ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

জাতীয়

বিআরটিএ অভিযান চালিয়ে গাড়ি থেকে খুলে নেওয়া হচ্ছে শব্দদূষণকারী হর্ন

প্রকাশিত: ১৭:২১, ১৭ মে ২০২২

বিআরটিএ অভিযান চালিয়ে গাড়ি থেকে খুলে নেওয়া হচ্ছে শব্দদূষণকারী হর্ন

অনলাইন ডেস্ক ॥ রাজধানীতে অতিরিক্ত শব্দের হর্ন নিয়ন্ত্রণ করতে গুলশান-১ চত্বরে অভিযান চালিয়েছে বিআরটিএ ও পরিবেশ অধিদপ্তর। এসময় বেশ কিছু গাড়ি থেকে হর্ন খুলে রাখা হয়। মঙ্গলবার (১৭ মে) বেলা ১১টা থেকে গুলশান-১ চত্বরে শুব্দ দূষণকারী অতিরিক্ত শব্দের হর্ন নিয়ন্ত্রণে অভিযান শুরু করে বিআরটিএ ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে একটি প্রাইভেট কারকে আটক করে ট্রাফিক। পরে সেটির হর্ন পরীক্ষা করা হয়। প্রাইভেটকারটি বেশ পুরোনো হলেও ‘মোডিফাই’ করে বসানো হয়েছে হাইড্রোলিক হর্ন। পরীক্ষা করে দেখা যায়, প্রাইভেটকারটিতে ১০২ ডেসিবেল শব্দ ধরা পড়ে। অথচ রাজধানীতে সর্বোচ্চ ৮০ ডেসিবেল শব্দের হর্ন বাজানোর বৈধতা দেওয়া আছে। এসময় গাড়িতে বসে থাকা এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক ছেলের স্কুলের সময় হয়েছে জানিয়ে ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করেন। পরে তাকে জরিমানা না করা হলেও একটি অতিরিক্ত হর্ন খুলে রেখে গাড়ি ছেড়ে দেওয়া হয়। অভিযানে অংশ নেওয়া বিআরটিএ’র এক কর্মকর্তা জানান, এদিন মোট ৮টি গাড়িতে ব্যবহৃত অতিরিক্ত শব্দের হর্ন খুলে রাখা হয়। অভিযানের সময় ‘অযথা হর্ন বাজাবেন না’-সহ বিভিন্ন স্লোগানের ব্যানার ফেস্টুনসহ রাস্তায় অবস্থান নেন রোভার স্কাউটের কর্মীরা। অভিযান প্রসঙ্গে বিআরটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এম সাজ্জাদুল হাসান বলেন, এটা বিআরটিএ’র নিয়মিত অভিযান। আজকে পরিবেশ অধিদপ্তরের সঙ্গে আমরাও যৌথ অভিযানে অংশ নিয়েছি। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, বিআরটিএ আইন- ২০১৮ ও পরিবেশ আইনের শব্দদূষণ বিধিমালা-২০০৬ অনুযায়ী বিভিন্ন অর্থ জরিমানা করা হয়েছে। আরটিএ’র পক্ষ থেকে অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এম সাজ্জাদুল হাসান। অন্যদিকে পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাঈদা পারভিন।