বুধবার ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিতে মরিয়া বিদ্রোহীরা

ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিতে মরিয়া বিদ্রোহীরা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ দেশব্যাপী চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অযোগ্য কিংবা বিদ্রোহী আর বহিস্কৃতরা ফের যুদ্ধ করেছে নৌকার মনোনয়ন নিতে। তৃতীয়ধাপের নির্বাচনে রাজশাহীর পবা ও মোহনপুরের ১৩ টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ হবে। ইতিমধ্যে তানোর গোদাগাড়ীতে চলছে ভোটের আমেজ। আগামী ১১ নবেম্বর দ্বিতীয় এ দুটি উপজেলায় ১৭ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন যুদ্ধ চলছে এখন। রাজশাহীর পবা-মোহনপুর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে এ দফায় ভোটযুদ্ধ হবে। পবা উপজেলার পারিলা পারিলা ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক পেতে সাতজন আবেদন করেছেন। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে তাদের মধ্যে মধ্যে ব্যাপক তদবির লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তবে সবচেয়ে বেশি মরিয়া হয়ে উঠেছেন গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া ও তাকে সমর্থন দেওয়ায় বহিস্কার হওয়া দুই নেতা। তারা হলেন- পারিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহরাব আলী ও পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাইফুল বারী ভূলু।

বিদ্রোহী ও বহিস্কৃতরা নৌকা প্রতীক চাইলে তাদের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হবে কিনা জানতে চাইলে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইয়াসিন আলী বলেন, আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এসব বিষয়ে আগেই নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই নির্দেশনা মেনেই কেন্দ্রে নাম পাঠানো হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিষয়ে সকল ক্ষমতা সংসদ সদস্য ও থানা আওয়ামী লীগের হাতে। ত্যাগীদের খুব একটা মূল্যায়ন নাই। তারা যাদের নামে সুপারিশ করবে যত অভিযোগই থাকুক তারাই নৌকা প্রতীক পাবে। এসব বিষয়ে আমাদের কিছুই করার নাই।

এদিকে পারিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বহিস্কৃত নেতা সাইফুল বারী ভুলু ও সোহরাব আলী ছাড়াও নৌকা প্রতীক চেয়ে আবেদন করেছেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নবীবুর রহমান, পারিলা ইউনিয়ন মহিলা লীগ সভাপতি ফাহিমা বেগম, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল হক, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আসাদুল হক ও ইউনিয়ন কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম।

শুধু পবা উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়েই নয়। এবারের নির্বাচনে রাজশাহীর বিভিন্ন উপজেলায় নৌকায় মনোনয়নের জন্য নানা তদবির শুরু করেছেন। এ তদবিরে দলছুট, বহিস্কৃত ও বিদ্রোহীরায় বেশী এগিয়ে রয়েছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে অর্থের বিনিময়ে এসব বহিস্কৃতরা এলাকায় ভোটেই আগেই মনোনয়ন যুদ্ধ শুরু করেছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে         করের টাকাই দেশের উন্নয়নের মূল চালিকাশক্তি         সারা দেশে হাফ ভাড়া দাবিতে ৯দফা কর্মসূচি শিক্ষার্থীদের         বাংলাদেশকে ২০ লাখ টিকা দিলো ফ্রান্স         ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব         আরও একমাস বাড়লো আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুলের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক         ৬০ বছরের বেশি বয়সী নাগরিকদের বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ১.৩৪         দিনে ময়লার গাড়ি চালানো যাবে না : মেয়র আতিক         আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন         দক্ষিণ সিটি’র আরেক গাড়িচালক বরখাস্ত         গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর ১ ডিসেম্বর থেকে         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         কেউ অপরাধ করে পার পাবে না ॥ সেতুমন্ত্রী