ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে শেষ আটে হল্যান্ড

মোঃ মামুন রশীদ

প্রকাশিত: ০০:৪৮, ৪ ডিসেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে শেষ আটে হল্যান্ড

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গোলের উল্লাস হল্যান্ডের ফুটবলারদের

গত বিশ্বকাপে খেলার সুযোগই পায়নি ৩ আসরের রানার্সআপ হল্যান্ড। কিন্তু বিশ্বকাপে অন্যতম সেরা দলটি এবার কাতার বিশ্বকাপে ফিরে সবার আগে উঠে গেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। শনিবার রাতে দোহার আল রাইয়ানে খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে তারা ৩-১ গোলে হারিয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রকে। এদিনই দ্বিতীয় রাউন্ড শুরু হয়েছে চলতি বিশ্বকাপের। শেষ ষোলোর প্রথম ম্যাচে ‘এ’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হল্যান্ড ‘বি’ গ্রুপ রানার্সআপ যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখিতে হয়েছে সফল। ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে ফেরা আলোচিত কোচ লুইস ভ্যান গালের শিষ্যরা এবার অপরাজিত থেকেই দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠে। তবু আলোচনার বাইরে থাকা ডাচরা নীরবে নিভৃতেই সবার আগে নিশ্চিত করল শেষ আট। কোয়ার্টারে তাদের প্রতিপক্ষ হবে একই রাতে আর্জেন্টিনা-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে অন্য আরেকটি শেষ ষোলোর লড়াইয়ে বিজয়ী দল।
আগে মাত্র একবার আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে হল্যান্ড-যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৫ সালে হওয়া সেই আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ডাচদের ৪-৩ গোলে হারিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। তবে বিশ্বকাপ মঞ্চে শনিবারই প্রথম সাক্ষাৎ দুই দলের। সেটিও আবার নকআউট ম্যাচে। আগের সেই স্মৃতিটাকে মনে রেখেই হয়তো দাপটের সঙ্গে শুরু করে যুক্তরাষ্ট্র। তাছাড়া ‘বি’ গ্রুপ রানার্সআপ হলেও তারা অপরাজিত থেকেই দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার কারণে উজ্জীবিত।

৩ মিনিটের সময়ই দারুণ এক সুযোগ পেয়ে হাতছাড়া করে তারা। অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান পুলিসিচের শট ডাচ গোলরক্ষক আন্দ্রিয়েস নোপার্ট বাঁ পা এগিয়ে ঠেকান। বলের দখল বেশিরভাগ সময় যুক্তরাষ্ট্রের থাকলেও প্রথম সুযোগ পেয়েই লক্ষ্যভেদ করে ডাচরা। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মেমফিস ডিপাই শুরুর একাদশে ছিলেন। ফিটনেস সমস্যায় প্রথম দুই ম্যাচে বদলি হিসেবে খেলেন তিনি।

সেই ডিপাই ১০ মিনিটের সময় ডেনজেল ডামফ্রাইসের পাস থেকে বল পেয়ে বাম প্রান্ত থেকে লক্ষ্যভেদ করেন (১-০)। ২১ মিনিটের সময় আরেকটি সুযোগ পায় হল্যান্ড। এবার ভ্যান ডাইকের পাসে ডিপাই অবশ্য পোস্টে শট নিতে পারেননি। গোল পরিশোধের জন্য বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করলেও ফিনিশিংয়ের সমস্যায় তা পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ৪৩ মিনিটে প্রায় সমতায় এসে যাচ্ছিল তারা। কিন্তু টিমোথি উইয়াহর শট দারুণভাবে ঠেকিয়ে দেন নোপার্ট।

তবে দারুণ ফিনিশিং ডাচদের। গোল করার ক্ষমতায় এগিয়ে থেকে আরেকটি আক্রমণ থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা (২-০)। আবারও ডামফ্রাইসের পাস থেকে (৪৫+১) মিনিটের সময় গোল করেন ড্যালি ব্লাইন্ড। এর কিছুক্ষণ পরেই শেষ হয়ে যায় প্রথমার্ধ।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই গোল পরিশোধের প্রচেষ্টায় আক্রমণ চালাতে থাকে যুক্তরাষ্ট্র। ৫০ মিনিটে পুলিসিচের ক্রসে ওয়েস্টন ম্যাককেনির হেড ঠেকিয়ে দেন নোপার্ট, পরে ৫০তম ম্যাচ খেলতে নামা টিম রিম যে শট নেন তা গোললাইন থেকে ফিরিয়ে দেয় ডাচ ডিফেন্ডাররা। ৫১ মিনিটে গোল লাইন থেকে ফেরান মার্কিন ডিফেন্ডার জিমেরম্যান ও ৬১ মিনিটেও বেঁচে যায় যুক্তরাষ্ট্র। ৭২ মিনিটে গোলরক্ষক ম্যাট টার্নার দারুণ দক্ষতায় মার্কিনদের বাঁচিয়েছেন।

তবে ৭৬ মিনিটে ব্যবধান কমিয়েছেন হাজি রাইট। পুলিসিচের পাস থেকে শট নিয়ে তিনি লক্ষ্যভেদ করেন (২-১)। সমতায় ফেরার আশা তৈরি করলেও কাউন্টার অ্যাটাকে ব্লাইন্ডের কাছ থেকে বল পেয়ে ৮১ মিনিটে ডাচদের পক্ষে আবার গোল করেন ডামফ্রাইস (৩-১)। এই ব্যবধান আর কমাতে কিংবা সমতায় আনতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। ফলে বড় জয়েই শেষ আটে পা রাখে হল্যান্ড।

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart