ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

ডিভোর্স চাওয়ায় স্বামীর গায়ে ফুটন্ত পানি ঢাললেন স্ত্রী

প্রকাশিত: ১২:২৬, ১ জুন ২০২৩

ডিভোর্স চাওয়ায় স্বামীর গায়ে ফুটন্ত পানি ঢাললেন স্ত্রী

ফুটন্ত গরম পানি।

তিক্ত হয়ে উঠেছিল সম্পর্ক। কঠিন হয়ে উঠছিল একসঙ্গে ঘর করা। ফলে বিচ্ছেদ চেয়েছিলেন স্বামী। তাতেই রাগে স্বামীর গায়ে গরম পানি ঢেলে দেন স্ত্রী। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে ওই যুবক ১৬ দিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। পরে এ ঘটনার মামলায় ওই তরুণীকে ৮ মাসের জেল দেন আদালত। সিঙ্গাপুরের এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে যায়।

২০১৯ সালে ২৯ বছরের রাহিমা নিসভার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল ২৪ বছরের শামির আহমেদ সাফুয়ানের। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই সংসারে অশান্তি শুরু হয়। 

শামিরের দাবি, ২০২২-এর ডিসেম্বরেই স্ত্রীর অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে বিচ্ছেদের কথা ভাবেন তিনি। এর মধ্যে গত জানুয়ারিতে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন রাহিমা। এরপর থেকে বাপের বাড়িতেই ছিলেন। গত ১৯ মার্চ সেখানে গিয়ে বিচ্ছেদের ইচ্ছে প্রকাশ করেন শামির। সেই সময় কোনো প্রতিক্রিয়া না দিলেও স্বামীর উপর ক্ষেপে যান রাহিমা। রাগে ফুঁসে বদলার পরিকল্পনা করেন।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, গত ২২ মার্চ একটি বড় ফ্লাস্কে ফুটন্ত গরম পানি ভরে শামিরের বাড়ির সামনে সামনে অপেক্ষা করছিলেন রাহিমা। সকালে স্বামী সিঁড়ি বেয়ে বাইরে আসতেই তাকে লক্ষ্য করে গরম পানি ছুঁড়ে দেন স্ত্রী। মুখ ঘুরিয়ে নিলেও ফুটন্ত পানি ছিটকে পড়ে শামিরের পিঠে। গরুতর জখম হন তিনি। সেসময় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১৬ দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। 

অন্যদিকে, আত্মগোপনে যান স্ত্রী রাহিমা। এ ঘটনায় যুবকের অভিযোগের ভিত্তিতে আদালতে মামলা ওঠে। আর তাতেই গত মঙ্গলবার ওই তরুণীকে ৮ মাসের জেল দেয় সিঙ্গাপুরের আদলত।

এমএইচ

×