ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

জাপানের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান  

প্রকাশিত: ২২:১০, ২৯ নভেম্বর ২০২২

জাপানের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান  

জাপান-বাংলাদেশ

জাপানের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে উন্নয়নের অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসির) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) জাপানের এএনএ ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে ‘ইনভেস্টমেন্ট ফ্ল্যাশ মব’ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিএসইসি এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশের বেশ সাফল্য রয়েছে। নিরাপদ বিনিয়োগের জন্য এদেশের সম্ভাবনা অনেক। বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের রিটার্ন, মার্কেট ক্যাপিটালাইজেশন এবং বিগত ১২ বছরে ক্যাপিটাল রাইজিং বেড়েছে। তাই বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ এবং অশেষ সম্ভাবনা রয়েছে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের জিডিপি এবং মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। তুলনামূলকভাবে অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশে মূল্যস্ফীতি এখনো কম। আমাদের রেমিট্যান্স আয়ও বাড়ছে। এখনো বাংলাদেশের অর্থনীতি যথেষ্ট ভালো অবস্থানে আছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি খুবই ভালো। জাপানের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বও চমৎকার। ২০২০ সালে বাংলাদেশ থেকে জাপানে ১ দশমিক ৩১ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান আরও বলেন, সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাপান সফর করেন। এরপরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিন পাঁচবার জাপান ভ্রমণ করেন। জাপানের সঙ্গে বাংলাদেশের খুবই ভালো অবস্থানে রয়েছে। ইতোমধ্যে দেশের অবকাঠামো খাতে জাপানি বিনিয়োগকারীরা যুক্ত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান বলেন, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং বিনিয়োগ সম্ভাবনাকে সঠিকভাবে তুলে ধরতে হেব। জাপান বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেওয়া প্রথম দেশগুলোর একটি। 

তাই বাংলাদেশ ও জাপানের সম্পর্ক এক বিশেষ সম্পর্ক, ভ্রাতৃত্বের সম্পর্ক। জাপানের বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে নিজের দেশের মত অনুভূতি পান। এখানে তারা কোন ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হন না ও নির্বিঘ্নে কাজ করতে পারেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে পররাষ্ট্র সচিব ড. মাসুদ বিন মোমেন ও জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমেদ, বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া, বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদসহ জাপান এবং বাংলাদেশের বিনিয়োগকারী, শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

এমএস

×