বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

অর্ধেক যাত্রী নিয়ে বাস চলবে শনিবার থেকে

  • ভাড়া বাড়বে না

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যত বিধি নিষেধই থাকুক-ভাড়া না বাড়িয়েই অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চালাতে হবে। মালিক সমিতি গত দুদিন ধরে প্রচ- চাপ সৃষ্টি করেও ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে সরকারের সম্মতি আদায় করতে পারেনি। এ অবস্থায় বুধবার জরুরী বৈঠক ডেকে বিআরটিএ- সাফ জানিয়ে দিয়েছে- মালিক সমিতির দাবি যতই যৌক্তিক থাকুক, ভাড়া বাড়ানো যাবেনা। অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখেই আগামী শনিবার থেকে চালাতে হবে গণপরিবহন। কেউ এ সিদ্ধান্ত অমান্য করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এজন্য শনিবার থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সড়কে গণপরিবহন চলাচল করবে। এ ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদারকি করা হবে। বাস টার্মিনাল, বাসচালক ও তার সহকর্মী এবং যাত্রীদের শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করা হবে।

উল্লেখ্য, আজ বৃহস্পতিবার থেকে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে কার্যকর করা হচ্ছে সরকারের দেয়া ১১ দফা নির্দেশনা। যার অন্যতম হচ্ছে- মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে বাস চালানো। গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। ওই প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকেই অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে বাস ভাড়া আবারও বাড়ানোর জন্য সরকারের ওপর চাপ তৈরি করছেন পরিবহন মালিকরা। কিন্তু সরকার তা আমলে নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) প্রধান কার্যালয় বনানীতে বুধবার দুপুরের পর সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের নিয়ে বৈঠক করেছে বিআরটিএ। বেলা আড়াইটায় এই বৈঠক শুরু হয়। এতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। বৈঠকের পর বিআরটিএ চেয়ারম্যান বলেন- আগামী শনিবার থেকে বাসের চালক ও হেলপারকে শতভাগ মাস্ক পরিধান করতে হবে। সব বাস টার্মিনালে স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা রাখতে হবে। এ বিষয়গুলো তদারকির জন্য সংশ্লিষ্টদের নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে আমরা করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছি-এ পরিস্থিতি যেহেতু এখনও রয়েছে সেহেতু আমাদের তদারকি আরও বাড়াতে হবে এবং আরও বিভিন্ন বিষয় চিহ্নিত করে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। জানা গেছে, বৈঠকে বিধিনিষেধ চলাকালে বাস ও মিনিবাসে শতভাগ যাত্রী পরিবহনের প্রস্তাব দিয়েছেন পরিবহন মালিক নেতারা। এতে বুধবার রাজি না হলেও বিআরটিএ এ প্রস্তাবটি সরকারের সংশ্লিষ্ট নীতিনির্ধারকদের কাছে উপস্থাপন করবে। এ বিষয়ে চেয়ারম্যান নূর মোহাাম্মদ মজুমদার বলেন, বৈঠকে পরিবহন মালিক এবং শ্রমিক সংগঠনের শীর্ষ নেতারা প্রস্তাব করেছেন, বিধিনিষেধ চলাকালে বাস ও মিনিবাসে শতভাগ যাত্রী পরিবহন করা হলে মালিকদের লোকসান গুনতে হবে না। ৫০% যাত্রী পরিবহন করা হলে রাজধানীতে পরিবহন সঙ্কট চরম আকার ধারণ করবে ও যাত্রীদের দুর্ভোগ সীমাহীন পর্যায়ে পৌঁছাবে। এ অবস্থায় বাস ও বাস টার্মিনালে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে এখন যেভাবে বাস ও মিনিবাসে যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে সেভাবে শতভাগ যাত্রী পরিবহন করা উচিত।

এক প্রশ্নের জবাবে নূর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, এখন বাস ভাড়া বাড়ানো যৌক্তিক হবে না। কারণ গত নবেম্বর মাসে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে বাসে যাত্রী পরিবহনের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। এ নিয়ে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আমাদের ব্যাপক আলোচনা হযয়েছে। তারা সবশেষে একমত হয়েছেন যে ভাড়া বাড়ানো হলে যাত্রীদের ওপর বেশি চাপ তৈরি করা হবে এবং এটি এ মুহূর্তে বাড়ানো যৌক্তিক হবে না।

