রবিবার ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৯ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কৃষিপণ্যের ট্রাকে চাঁদাবাজি নিয়ে স্টাডি করা হবে ॥ কৃষিমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ঢাকাগামী কৃষিপণ্যবাহী ট্রাকের চাঁদা দেয়া নিয়ে সরকারের একটি স্টাডি করার কথা জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক।

বুধবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় অধিবেশন শেষে কৃষিমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত ও ভোক্তাকে সঠিক দামে কৃষিপণ্য দিতে এই উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

এই স্টাডির মধ্যমে কৃষিপণ্য পরিবহনের ট্রাকগুলোকে পথে কত টাকা চাঁদা দিতে হয়, তা বের করা হবে। পরে এই চাঁদাবাজি বন্ধে সরকার পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান কৃষিমন্ত্রী।

কৃষি মন্ত্রণালয় ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে জেলা প্রশাসকদের এ কার্য অধিবেশন হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এতে সভাপতিত্ব করেন। অধিবেশনের বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘শুরুতে আমরা যেটা বলেছি, বাংলাদেশ খাদ্য ঘাটতির দেশ ছিল, যদিও আমাদের জমি ও জলবায়ু উৎপাদনের জন্য খুবই উপযোগী। দুঃখজনকভাবে আমরা আধুনিক কৃষিতে যেতে পারিনি। বিজ্ঞানভিত্তিক কৃষিতে যেতে পারিনি বলে আমাদের খাদ্য ঘাটতি ছিল। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে অনেকগুলো কর্মসূচী নিয়েছে, কৃষককে বিভিন্ন কৃষি উৎপাদনে প্রণোদনা দেয়ার জন্য। এতে উৎপাদন বেড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এখন বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জ হলো- কৃষিপণ্য বিক্রি করে কিভাবে চাষীরা লাভ করতে পারে, আয় বাড়াতে পারে, জীবনযাত্রার মান বাড়াতে পারে। সব স্টাডিতে এসেছে, কৃষির উন্নয়ন অর্থনীতির অন্যান্য ক্ষেত্রের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে। সেজন্য কৃষিপণ্যের বাজার নিশ্চিত করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সে বিষয়ে আজকে আমরা আলোচনা করেছি। আন্তর্জাতিক বাজারে যেতে হলে আন্তর্জাতিক বাজারের শর্তগুলোর পূরণ করতে হবে। পুষ্টিকর খাদ্য উৎপাদন করতে হবে। স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এমন কোন খাবার দেয়া যাবে না। গুড এক্সিকালচার প্র্যাকটিস (জিএপি) নিয়ে আমরা এখন কাজ করছি। ডিসিরা বলেছেন, তাদের কোন কোন জেলায় এটি শুরু হয়েছে। এটিকে আর বেশি ছড়ানোর জন্য বলেছেন ডিসিরা। আমরাও বলেছি বিভিন্ন উপজেলায় আমরা এটা শুরু করব।’

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘এজন্য জমি চাষ থেকে শুরু করে ফসল কাটা এবং বাজারে নেয়া পর্যন্ত সবকিছু আমরা আধুনিক করব। যাতে আমরা আন্তর্জাতিক বাজারে যেতে পারি। সাতক্ষীরায় একটি ফসল বিক্রি করে চাষী ১৫ টাকা পাচ্ছে, ঢাকায় এসে সেটা কেন ৪০ থেকে ৪৫ টাকা হবে। এটা একটা যে মধ্যস্বত্বভোগী, ফড়িয়া। সারা পৃথিবীতে মধ্যস্বত্বভোগী আছে।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘এছাড়া আরেকটা কিছু আছে, যেটা অপ্রত্যাশিত। সেখানে বিভিন্ন জায়গায় ট্রাক, বিভিন্ন জায়গায় তাদের অতিরিক্ত খরচ করতে হয়। এটা কীভাবে কমানো যায়, এখানে প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়েছি এবং আমরা বলেছি, এটা (চাঁদা) কতটুকু? প্রত্যেক ডিসিই বলেছেন, তারা দায়িত্ব নেবেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিবও বলেছেন, তারা একটা স্টাডি আমাদের সঙ্গে করবেন। ঈশ্বরদী কিংবা দিনাজপুর থেকে একটা ট্রাকের ঢাকায় আসতে খরচ কত? কোথাও যদি তারা চাঁদাবাজির শিকার হয়ে থাকে, কত টাকা কোথায় দিল, সেটা আমরা বের করি।’

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘বের করার পর আমরা জাতীয় পর্যায়ে চেষ্টা করব একটা ব্যবস্থা নিতে। যাতে এটা বন্ধ করা যায়। এই বিষয়টি আমি তুলে ধরেছি এবং ডিসিদের সহযোগিতা চেয়েছি।’

শীর্ষ সংবাদ:
‘বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ’         ‘পল্লী উন্নয়ন’ পদক পেলেন শেখ হাসিনা         ক্ষমতায় থাকতে দেওয়া না দেওয়ার বিএনপি কে?         করোনাভাইরাস : মৃত্যুশূন্য দিনে বেড়েছে শনাক্ত         সকল প্রকল্পের কাজ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করতে হবে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী         প্রধানমন্ত্রী বিশ্বাস করেন এদেশের জনগণের ওপর : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নির্বাচনে প্রতিযোগিতা থাকবে কিন্তু প্রতিহিংসা থাকবে না ॥ ইসি আহসান হাবিব         তথ্য-উপাত্ত বোধগম্যে বাজেট এনালাইসিস অ্যান্ড মনিটরিং ইউনিট কাজ করছে : স্পিকার         বোরো সংগ্রহ সফল করতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী         আগামীকাল সাবেক এমপি নুরুল হকের ৪৯তম মৃত্যুবার্ষিকী         জন্ম-মৃত্যুর সনদ পাওয়ায় ভোগান্তি রোধে হাইকোর্টের রুল         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ উসকানি দেয়নি, দিয়েছে ছাত্রদল : তথ্যমন্ত্রী         সত্যিকারের জ্ঞান অর্জন করে সোনার মানুষ হতে হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         আরও ৬ বীরাঙ্গনা পেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি         খোঁজ মিলল নেপালের সেই প্লেনের         নির্বাচনে যেকোনো সহিংসতা কঠোর হস্তে দমন করা হবে : সিইসি         দেশের ৪৫ শতাংশ মানুষের ক্রয় ক্ষমতা ভালো : বাণিজ্যমন্ত্রী         মীরসরাইয়ে ওসির আল্টিমেটামের পর র‌্যাবের খোয়া যাওয়া অস্ত্র উদ্ধার         দক্ষ মানবসম্পদ সরবরাহ ও গবেষণা বৃদ্ধিতে কাজ করছে রাবি ॥ ভিসি         বরিশালে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাসযাত্রী নিহত