শনিবার ৪ বৈশাখ ১৪২৮, ১৭ এপ্রিল ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মার্কেট দোকানপাট খুলে দেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ চলছে

মার্কেট দোকানপাট খুলে দেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ চলছে
  • ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মার্কেট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে রাজধানীতে টানা চতুর্থ দিনের মতো বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন ব্যবসায়ীরা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খুলে দেয়ার দাবিতে রাজধানীর বেশ কয়েকটি স্থানে মার্কেট ব্যবসায়ীরা এই বিক্ষাভ প্রদর্শন করে। রাজধানীর বাইরেও বেশ কিছু এলাকা থেকে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে।

বেলা ১১টার দিকে গুলিস্তান ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ এর সামনে ঢাকা রেডিমেড গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির ব্যানারে দোকানিরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেন। এতে ফুলবাড়িয়া, বঙ্গবাজার ও গুলিস্তানের কয়েকটি মার্কেটের দোকান মালিক ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন। এরপর তারা বিআরটিসি কাউন্টারের সামনের সড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়। এতে তাদের সঙ্গে পুলিশের বাগ্বিত-া হয়। এক পর্যায়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে দোকানিরা ইটপাটকেল ছুড়তে থাকেন। পরে পুলিশ তাদের ধাওয়া দেয়। এ সময় উভয়ের মধ্যে কিছুক্ষণ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে দোকানিরা ওই এলাকা ছেড়ে চলে যান। সিটি প্লাজার কয়েক ব্যবসায়ী জানান, করোনার কারণে লকডাউনের কথা বলা হলেও কার্যত ঢাকায় জীবনযাত্রা স্বাভাবিক। গণপরিবহন চলছে। বইমেলা চলছে। কাঁচাবাজার খোলা। মানুষ নিয়মিত অফিস করছেন। কেবল স্বাস্থ্যবিধির কথা বলে তাদের দোকান বন্ধ রাখা হয়েছে। এর প্রতিবাদে তারা রাস্তায় নেমেছেন।

সকাল ১১টার দিকে দোকানিরা যখন সড়ক অবরোধ করেন, তখন এই এলাকায় ২০ মিনিটের মতো যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে সরে যাওয়ার অনুরোধ করলে তারা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। এরপরই উভয়ের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপে পুরো এলাকায় রণক্ষেত্র পরিণত হয়। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। পরে ঢাকা রেডিমেড গার্মেন্টস ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ আবদুল মান্নান কর্মসূচীর ইতি টেনে দোকানিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। এ সময় তিনি দু-এক দিনের মধ্যে দোকান খুলতে না দিলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, প্রয়োজনে নিজেরাই দোকান খুলবেন। ধুঁকে ধুঁকে মরার চেয়ে একবারে মরাই অনেক ভাল। স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান চালু রাখতে সরকারের কাছে অনুরোধ জানান। এদিকে দুপুরে মার্কেট খুলে দেয়ার দাবিতে বসুন্ধরা, ইস্টার্নপ্লাজার মার্কেটের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে মালিক ও কর্মচারীরা। এ সময় তার স্লোগান দেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন ফেস্টুন, ব্যানারে লেখা ছিল স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখতে হবে।

রাজশাহী ॥ স্টাফ রিপোর্টার জানান, দোকান খোলার দাবিতে রাজশাহীর বস্ত্র ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ করেছে। করোনা পরিস্থিতিতে সরকার ঘোষিত একসপ্তাহের লকডাউনের তৃতীয় দিন বুধবার বেলা ১১টার দিকে নগরীর সাহেববাজারে তারা বিক্ষোভ করে। এর আগে সকালেই তারা দোকান খোলেন। পরে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের জরিমানা করতে গেলে ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। তারা ঘোষণা দেন, কাউকে জরিমানা করা হলে আন্দোলন জোরদার হবে। ব্যবসায়ীরা রাস্তায় নেমে পড়ায় ম্যাজিস্ট্রেট কাউকে জরিমানা করেননি। এদিকে ম্যাজিস্ট্রেট চলে যাওয়ার পরই ব্যবসায়ীরা দোকান খোলেন। তবে ক্রেতার সংখ্যা ছিল কম। দুপুর পর্যন্ত আর কেউ তাদের দোকান খোলার ব্যাপারে বাধা দেয়নি। নগরীর আরডিএ মার্কেটও এ দিন খোলা দেখা গেছে। মঙ্গলবার থেকে নগরীর সবচেয়ে বড় এই মার্কেটের ব্যবসায়ীরা দোকান খুলছেন। এর আগে দোকান খোলার দাবিতে গত সোমবার আরডিএ মার্কেটের ব্যবসায়ীরা রাস্তায় নামেন।

