ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

কে বসছেন রাষ্ট্রপতির আসনে,বাড়লো অপেক্ষার প্রহর

সংসদ রিপোর্টার 

প্রকাশিত: ২১:৩৪, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩; আপডেট: ১১:০৫, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

কে বসছেন রাষ্ট্রপতির আসনে,বাড়লো অপেক্ষার প্রহর

বঙ্গভবন। ফাইল ফটো

রাষ্ট্রপতির আসনে কে বসছেন বা বঙ্গভবনের পরবর্তী বাসিন্দা কে হচ্ছেন- তা জানতে অপেক্ষার প্রহর বাড়লো। রাষ্ট্রপতি পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোয়ন চুড়ান্ত করতে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দায়িত্ব দিয়েছেন সংসদীয় দলের সদস্যরা। আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভা  থেকে তাঁকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার রাতে জাতীয় সংসদ ভবনের নবম তলাস্থ সরকারি দলের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় সংসদ সদস্যরা রাষ্ট্রপতি কে হবেন তা ঠিক করতে প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। সভা শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। 

বৈঠক সূত্র জানায়, সভায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব করেন। এরপর দলের সব সংসদ সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে শেখ হাসিনার ওপর দায়িত্ব দেওয়ার প্রস্তাবটি সমর্থন করেন। এর ফলে দেশের ২২তম রাষ্ট্রপ্রধান কে হচ্ছেন তা জানতে গোটা জাতিকে আরও কয়েকটি দিন অপেক্ষা করতে হবে। 

আগামী ২৪ এপ্রিল দ্বিতীয় মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের। পরপর দুই মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হয়েছেন তিনি। দেশের সংবিধান অনুযায়ী, তার আর রাষ্ট্রপতি হওয়ার সুযোগ নেই। সে কারণে নতুন কাউকে দেখা যাবে তাঁর জায়গায়। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী, বর্তমান রাষ্ট্রপতির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ৯০ থেকে ৬০ দিনের মধ্যে নতুন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন শেষ করতে হবে। সে হিসেবে, নির্বাচন কমিশন তফসিলও ঘোষণা করেছে।

তফসিল অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি পদে ভোট গ্রহণ করা হবে ১৯ ফেব্রæয়ারি। এখানে ভোটার খোদ সংসদ সদস্যরা। আগ্রহী প্রার্থীরা ১২ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। ১৩ ফেব্রুয়ারি যাচাই-বাছাইয়ের পর ১৪ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে।

নিয়ম অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি পদে রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় এবং সংসদ সদস্যদের ভোটে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। সংবিধানের ৪৮(১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশের একজন রাষ্ট্রপতি থাকিবেন, যিনি আইন অনুযায়ী সংসদ-সদস্যগণ কর্তৃক নির্বাচিত হইবেন।’

যেহেতু জাতীয় সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ, তাই ধরে নেওয়া হয়, তারা যাকেই এ পদে প্রার্থী করবে, সে প্রার্থীই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হবেন। আনুষ্ঠানিকতা শেষে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীই হবেন দেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি।

 

এসআর

সম্পর্কিত বিষয়:

×