ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

৬০০ নারীদের নিয়ে ‘পশিয়ান কনফারেন্স’

প্রকাশিত: ১৭:১৪, ২৬ নভেম্বর ২০২২

৬০০ নারীদের নিয়ে ‘পশিয়ান কনফারেন্স’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

জনপ্রিয় নারী সংগঠন পপ অফ কালার-এর উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছে ‘সেনোরা প্রেজেন্টস পশিয়ান কনফারেন্স ২০২২’। রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে গত শুক্রবার দিনব্যাপী এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এই সম্মেলনে বিভিন্ন খাতের ৬ শতাধিক নারী অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর বিকর্ণ কুমার ঘোষ, দেশের প্রথম নারী মেজর জেনারেল সুসানে গীতি, বাংলাদেশ পুলিশের ডিআইজি ফরিদা ইয়াসমিনসহ বিভিন্ন সেক্টরের খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব।

কনফারেন্সে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর ৭টি সেশন অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য, মেন্টাল হেলথ, সাইবার সিকিউরিটি, ওমেন সেক্সুয়াল হেলথ, নিউট্রিশন, উদ্যম ও স্পৃহা, ক্যারিয়ার নিয়ে বক্তারা আলোচনা করেন। 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড. বিকর্ন কুমার ঘোষ বলেন, আমরা আজকে যে নারীর অগ্রযাত্রা দেখছি তার মূল অবদান সরকারের। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন নারীদের বেশি সুযোগ-সুবিধা দিয়ে সামনে এগিয়ে নেওয়ার জন্য। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, প্রত্যেক নারীকে কর্মসংস্থানের সুযোগ দিতে হবে। আড়াই লাখ তরুণীকে আইসিটি বিভাগ থেকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তাদের জন্য স্বল্পমূল্যে ল্যাপটপ দেওয়া হচ্ছে। আমরা ১ হাজার নারী উদ্যোক্তাকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দিয়েছি। এটি প্রতিবছর চলতে থাকবে। শি পাওয়ার এবং হার পাওয়ার প্রকল্পের মাধ্যমে দশ হাজার নারীর উদ্যোগটা তৈরি করা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে দেশে ১০০টি হাইটেক পার্ক তৈরি করা হবে। নারীদের যেকোনো ট্রেনিং দেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত নারীদের বলতে চাই, আপনারা একেক জন লিডার। আপনারা আপনাদের আশপাশের নারীদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যান। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা উচ্চ আয়ের দেশ গড়ার লক্ষে এগিয়ে যাচ্ছি, যার অগ্রগামী ভূমিকা পালন করবেন নারীরা। 

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, দেশে নারীদের এগিয়ে নিতে কাজ করছি প্রধানমন্ত্রীসহ আমরা সবাই। এখন পুরুষের সাথে সাথে নারীরাও এগিয়ে যাচ্ছে। সামনের দিকে নারীদের এই শক্তি আরও বৃদ্ধি পাবে।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে বিভিন্ন খাতে সফল নারীদের সম্মাননা দেয় পপ অফ কালার। ১০টি খাতে ১০ জন উদ্যমী নারীদের এই সম্মাননা দেওয়া হয়। বিজয়ীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এবং পপ অফ কালার-এর প্রতিষ্ঠাতা টিঙ্কার জান্নাত মিম। আবৃতি ও সঙ্গীত পরিবেশনার মাধ্যমে সন্ধ্যায় শেষ হয় দিনব্যাপী এই আয়োজন।

monarchmart
monarchmart