ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

লোকসভার সাংসদ পদ হারালেন রাহুল গান্ধী

প্রকাশিত: ১৬:৩৯, ২৪ মার্চ ২০২৩

লোকসভার সাংসদ পদ হারালেন রাহুল গান্ধী

রাহুল গান্ধী

সাংসদপদ খারিজ করা হলো কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর। শুক্রবার (২৪ মার্চ) লোকসভার সচিবালয় এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, রাহুল গান্ধীর সাংসদপদ খারিজ করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার গুজরাটের আদালতের পক্ষ থেকে রাহুলকে দুই বছরের সাজা শোনানো হয়েছিল। এদিন সকালে গুজরাটের সুরাট জেলার দায়রা আদালত কংগ্রেস সাংসদকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মানহানির মামলায়। এই মামলায় রাহুল গান্ধীকে দু'বছরের কারাদণ্ড এবং ১৫ হাজার টাকার জরিমানার সাজা শুনিয়েছে আদালত। 

তবে আপাতত এক মাসের জন্য রাহুলকে জামিন দেওয়া হয়েছে। যাতে তিনি উচ্চ আদালতে এই নির্দেশের বিরুদ্ধে আবেদন জানাতে পারেন। এই পরিস্থিতিতে রাহুল গান্ধীর সাংসদপদ নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। আজ সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করল লোকসভার সচিবালয়।

আইন অনুযায়ী, কোনও জনপ্রতিনিধি যদি দুই বা তার অধিক বছরের জন্য কারাদণ্ডের সাজায় দণ্ডিত হন, তৎক্ষণাত তার পদ খারিজ হবে। এই আবহে রাহুল গান্ধীর সাংসদপদ খারিজ হয়।

রাহুলের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মানহানির মামলা করেছিলেন গুজরাটের সাবেক মন্ত্রী তথা বিজেপি বিধায়ক পূর্ণেন্দু মোদী। 

মামলাকারীর অভিযোগ ছিল, গোটা মোদী সম্প্রদায়কে অপমান করেছেন রাহুল। ভারতীয় দণবিধির ৪৯৯ এবং ৫০০ ধারায় রাহুলের বিরুদ্ধে মামলা হয়। আদালত জানায়, রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তবে কারাদণ্ডের সাজার পরই রাহুল জামিন পেয়ে যান। অবশ্য, আইন মেনে আজ সদস্যদ খারিজ হল রাহুলের।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের সময় এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ শানিয়ে রাহুল বলেছিলেন, 'সব মোদীরা কেন চোর হয়?' তিনি নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে, নীরব মোদী, ললিত মোদীকে বোঝাতে এই মন্তব্য করেছিলেন। এতে 'মোদী' পদবীর সকলের অপমান হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। 

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

এসআর

×