বুধবার ৫ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাণিজ্যিক সংগঠনে নির্বাচনী দ্বন্দ্ব বাড়ছে

  • বাপা ও বারভিডায় প্রশাসক নিয়োগ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের বড় দুটি বাণিজ্যিক সংগঠনে নির্বাচন নিয়ে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হওয়ায় প্রশাসক বসিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সংগঠন দুটি হচ্ছে বাংলাদেশ এ্যাগ্রো প্রসেসরস এ্যাসোসিয়েশন (বাপা) ও রিকন্ডিশন্ড গাড়ি আমদানিকারকদের সংগঠন- বারভিডা।

এরমধ্যে বাপার একটি পক্ষ প্রশাসক নিয়োগের বিরোধিতা করে নতুন কার্যকরী কমিটি গঠনের চেষ্টা করলেও মন্ত্রণালয় তাতে সায় দেয়নি। ফলে এ সংগঠনে এখন একটি নির্বাচিত কার্যকরী কমিটির পাশাপাশি মন্ত্রণালয়ের বসানো প্রশাসকও কাজ করছে। এছাড়া বারভিডার নির্বাচন আটকে গেছে কার্যকরী কমিটির সাবেক এক সদস্যের রিট মামলার কারণে। সেখানে প্রশাসক বসিয়ে নতুন করে নির্বাচন আয়োজনের দায়িত্ব দিয়েছে মন্ত্রণালয়। দুই বাণিজ্য সংগঠনের নেতৃত্বের জটিলতা নিয়ে এভাবে হস্তক্ষেপ করতে যাওয়ায় মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারাও সন্তষ্ট নন।

জানতে চাইলে বাপার সদ্য সাবেক পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক ইকতাদুল হক বলেন, সমিতির এক সদস্যের আপীলের কারণে পুরানো ভোটার তালিকা থেকে বড় কোম্পানিগুলোর ৫৯টি ভোট বাতিল হয়ে যায়। সেখান থেকেই বিরোধের শুরু। এরপর নির্বাচন কমিশনের তফসিলে গোঁজামিল ও এফবিসিসিআইয়ের রায় জটিলতা আরও বাড়িয়েছে। ইকতাদুল হক জানান, তফসিলে ভোটার হওয়ার শর্তাবলির মধ্যে তৃতীয় শর্ত ছিল কোম্পানির ক্ষেত্রে বোর্ড রেজুলেশনের মাধ্যমে তারা প্রতিনিধি পাঠাতে পারবে। প্রোপাইটর কোম্পানির ক্ষেত্রে মালিক নিজে, এবং অংশীদারী ব্যবসার ক্ষেত্রে একজন পার্টনারকে ভোটার হিসেবে রাখার কথা।

ইকতাদুলের ভাষ্য, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বাপার একজন কার্যকরী সদস্য নির্বাচন আপীল বোর্ডের কাছে বড় কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের ভোটার হওয়া নিয়ে আপত্তি জানায়। আপীল মীমাংসা করে রায় দেয় আপীল বোর্ড। তাতে বলা হয়, যেহেতু শুরু থেকেই এই নিয়ম চলে আসছে, চলমান কমিটিতেও বিডিফুড ও স্কয়ারের মতো কোম্পানির প্রতিনিধি আছে, তাই নির্বাচনটাও রীতি মেনে করে ফেলা যায়। পরে নতুন পর্ষদ (আপীলে উত্থাপিত) বিষয়টি মীমাংসা করতে পারবে। আপীল বোর্ড সিদ্ধান্ত দেয়, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাদ দিয়ে ভোটার তালিকা প্রণয়ন করে তারপর নির্বাচন করতে হবে। এই ‘প্রণয়নের’ অর্থ হচ্ছে নির্মাণ বা পুনর্গঠন।

এর ভিত্তিতে বাপার নির্বাচন কমিশন বড় কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের বাদ দেয়, কিন্তু নতুন কাউকে যুক্ত করেনি। ইকতাদুল বলেন, বাদ পড়া ভোটাররা আদালতে গিয়ে সুবিধা করতে পারেননি। তারা এফবিসিসিআইয়ের আরবিট্রেশনে দুটি আবেদন করেন। এ বিষয়ে এফবিসিসিআই থেকে রায় আসে, কোন সদস্যের পর পর দুইবারের বেশি নির্বাচন করার সুযোগ নাই। ভোটার তালিকা থেকে বাদ পড়া পর্ষদ সদস্যরা তাদের দাবি আদায় করতে না পেরে এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক আবু মোতালেবের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশনকে সরিয়ে আরেকটি কমিশন বানায়।

বাপা পর্ষদের একটা পক্ষ ইলেকশনের দুই দিন আগে নির্বাচন বোর্ড ও আপীল বোর্ড বাতিল করে, যেটা তারা পারে না। সেই অধিকার ইসি কমিটির থাকে না। এটা করতে হলে আমার বিরুদ্ধে মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ করে সেখান থেকে করতে হবে, না হয় হাইকোর্টের আদেশ এনে করতে হবে।

