ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

স্থপতি ইমতিয়াজ হত্যাকাণ্ডে ৩ জনকে গ্রেপ্তার 

প্রকাশিত: ১৫:৩৭, ২৭ মার্চ ২০২৩

স্থপতি ইমতিয়াজ হত্যাকাণ্ডে ৩ জনকে গ্রেপ্তার 

স্থপতি ইমতিয়াজ মোহাম্মদ ভূঁইয়া

রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় স্থপতি ইমতিয়াজ মোহাম্মদ ভূঁইয়াকে (৪৭) হত্যার ঘটনায় জড়িত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার সিরাজগঞ্জ, মানিকগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সোমবার (২৭ মার্চ) ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার গোলাম সবুর গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানান।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মেঘ আনোয়ার, মুন্না ও অভি। তাদের দেওয়া তথ্যে নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার একটি গ্যারেজ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি গাড়ি জব্দ করা হয়।

গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, ইমতিয়াজ ঢাকার তেজগাঁও থানা এলাকার মোহাম্মদ হোসেন ভূঁইয়ার ছেলে। তিনি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও বাড়ির নকশার কাজ করতেন। গত ৭ মার্চ বাড়ি থেকে বের হয়ে তিনি নিখোঁজ হন। পরদিন গত ৮ মার্চ তার স্ত্রী ফাহামিদা আক্তার কলাবাগান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। তার পরদিন মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানের একটি ঝোপের ভেতর থেকে ইমতিয়াজের লাশ উদ্ধার হয়।

লাশ উদ্ধারের ১০ দিন পরও পরিবার ইমতিয়াজের মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেনি। পরে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে ইমতিয়াজ নিখোঁজের বিষয়ে প্রতিবেদন সম্প্রচারিত হলে পরিবার জানতে পারে, ইমতিয়াজ খুন হয়েছেন। পরে আদালতের অনুমতিতে ওই লাশ উদ্ধার করে শনাক্ত করেছেন ইমতিয়াজের স্বজনেরা।

ডিবি জানায়, একটি অ্যাপের মাধ্যমে চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন ব্যক্তিকে ফাঁদে ফেলে বাসায় ডেকে নিতেন। পরে আপত্তিকর অবস্থান ভিডিও, ছবি রেকর্ড করে ওই ব্যক্তির কাছে টাকা  আদায়ের চেষ্টা করতেন। ভুক্তভোগীরা সামাজিক অবস্থানের কারণে কখনোই  এ বিষয়ে মুখ খুলতেন না। চাঁদাবাজি ও  মুক্তিপণের টাকা জমা হতো চক্রের সদস্য আরাফাতের মায়ের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে।

এমএইচ

×