বৃহস্পতিবার ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কভিড-১৯ : বাংলাদেশ ভ্রমণে নতুন নির্দেশিকা বেবিচকের

কভিড-১৯ : বাংলাদেশ ভ্রমণে নতুন নির্দেশিকা বেবিচকের

অনলাইন রিপোর্টার ॥ করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) মহামারী পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ভ্রমণে নতুন নির্দেশিকা দিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

রবিবার নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস টিকার পূর্ণ ডোজ নিয়ে আসলে এখন থেকে আর বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না। তবে ১৩টি দেশের জন্য এই ছাড় প্রযোজ্য হবে না। যারা কভিড টিকা নেননি, তাদেরকে বাংলাদেশে প্রবেশের পর ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) সদস্য গ্রুপ ক্যাপ্টেন চৌধুরী মো. জিয়াউল কবীর স্বাক্ষরিত নতুন নির্দেশনায় বলা হয়, বাংলাদেশের প্রবেশের ১৪ দিন পূর্বে ডব্লিউএইচও অনুমোদনপ্রাপ্ত কভিড-১৯ এর টিকা নিলে তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রয়োজন নেই।

তবে এজন্য যাত্রীদেরকে টিকা গ্রহণের সব তথ্য-প্রমাণ সঙ্গে আনতে হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এটি কার্যকর থাকবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

বেবিচক বলছে, ১৩টা দেশের যাত্রীদের জন্য ভিন্ন নিয়ম মানতে হবে। দেশগুলো হচ্ছে- আর্মেনিয়া, বুলগেরিয়া, এস্তোনিয়া, জর্জিয়া, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, মালদোভা, মঙ্গোলিয়া, ফিলিস্তিন, রোমানিয়া, সার্বিয়া, স্লোভেনিয়া ও ইউক্রেন।

বেবিচকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এই দেশগুলো থেকে আগত যাত্রীদের করোনাভাইরাসের পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া থাকলেও বাংলাদেশে আসার পর সাত দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

আর যারা টিকা নেয়নি, তাদের ক্ষেত্রে সরকারের অনুমোদিত স্থানে বা হোটেলে নিজের খরচে সাত দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। সাতদিন পর আরটিপিসিআর টেস্ট করে যদি নেগেটিভ রিপোর্ট আসে, তাহলে তারা প্রবেশ করতে পারবেন।

আবার যারা অন্য দেশে থেকে বাংলাদেশে আসবেন কিন্তু এই ১৩টা দেশের একটিতে ট্রানজিট নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে চাইবেন, তাদেরকে ও দেশের ট্রানজিট এয়ারপোর্টের মধ্যে এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষের কঠোর তদারকির মধ্যে থাকতে হবে, তারা ট্রানজিট বিমানবন্দর থেকে বের হতে পারবেন না।

বেবিচক জানিয়েছে, ১২ বছরের নিচে শিশুদের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস পরীক্ষা বাধ্যতামূলক নয়। আর ১৮ বছরের কম বয়সী যাত্রীরা টিকা না নিলেও টিকা নেওয়া পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে বাংলাদেশে আসতে পারবেন।

শীর্ষ সংবাদ:
গণমুখী প্রশাসন ॥ স্বাধীনতার ৫০ বছরে বড় অর্জন         ছাত্রদের কাজ লেখাপড়া, রাস্তায় নেমে যান ভাংচুর নয়         উন্নয়নে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে         ১১ খাতে বিপুল বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা         ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তিতে বদলে গেছে পাহাড়         রামপুরায় ছাত্র বিক্ষোভ, মতিঝিলে গাড়ি ভাংচুর         দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুত কেন্দ্র অবশেষে বাস্তবায়ন হচ্ছে         বাল্যবিয়ে রোধে কাজীদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে         হত্যা মিশনে ব্যবহৃত গুলি-অস্ত্র উদ্ধার         শ্রদ্ধা ভালবাসায় জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের চিরবিদায়         সুপ্রীমকোর্টে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কাজ শুরু         খালেদা জিয়াকে স্তব্ধ করে দিতে চায় সরকার ॥ ফখরুল         মুক্তিপণের টাকা আদায় হচ্ছিল মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে         সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে লাল সবুজের মহোৎসবে মুখরিত হাতিরঝিল         ৯০ কার্যদিবসে সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে         এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা উপলক্ষে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ডিএমপি         আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলে ব্যবস্থা নেবো : অর্থমন্ত্রী         হৃদরোগ ঝুঁকি হ্রাসে সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু