরিকান সমর্থকরা। কিন্তু রেফারির শেষ বাশি বাজানোর ৮ মিনিট আগে পেনাল্টি স্পট থেকে গোল করে ওয়েলসকে সমতায় ফেরান দলটির তারকা স্ট্রাইকার গ্যারেথ বেল। আর তাতেই কপাল পুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের। পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। প্রথম ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর ফলে বারহল্টারের সমালোচনা চলছে। কিন্তু ক্রিস্টাল প্যালেসের সাবেক এই ফুটবলার বিশ্বাস করেন এখনো নক আউট পর্বে যাওয়ার যোগ্যতা রয়েছে তাদের।
ইংল্যান্ড-যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত ১১ বার মুখোমুখি হয় একে অপরের। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে অনেক এগিয়ে থ্রি-লায়ন্সরা। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে আটটিতেই জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। এই সময়ে ইংল্যান্ড মোট ৩৯ বার জালে জড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। এবার ইরানের বিপক্ষে ৬ গোল করা ইংল্যান্ড আজও গোলউৎসব করতে মরিয়া। সেইসঙ্গে নিজেদের জয়ের সংখ্যাটাকে নিয়ে যেতে চায় ৯-এ। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ^কাপে এখন পর্যন্ত খেলা দুই ম্যাচের কোনটিতেই হারেনি যুক্তরাষ্ট্র। ২০১০ সালের ড্রয়ের আগে ১৯৫০ সালে গ্রুপ পর্বে ১-০ গোলে জয়ী হয়েছিল স্টার্স অ্যান্ড স্ট্রাইপসরা। তাই আল বাইত স্টেডিয়ামে আজ অতীত ইতিহাসেরই পুনরাবৃত্তি করতে মরিয়া বারহল্টারের শিষ্যরা।
যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে ইনজুরি শঙ্কায় ইংলিশ অধিনায়ক হ্যারি কেন। ইরানের বিপক্ষে রেকর্ড গড়া জেতা ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ইনজুরিতে পড়েছিলেন তিনি। যদিওবা তার চোট তেমন গুরুতর নয় বলে জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের অভিজ্ঞ গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড। চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে গোল্ডেনবুট জয়ী হ্যারি কেনের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি সে খুব ভালো আছে।

সম্ভবত কিছুটা ক্ষত হয়েছে কিন্তু এখন সে ভালো। সে আমাদের অবিশ্বাস্য খেলোয়াড়। আমাদের দলের দৃষ্টান্ত এবং সত্যিকারের অধিনায়ক। খেলোয়াড় হিসেবে সে মোটেও স্বার্থপর নয়।’ তবে প্রথম ম্যাচে যে দল নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন সেই দলেই ভরসা রাখছেন সাউথগেট। হ্যারি ম্যাগুয়েরও সুস্থ। কিয়েরান ট্রিপিয়ার, জন স্টোনস, লুক শ ম্যাগুয়ের সঙ্গে রক্ষণভাগ সামলাবেন। উরুর ইনজুরি কাটিয়ে দলের অনুশীলনে ফিরেছেন কাইল ওয়াকার। সেন্টার মিডফিল্ডে বেলিংহ্যাম, ডিক্লান রাইস ও ম্যাসন মাউন্টই থাকছেন। যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে ওয়েস্টন ম্যাককিনি ও ইউনুস মুসা উরু ও আঙ্গুলের ইনজুরি কাটিয়ে অধিনায়ক টাইলার অ্যাডামসের সঙ্গে মূল দলে জায়গা ধরে রাখার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। বারহল্টারের দলে ইংল্যান্ডে খেলা আটজনের মধ্যে অ্যাডামস অন্যতম। আর্সেনালের গোলরক্ষক ম্যাট টার্নারই খেলবেন মূল দলে। আক্রমণভাগে চেলসির ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচের সঙ্গে টিমোথি উইয়াহ ও নরউইচ সিটির জসুয়া সার্জেন্ট রয়েছেন।

 

monarchmart
monarchmart