ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

তৃতীয় দিনে লিড নিল বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ১১:২৫, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

তৃতীয় দিনে লিড নিল বাংলাদেশ

মুমিনুল হক ভেঙে দিল ক্যান উইলিয়ামসন ও গ্লেন ফিলিপসের জুটি

তৃতীয় দিন সকালে বাংলাদেশ যে লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমেছিল সেটা পূরণ হয়নি। নবম উইকেটে সাউদি-কাইল জেমিসন মিলে ঘণ্টা খানেকের বেশি প্রতিরোধ গড়ে তাদের হতাশ করেছেন। পঞ্চাশ ছাড়ানো এই জুটিতেই লিড পেয়েছে কিউই দল। ১০২তম ওভারে তার জোড়া আঘাতে ৩১৭ রানে শেষ হয়েছে নিউজিল্যান্ডের প্রথম ইনিংস। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ রানে লিড নিয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

প্রথমে মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ানো জেমিসন-সাউদি জুটি ভাঙেন মুমিনুল। প্রয়োজনের সময় এই বামহাতির স্পিন ভেলকি কাজে দিয়েছে আবার। লেগ বিফোরে তিনি জেমিসনকে সাজঘরে পাঠিয়েছেন। তাতে ভেঙেছে ৫২ রানের জুটি। জেমিসন ২৩ রানে আউট হয়েছেন। তিন বল বিরতি দিয়ে তার পর সাউদিকে বোল্ড করেছেন মুমিনুল। তাতে ৭ রানের লিড নিয়ে প্রথম ইনিংসে গুটিয়ে গেছে সফরকারীরা।     

গতকাল আলো ছড়ানো তাইজুল ইসলাম এদিন কোনও উইকেট পাননি। ১০৯ রানে মোট ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তবে মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো বোলিং করেছেন মুমিনুল হক। মাত্র ৩.৫ ওভারে ৪ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন। একটি করে নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসান।  

দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকালে তাইজুল ঝলকে তৃতীয় দিনে সুন্দর সকালের আশায় ছিল বাংলাদেশ। কিউইদের দ্রুত গুটিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনা জাগিয়ে লিড পাওয়ার আশায় ছিল। কিন্তু নবম উইকেটে কাইল জেমিসন-টিম সাউদি সেটি হতে দিলে তো! জুটি গড়ে উল্টো লিড নিয়েছে সফরকারী দল। সকালের সেশনে প্রায় ঘণ্টা খানেক বাংলাদেশকে হতাশ করে স্কোরবোর্ডে রান জমা করেছে এই জুটি।    

প্রথম দুই সেশন জুটি গড়ে খেললেও শেষ সেশনে বাংলাদেশের স্পিনে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ হারায় নিউজিল্যান্ড। জীবন পাওয়া কেন উইলিয়ামসনই মূলত কিউইদের টেনে নিচ্ছিলেন। তারপর শেষ বিকালে সেঞ্চুরি পাওয়া কেন উইলিয়ামসনের প্রতিরোধ ভেঙে মুহূর্তেই ইনিংসের গতিপথ বদলে দিয়েছেন তাইজুল। দ্বিতীয় দিনে ২৬৬ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে দ্রুত গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায় পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। 

বল হাতে ঝলক দেখানো তাইজুল ছিলেন দ্বিতীয় দিনের সেরা বোলার। বাহাতি স্পিনার ৮৯ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন। একটি করে উইকেট নিয়েছেন নাঈম হাসান, মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ ও শরিফুল ইসলাম।      

এসআর

×