এদিকে শনিবার থেকে ভাড়া না বাড়িয়ে আসন ফাঁকা রেখেই গণপরিবহন যাত্রী পরিবহন করবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ। তিনি জানান, বাসের অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহনে সরকারের নির্দেশনা রয়েছে। তাই বাসভাড়া নির্ধারণ নিয়ে বুধবার মালিক সমিতির নেতাদের নিয়ে নিজ কার্যালয়ে বৈঠক করেছি। মালিকদের সবাই বিদ্যমান ভাড়ায় যাত্রী পরিবহনের পক্ষে মত দিয়েছেন। তাই আগামী শনিবার থেকে বিআরটিএ নির্ধারিত ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করা হবে। দেশের সব অফিস-আদালত, কল-কারখানা খোলা। এখন বাসের অর্ধেক আসনে যাত্রী পরিবহন করলে পরিবহন সঙ্কট দেখা দেবে। মালিক পক্ষেরও অনেক লোকসান হবে। তাই শতভাগ করোনা টিকা নিশ্চিত করে সব আসনে যাত্রী পরিবহনের দাবি জানিয়েছেন বাস মালিকরা।

একই বিষয়ে বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স এ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, সরকার ভর্তুকি না দিলে আমরা বাসে অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করলে আমাদের লোকসান হবে। হয় বাস ভাড়া বাড়াতে হবে না হলে সরকারকে ভর্তুকি দিতে হবে। ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির কার্যকরী সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা সহজেই দেয়া যায়। কিন্তু বাস্তবায়ন করা অনেক কঠিন। বাসে যাত্রীরা অনেক সময় নিয়ম-নীতি না মেনে উঠে পড়েন। আবার তাদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া আদায় করা যাবে না- মহা মুশকিলের পরিস্থিতি তৈরি হবে। এসব সমস্যা সমাধানের জন্য বৈঠকে আলোচনা করব।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০২০ সালে বিধিনিষেধ চলাকালে প্রথম দফায় ৬৮ দিন বাসসহ সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ ছিল। সে বছরের ১ জুন থেকে আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে বাস চলাচল শুরু হয়। মালিকদের প্রস্তাবে ওই বছর ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হয়েছিল বাস মিনিবাসে। গত বছর ভাড়া বাড়িয়ে অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করেছিল বাস মালিকরা।

লঞ্চও চলবে আগের ভাড়ায় ॥ করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তাররোধে সরকার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলার নির্দেশনা দিলেও ভাড়া বাড়ছে না। বুধবার বাসের ভাড়া অপরিবর্তিত থাকার সিদ্ধান্তের পর লঞ্চ মালিক এবং নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য জানা গেছে। বিআইডব্লিউটিএর উপ-পরিচালক মিজানুর রহমান বলেন, ‘এই বিধি-নিষেধে কোন ভাড়া বাড়বে না।’ লঞ্চ মালিক সমিতির পরিচালক মামুনুর রশিদ বলেন, ‘লঞ্চ ভাড়া বাড়ানো হবে না। এখন পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত আছে।’ খবর বিডিনিউজের

শীর্ষ সংবাদ:
দেশের সর্বনাশ করতেই বিএনপির লবিষ্ট নিয়োগ : সংসদে প্রধানমন্ত্রী         ৪৪তম বিসিএসের আবেদন ২ মার্চ পর্যন্ত         জমি অধিগ্রহণে আমার লাভবান হওয়ার খবর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত : শিক্ষামন্ত্রী         জানুয়ারিতে ‘অস্বাস্থ্যকর বায়ু’ ছিল ঢাকায়         করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৮০৭         গাইবান্ধায় ইভিএম এর মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে ॥ কবিতা খানম         এস কে সিনহার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩ এপ্রিল         শেরপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক তালাপতুফ হোসেন মঞ্জু আর নেই         সমালোচনা বন্ধ করতে হলে মার্শাল ল দিতে হবে ॥ সিইসি         সার্চ কমিটিতে থাকবেন নারী         ৫ বছরে ২২৮ এনজিওর নিবন্ধন বাতিল         রাজশাহীতে করোনায় নারীর মৃত্যু ॥ শনাক্তের হার ৬০.৩৯ ভাগ         এক রেখায় দৃশ্যমান হলো স্বপ্নের মেট্রোরেল         ইসি গঠন আইন পাস         দক্ষ জনবলের অভাবে এনআইডিতে ভুল-ভ্রান্তি ॥ আইনমন্ত্রী         ইউক্রেনে সেনা সদস্যের গুলিতে পাঁচজন নিহত         অসংখ্য স্প্লিন্টার দেহে নিয়ে বেঁচে আছেন আব্দুল্লাহ সরদার         হবিগঞ্জে বৈদ্যের বাজার ট্র্যাজেডির ১৭ বছর         ‘সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ে পৌঁছানো যায়’