ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

মনোনয়নের পর বীরের বেশে শেরপুরে ফিরলেন হুইপ আতিক

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর

প্রকাশিত: ১৭:২০, ২৮ নভেম্বর ২০২৩

মনোনয়নের পর বীরের বেশে শেরপুরে ফিরলেন হুইপ আতিক

ছাদখোলা গাড়িতে শেরপুরে ফিরছেন হুইপ আতিউর রহমান আতিক।

প্রতিপক্ষের নানা ষড়যন্ত্রের পর ষষ্ঠ দফায় দলীয় মনোনয়ন পাওয়া শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিককে বরণ করতে অপেক্ষায় ছিলেন দলীয় নেতা-কর্মীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) সকালে সড়কপথে রাজধানী ঢাকা থেকে শেরপুর শহীদ দারোগ আলী পৌর পার্কে পৌঁছার পর ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নিয়েছেন নেতাকর্মীরা। 

নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে হুইপ আতিক বলেন, বঙ্গবন্ধু তনয়া দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও শেরপুরবাসীর কাছ থেকে আমাকে বিচ্ছিন্ন করার ষড়যন্ত্র হয়েছিল। কিন্তু আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা নিয়ে আমি হতাশ ছিলাম না। আমার বিশ্বাস ছিল যতক্ষণ পর্যন্ত শেখ হাসিনা তার আসনে থাকবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত কোন ষড়যন্ত্রই আমাকে হেয় করতে পারবে না। অবশেষে তাই হয়েছে। 

শেখ হাসিনা আমার প্রতি তার আস্থা তুলে নেননি বলেই নানা ষড়যন্ত্র প্রত্যাখান করে টানা ষষ্ঠবারের মতো আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন। এজন্য তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দায়িত্বশীলদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, কারও প্রতি আমার হিংসা নেই। তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, আপনাদের দেওয়া ভালোবাসার কোন অবজ্ঞা করিনি। ক্ষমতার চেয়ারে লাগাইনি কোন কালির দাগ। 

সকলের সহযোগিতায় দীর্ঘ ২৫ বছর সেবা করার সুযোগে শেরপুরকে যখন এগিয়ে নিচ্ছিলাম, ঠিক সেই সময় আমাকে বিচ্ছিন্ন করার ষড়যন্ত্রে শেরপুরের মানুষের প্রাণের স্পন্দন থেমে গিয়েছিল। সবাই উৎকণ্ঠায় অপেক্ষায় ছিলেন। আজ সেই মাহেন্দ্রক্ষণ ফিরে এসেছে। আমি আপনাদের ভালোবাসায় সিক্ত। নির্বাচনেও অনেক ষড়যন্ত্র হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি শেরপুরের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত এবং অসম্পন্ন কাজগুলো বাস্তবায়নে দলীয় নেতা-কর্মীদের সজাগ ও ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান। 

হুইপ আতিক মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ময়মনসিংহ হয়ে সড়কপথে একটি ছাদখোলা গাড়িতে প্রথমে সদর উপজেলার প্রবেশপথ চিথলিয়া এলাকায় পৌঁছলে সেখানে অপেক্ষমাণ বিপুল সংখ্যক দলীয় নেতা-কর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ তাকে অভ্যর্থনায় গ্রহণ করেন। পরে তিনি কামারিয়া ইউনিয়নের বারঘরিয়া গ্রামের বাড়িস্থ পিতা মো. নছিম উদ্দিন ও মাতা মালেছা খাতুনের কবর জিয়ারত করেন। 

এরপর তিনি একইভাবে সড়ক পথে শহরের শহীদ দারোগ আলী পৌর পার্ক মাঠে স্থাপিত মঞ্চে পৌঁছেন। সেখানে জেলা-উপজেলা ও শহর আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন পেশাজীবী-স্বেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠনের তরফ থেকে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছায় অভিষিক্ত করা হয়। সেখানে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পাল পিপি। শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হাসান উৎপলের সঞ্চালনায় মঞ্চে হুইপ আতিকের পরিবারের সদস্যরাসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

এসআর

×