শুক্রবার ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দেড় মাস পর নিখোঁজ ছেলের মরদেহ খুঁজে পান পরিবার

দেড় মাস পর নিখোঁজ ছেলের মরদেহ খুঁজে পান পরিবার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকা থেকে নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থী সাদমান সাকিব রাফি (২২) মরদেহের খোঁজ পেয়েছে তার পরিবার। এর মধ্যেই বেওয়ারিশ হিসেবে তার লাশ জুরাইন কবরস্থানে দাফন করেছে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলাম।

দেড় মাস পর সোমবার রাতে হাতিরঝিল থানা গিয়ে রাফির মরদেহ ছবি দেখে সনাক্ত করেন তার মা মনোয়ার হোসেন। সাদমান মালয়েশিয়ার এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটির (এপিইউ) শিক্ষার্থী ছিলেন।

পুলিশ জানায়, পুলিশ জানায়, গত ১৪ জানুয়ারি বিকেল ৫টা ৫৫ মিনিটের দিকে হাতিরঝিলের বেগুনবাড়ি ফ্লাইওভার পূর্ব দিকে উঠার মুখে পাশের পানিতে অপরিচিত (২২) বছরের এক মুসলিম যুবকের মরদেহ পাওয়া যায়। তবে তার শরীরের কোথাও কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না। পরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়।

ময়নাতদন্ত পর তার লাশ ২৭দিন মর্গে হিমাগারে রাখা হয়। পরে গত ১১ ফেব্রুয়ারি বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে সাদমানের লাশ আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলাম কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে সাদমানের লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে জুরাইন কবরস্থানে দাফন করা হয়।

পুলিশ জানায়, গত ১৩ জানুয়ারি সাদমান সাকিব ওরফে রাফি ভাটারা এলাকা থেকে নিখোঁজ হলে তার মা মনোয়ারা হোসেন থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। জিডিতে তিনি উল্লেখ করেন, গত ১৩ জানুয়ারি সকালে সাদমান কাউকে কিছু না বলে বাসা থেকে বেরিয়ে যান।

এরপর আর বাসায় ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান না পেয়ে থানায় জিডি করেছি। তার মুঠোফোন নম্বরটিও বন্ধ। মনোয়ারা হোসেন বলেন, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফেরে সাদমান। করোনার কারণে আর মালয়েশিয়ায় যাওয়া হয়নি তার। সাদমানের জন্ম ও বেড়ে ওঠা সৌদি আরবে। তিন বছর আগে মালয়েশিয়ার এপিইউতে ভর্তি হন তিনি।

ঢাকায় তার কোনো বন্ধুবান্ধব নেই। ঢাকার রাস্তাঘাটও ভালোভাবে চেনে না। তবে মাঝে মধ্যে সাদমান খুব বেশি চিন্তিত থাকত। ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুজ্জামান বলেন, সাদমান মালয়েশিয়ায় ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ জন্য তার বাবাকে টাকা জোগাড় করতে বলেন।

এর আগের দিনই তিনি বাসা থেকে বেরিয়ে যান। সিসিটিভির ফুটেজে ল্যাপটপ ব্যাগ নিয়ে সাদমানকে বের হতে দেখা যায়। এ ঘটনার এক সপ্তাহ পর ২১ জানুয়ারি সাদমানকে ফেনী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। হঠাৎ এমন কথা বলে কেউ যোগাযোগ করেন তার মায়ের সঙ্গে।

কিছু সময় পর জানানো হয়, সাদমান হাসপাতালে, তার চিকিৎসার জন্য রক্ত লাগবে। রক্ত জোগারের জন্য টাকা চাওয়া হয় সাদমানের মায়ের কাছে। সপ্তাহখানেক নিখোঁজ থাকা সন্তানের সন্ধান পাওয়ার কথা শুনে মা আর দেরি করেননি। আট হাজার টাকা পাঠিয়ে দেন বিকাশে।

কিন্তু এরপর থেকেই ওই মোবাইল নম্বর বন্ধ পাচ্ছেন সাদমানের মা মনোয়ারা হোসেন। পুলিশের ধারণা, একটি প্রতারক চক্র ছেলের কথা বলে পরিবারটির কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাসে আরও ১১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৪৭০         ‘সাগরে ভাসমান রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জলসীমা থেকে দূরে’         উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুখবর জানাতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী         মুশতাকের মৃত্যুর কারণ জানতে প্রয়োজনে তদন্ত কমিটি ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         সিলেটে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮         মুশতাকের মৃত্যুর প্রতিবাদে শাহবাগে অবরোধ করে বিক্ষোভ         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল চার জনের         করোনা ভাইরাস ॥ বিশ্বজুড়ে মৃত্যু ২৫ লাখ ছাড়াল         বাইডেনের নির্দেশে সিরিয়ায় ইরানপন্থী মিলিশিয়াদের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের হামলা         করোনা ভাইরাস ॥ ব্রাজিলে মৃত্যু ছাড়াল আড়াই লাখ         ভারত বায়োটেকের ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কিনবে ব্রাজিল         চীনের উইঘুর নিপীড়ন গণহত্যা ॥ ডাচ পার্লামেন্ট         সীমান্ত নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করল জাতিসংঘ         চীনকে গোপন তথ্য সরবরাহ ॥ রুশ নাগরিকের কারাদণ্ড         মস্কোর কারাগার থেকে সরানো হয়েছে নাভালনিকে         হাতে ঠেলা ট্রলিতে উ. কোরিয়া ছাড়লেন রুশ কূটনীতিকরা         গুলি করে পপ তারকা লেডি গাগার কুকুর ছিনতাই         সিলেটে দুই বাসের সংঘর্ষ ॥ নিহত ৭         একসঙ্গে প্রেমিক-প্রেমিকার কীটনাশক পান ॥ প্রেমিকের মৃত্যু         কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে হাজতির মৃত্যু