এদিকে নির্বাচনের পর নতুন পর্ষদ গঠন হলেও ২৯ ডিসেম্বর প্রশাসক হিসেবে বাপায় যোগ দিয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব জিন্নাত রেহানা। বাপার সদ্য সাবেক সভাপতি ফখরুল ইসলাম মুন্সির আবেদনে এই প্রশাসককে নিয়োগ দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ডিটিও শাখার যুগ্ম-সচিব ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, সংগঠনগুলোর অভ্যন্তরীণ জটিলতার কারণে শেষ মুহূর্তে প্রশাসক নিয়োগ দিতে হয়েছে। এখন জটিলতা দূর করার চেষ্টা চলছে। আদালত থেকে কোন নির্দেশনা পেলে আমরা সেটাও অনুসরণ করতে পারব।

কিন্তু বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রশাসক নিয়োগ দেয়ার একদিন পর ৩০ ডিসেম্বর রাজধানীর একটি হোটেলে বাপার নির্বাচন হয় এবং ১৭১ জন ভোটারের মধ্যে ৯৮ জন ভোট দেন বলে জানান নির্বাচনে সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন। নিজেকে ভোটে নির্বাচিত সভাপতি দাবি করে বাপায় প্রশাসক নিয়োগের বিরোধিতা করছেন এস এম জাহাঙ্গীর আলম।

তিনি বলেন, ‘আদালতের রায়ের বাধ্যবাধকতায় নির্বাচন হয়েছে। ১৫ সদস্যের কার্যকরী পর্ষদও গঠিত হয়েছে।

এদিকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা ও ভোটার তালিকায় জটিলতার কারণে নির্বাচন করা সম্ভব হয়নি রিকন্ডিশন্ড গাড়ি আমদানিকারকদের সংগঠন- বারভিডায়। বারভিডার জনসংযোগ শাখার কর্মকর্তা জাকারিয়া মাহমুদ জানান, বারভিডার বর্তমান কার্যকরী কমিটির মেয়াদ শেষ হয় ৩১ ডিসেম্বর। কিন্তু তারা মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন করতে পারেনি। এছাড়া সমিতির সাবেক এক সদস্য আনোয়ার সাদাতের রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত নির্বাচনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আনোয়ার সাদাত আগেরবারের ২৫ সদস্যের কার্যকরী কমিটির সদস্য ছিলেন। অনিয়মের অভিযোগে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

গত দেড় বছর ধরে তিনি ভোটার নন। এখন তিনি সদস্য পদ ফিরে পেতে ও ভোটার হতে রিট করেছেন। এই প্রেক্ষাপটে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এফটিএ শাখার উপ-সচিব ছাদেক আহমেদকে সংগঠনের নতুন প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
কেউ যেন হয়রানি না হয় ॥ সেবামুখী জনপ্রশাসন গড়তে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ         দাম্পত্য কলহেই চিত্রনায়িকা শিমু খুন         ইসি সার্চ কমিটিতেই         করোনা শনাক্তের হার আশঙ্কাজনক বাড়ছে         ব্যাপক তুষারপাত ॥ শীতে নাকাল আমেরিকা ইউরোপ         ভিসি প্রত্যাহার দাবিতে শাবিতে আন্দোলন অব্যাহত         সীমান্ত অপরাধ দমনে সরকার কঠোর         দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর হোন-ডিসি সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি         ভারতের অনুকূল বাণিজ্য বাংলাদেশের জন্য উদ্বেগের কারণ         শিমু হত্যায় চলচ্চিত্র অঙ্গন তোলপাড়, বিচার দাবি         হাফ ভাড়া ॥ তিতুমীরের দুই শিক্ষার্থীকে মারধর         উন্নয়ন প্রকল্প তদারকিতে কমিটি গঠনের প্রস্তাব ডিসিদের         বিএসসির নিট আয় ৭২ কোটি টাকা, নগদ লভ্যাংশের সুপারিশ         ডায়ালাইসিসের রোগী বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসকরা হিমশিম         জনগণের টাকায় বেতন হয় : ডিসিদের রাষ্ট্রপতি         একদিনে করোনায় মৃত্যু ১০, শনাক্ত ৮৪০৭         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে না : শিক্ষামন্ত্রী         বুধবার থেকে ভার্চুয়ালি চলবে সুপ্রিম কোর্ট         নায়িকা শিমু হত্যা মামলা স্বামী ও গাড়িচালক তিনদিনের রিমান্ডে         তৃণমূলের প্রকল্প বাস্তবায়নে আরও মনোযোগী হোন ॥ ডিসিদের প্রধানমন্ত্রী