সাভার ॥ সংবাদদাতা জানান, দ্বিতীয় দিনের মতো বুধবার দুপুর ১২টার দিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে সাভারে মানববন্ধনসহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় ব্যসায়ীরা। তারা ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেন। পরে পুলিশ গিয়ে বিক্ষোভকারীদের বুঝিয়ে সড়কে যানচলাচল স্বাভাবিক করে। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী শেষে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, সাভার শিল্পাঞ্চলের সকল পোশাক কারখানা চালু রয়েছে। ফলে এই অঞ্চলে লকডাউনের তেমন কোন প্রভাব পড়েনি। প্রায় সবকিছু স্বাভাবিক রয়েছে দাবি করে ব্যবসায়ীরা অতিদ্রুত সাভারের বিপণি বিতানসহ সকল মার্কেটের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলে দেয়ার দাবি জানান।

গাজীপুর ॥ স্টাফ রিপোর্টার জানান, গাজীপুরে সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মার্কেট ও দোকানপাট খোলা রাখার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা। বুধবার সকালে গাজীপুর মহানগরীর ব্যস্ততম চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে শাপলা ম্যানশনসহ বিভিন্ন মার্কেটের কয়েক শ’ ব্যবসায়ী ও কর্মচারী এ মানববন্ধনে অংশ নেন ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ী নেতা মোঃ শরিফুল ইসলাম, হাজী আব্দুর রশিদ, আবুল হোসেন, সেলিম মাহমুদ, মনির হোসেন, জাকির হোসেন, কাউছার আলম প্রমুখ। বক্তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দোকান ও শপিংমল খোলা রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জোর দাবি জানান।

শীর্ষ সংবাদ:
জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে সমাহিত হবেন কবরী         মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা         নিজেদের উদ্ভাবিত কোভ্যাক্সিন টিকার উৎপাদন ১০ গুণ বাড়াতে চায় ভারত         মিষ্টি মেয়েখ্যাত কবরীর চিরবিদায় ॥ সর্বস্তরের শোক প্রকাশ         ঢেলে সাজানো হচ্ছে প্যাকেজ ॥ অর্থনীতি সচল রাখতে প্রণোদনা         বিএনপি এখন লকডাউন নিয়ে অপপ্রচারে নেমেছে ॥ কাদের         আন্তর্জাতিক রুটে বিশেষ ফ্লাইট আজ শুরু         সঙ্কট বাড়ছে গার্মেন্টসে ॥ করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা         কলেজছাত্রীকে অপহরণ করে বিয়ে, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার         ভারতে করোনায় আরও ১১৮৫ জনের মৃত্যু         রমজানের শুরুতেই কমল ছোলা ও খেজুরের দাম         হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতার দাবি         এইচএসসির সাধারণ ও মেধাবৃত্তির তালিকা প্রকাশ         করোনা ভাইরাস ॥ দেশে রেকর্ড একদিনে মৃত্যু শতাধিক         শনিবার থেকে ৮ গন্তব্যে যাবে বাংলাদেশ বিমান         করোনা ভাইরাস শনাক্তের ৪ ট্রাক নকল কিট জব্দ         হেফাজত নেতা জুবায়ের গ্রেফতার         যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর হামলায় ৮ জন নিহত         বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া