বুধবার ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাংলাদেশের এক ব্যক্তি ও ৬ জঙ্গীগোষ্ঠী, ফেসবুকে নিষিদ্ধ

  • কালো তালিকায় বিভিন্ন দেশের ৪ হাজার সন্ত্রাসী ও জঙ্গী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চার হাজারের বেশি সন্ত্রাসী-জঙ্গী সংগঠন এবং ব্যক্তিকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে ফেসবুক। এর মধ্যে বাংলাদেশের অন্তত ছয়টি জঙ্গী সংগঠন ও এক ব্যক্তির নাম রয়েছে। ফেসবুক এসব জঙ্গী সংগঠনকে হিংসা-বিদ্বেষ সহিংসতার প্রচারকারী গোষ্ঠী বলে অভিহিত করেছে। আর পরিচালনাকারীকে বিপজ্জনক ব্যক্তি বলেছেন। তাদের নিয়ে ফেসবুকে আলোচনা করা হলে চরম শাস্তি হতে পারে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে সন্ত্রাসী ও জঙ্গী সংগঠনগুলোকে অপপ্রচার চালাতে সহায়তার অভিযোগ রয়েছে। এর থেকে রেহাই পেতে ফেসবুক ডেঞ্জারাস ইন্ডিভিজুয়ালস এ্যান্ড অর্গানাইজেশন্স (ডিআইও) নীতির আওতায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিপজ্জনক ব্যক্তি ও জঙ্গী সংগঠনের তালিকায় তৈরি করে। তাদের গোপন এই কলো তালিকায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চার হাজারের বেশি সন্ত্রাসী-জঙ্গী সংগঠন এবং ব্যক্তির গোপন নাম রয়েছে। যারা অনলাইন-অফলাইনে সহিংসতার বিস্তার করেন। এই তালিকায় বাংলাদেশের অন্তত ছয়টি জঙ্গী সংগঠন এবং এক ব্যক্তির নাম দেখা গেছে। ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ এই গোপন কালো তালিকার নথিপত্র হাতে পেয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্টারসেপ্ট। এই তালিকায় বাংলাদেশের যে ছয় জঙ্গী সংগঠনগুলো হচ্ছে, আল মুরসালাত মিডিয়া, ইসলামিক স্টেট বাংলাদেশ, হরকাত উল-জিহাদ-ই-ইসলামী বাংলাদেশ, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) ও সাহাম আল-হিন্দ মিডিয়া। ফেসবুক বলছে, সাহাম আল-হিন্দ মিডিয়ার সঙ্গে জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশের এবং আল মুরসালাত মিডিয়ার সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গীগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের সম্পর্ক রয়েছে। ফেসবুকের বিপজ্জনক ব্যক্তির তালিকায় এক বাংলাদেশীর নামও রয়েছে। তরিকুল ইসলাম নামে ওই বাংলাদেশীর সঙ্গে জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) সম্পর্ক আছে ফেসবুক জানিয়েছে। তবে ওই ব্যক্তির ব্যাপারে বিস্তারিত আর কোন তথ্য জানানো হয়নি। দ্য ইন্টারসেপ্ট ফেসবুকের গোপন কালো তালিকাভুক্ত সব সংগঠন এবং ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেছে। এই তালিকায় কালো তালিকাভুক্তে ঠাঁই পাওয়া সব সংগঠন এবং ব্যক্তি বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই প্ল্যাটফর্মে নিষিদ্ধ। যেসব ব্যবহারকারী ফেসবুকে এসব গোষ্ঠী বা ব্যক্তিকে নিয়ে আলোচনা করেন। তাদের ফেসবুকের ডিআইও নীতিমালা অনুযায়ী তিন-স্তরের শাস্তির আওতায় আনে। ফেসবুক বলেছে, সন্ত্রাসী এবং জঙ্গী সংগঠনগুলোর মতো যারা অফলাইনে মারাত্মক ক্ষতিকর কাজ করতে পারেন, ফেসবুক তাদের কালো তালিকার প্রথম স্তরে রাখে। এছাড়া সিরিয়ার সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর মতো যেসব সহিংস বিদ্রোহী গোষ্ঠী রয়েছে ফেসবুক তাদের দ্বিতীয় স্তর রেখেছে। তৃতীয় স্তরে এমন ব্যক্তি ও সংগঠনকে রাখা হয়, যারা ফেসবুকের বিদ্বেষমূলক বক্তব্য এবং বিপজ্জনক সংগঠনের নীতিমালা লঙ্ঘন করে। তবে তারা অগত্যা সহিংসতায় জড়িত হয়নি বা সহিংসতায় সমর্থন দেয়নি। বাংলাদেশের যেসব সংগঠন এবং ব্যক্তির নাম ফেসবুকের গোপন কালো তালিকায় রয়েছে। তাদের নিয়ে ফেসবুকে আলোচনা করা হলে চরম শাস্তি হতে পারে।

শীর্ষ সংবাদ:
২৪ অক্টোবর পায়রা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         করোনা ভাইরাসে টিকা নিবন্ধনে বয়সসীমা সর্বনিম্ন ১৮ বছর নির্ধারণ         এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে রায় বৃহস্পতিবার         সিরিয়ায় বোমা হামলায় ১৩ সেনা সদস্য নিহত         করোনা ভাইরাস ॥ দেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ শিশু ঝুঁকিতে         অপহৃত মিশনারিদের ছাড়তে জনপ্রতি ১০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি         ক্রিপ্টো প্রশ্নে ফেসবুককে বিশ্বাস করেন না মার্কিন সিনেটররা         আমিরাতে গেলেন আরও ২৪৭৭ প্রবাসী         রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬১         জেলে ধর্মগ্রন্থ পড়ছেন আরিয়ান         আশুগঞ্জে গাড়ি চাপায় ২ চাতাল শ্রমিক নিহত, আহত ৩ জন         ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস         ভারতের উত্তরাখাণ্ডে দুর্যোগ ॥ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬         ইয়েমেন যুদ্ধে ১০ হাজার শিশু হতাহত ॥ ইউনিসেফ         ববিতে ক্লাশ শুরু হবে বৃহস্পতিবার         বরিশালে ৯৯.৩ মিলিমিটার বৃষ্টি রের্কড         নতুন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র সাবমেরিন থেকে ছুড়া হয়েছে ॥ উত্তর কোরিয়া         জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী         শরীয়তপুরে অবৈধভাবে বালু ও মাটি উত্তোলনে ভাঙ্গছে নদী ও খাল         তিস্তায় হটাৎ ভয়াবহ বন্যায় রেড এ্যালার্ট ॥ ফ্লাড ফিউজ বিধ্বস্থ হবার মুখে