ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১

সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটের বাংলা সংস্করণ উদ্বোধন

ভাষার মাসের প্রথম দিন আদালতের সব আদেশ বাংলায়

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:০৫, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ভাষার মাসের প্রথম দিন আদালতের সব আদেশ বাংলায়

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ভাষা আন্দোলনের মাস ফেব্রুয়ারির প্রথম দিনে সব আদেশ বাংলায়

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ভাষা আন্দোলনের মাস ফেব্রুয়ারির প্রথম দিনে সব আদেশ বাংলায় দিয়েছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। একই সঙ্গে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে ভাষার মাসের প্রথম দিনে হাইকোর্টের কয়েকটি বেঞ্চ বাংলায় রায় প্রদান করেছেন। অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটের বাংলা সংস্করণের উদ্বোধন করেছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।
এ বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন জনকণ্ঠকে বলেন, বিষয়টি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এসব রায় ও আদেশ বিচারপ্রার্থীদের কাজে লাগবে। বিচারপ্রার্থীরা অনেকেই ইংরেজি বোঝে না। বাংলায় রায় ও আদেশ দেয়া হলে তারা বুঝবে। আমি আশা করি এ ধারা অব্যাহত থাকবে। বুধবার চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম সব আদেশ বাংলায় ঘোষণা করেন। আদালতে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম বলেন, ভাষা শহীদদের সম্মানে বুধবার সব আদেশ বাংলায় দিচ্ছি।

আদালত থেকে জানানো হয়, এখন থেকে চেম্বার আদালতের অধিকাংশ আদেশ বাংলায় ঘোষণা করা হবে। বুধবার মোট ১৬০টি আদেশ বাংলায় প্রদান করা হয়েছে।  এর আগে, ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের দ্বৈত বেঞ্চ ১ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) একটা  ফৌজদারি রিভিশন মামলায় রুল চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে  বাংলায় রায় ও আদেশ দিলেন। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার বললেন, ‘১৩ বছরের বিচারিক জীবনে প্রথম বাংলায় রায় দিলাম এবং  বাংলায় এই রায় দিতে পেরে গর্ববোধ হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন যে, ভাষার মাসে আরও বাংলায় রায় দেব। 
সকালে ভাষা শহীদদের সম্মানে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ কার্যতালিকায় থাকা ১২ নম্বর রিট মামলার রায় বাংলায় ঘোষণা করেন। এছাড়া বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ, বিচারপতি আবু তাহের সাইফুর রহমান ও বিচারপতি এ কে এম রবিউল হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ, একটি করে মামলার রায় বাংলায় ঘোষণা করেন। পাশাপাশি বিচারপতি জাকির হোসেন অর্ধশতাধিক মোশন, আদেশ  বাংলায় প্রদান করেছেন। 
ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে ভাষার মাসের প্রথম দিনে একটি মামলার রায় বাংলাতে দিয়েছেন হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ। মো. আক্কাস আলী বনাম বাংলাদেশ’ মামলার রায় বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার বাংলায় ঘোষণা করেন।
অর্পিত সম্পত্তি সংক্রান্ত এ রিট মামলাটির রায় দেওয়ার আগে বিচারপতি নাইমা হায়দার বলেন, ভাষার মাস বুধবার থেকে শুরু। ভাষা শহীদের আত্মার প্রতি সম্মান জানিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রতি সম্মান জানিয়ে আজকের ১ ফেব্রুয়ারি প্রথম রায়টি বাংলায় ঘোষণা করছি। বিশ্বের সমস্ত বাংলা ভাষাভাষীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলায় এ রায় ঘোষণা করছি।
উল্লেখ্য, এক দশক আগেও উচ্চ আদালতে বাংলায় দেওয়া রায় ও আদেশের সংখ্যা ছিল হাতেগোনা। কিন্তু বর্তমানে দেশে নিম্ন আদালতে বেশিরভাগ রায় ও আদেশ বাংলায় দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি উচ্চ আদালতে অনেক বিচারপতি বাংলায় রায় লিখছেন। 
১৩ বছরের বিচারিক জীবনে প্রথম বাংলায় রায় দিলাম ॥ ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের দ্বৈত বেঞ্চ বুধবার একটা  ফৌজদারি রিভিশন মামলায় রুল চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে  বাংলায় রায় ও আদেশ দিলেন। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার বললেন, ‘১৩ বছরের বিচারিক জীবনে প্রথম বাংলায় রায় দিলাম এবং  বাংলায় এই রায় দিতে পেরে গর্ববোধ হচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন যে, ভাষার মাসে আরও বাংলায় রায় দেব। 
বুধবার রিভিশন আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ মজনু মোল্লা ও মো. রুহুল আমিন; রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আন্না খানম কলি ও মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সিদ্দিকী, দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শাহীন আহমেদ। 
ভাষা শহীদের আত্মার প্রতি সম্মান জানিয়ে রায়টি ঘোষণা করছি ॥ ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে ভাষার মাসের প্রথম দিনে একটি মামলার রায় বাংলাতে দিয়েছেন হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ। ‘মো. আক্কাস আলী বনাম বাংলাদেশ’ মামলার রায় বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার বাংলায় ঘোষণা করেন। আদালতে এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশ গুপ্ত।

রিটের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. শরিফুল ইসলাম। বিচারপতি নাইমা হায়দার বলেন, বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি। ভাষার মাস বুধবার থেকে শুরু। ভাষা শহীদের আত্মার প্রতি সম্মান জানিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রতি সম্মান জানিয়ে আজকের প্রথম রায়টি বাংলায় ঘোষণা করছি। বিশ্বের সমস্ত বাংলা ভাষাভাষীদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বাংলায় এ রায় ঘোষণা করছি।
রিট মামলাটি হাইকোর্টের কার্যতালিকায় ১২তম ছিল। আইনজীবী শরিফুল ইসলাম বলেন, আমাদের মামলাটি অর্পিত সম্পত্তি সংক্রান্ত  মামলা। আদালত এর রুল নিষ্পত্তি করে অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালে পাঠিয়ে দিয়েছেন। আদালত বাংলায় দেওয়া রায়ে বলেন, আলোচনা ও আইনজীবীর যুক্তিতর্ক পর্যালোচনান্তে আমরা অত্র মোকদ্দমার গুণাগুণ পর্যালোচনায় প্রবেশ না করে রুলটি নিম্নলিখিত নির্দেশনাসহ নিষ্পত্তি করতে সম্মত হই।

×