বুধবার ৬ মাঘ ১৪২৭, ২০ জানুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সড়ক আইন আংশিক কার্যকর করা হয়েছে ॥ ওবায়দুল কাদের

সড়ক আইন আংশিক কার্যকর করা হয়েছে ॥ ওবায়দুল কাদের
  • সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে নিসচার গোলটেবিল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নতুন সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ পুরোপুরি কার্যকর হয়নি এটা আংশিক কার্যকর করা হয়েছে। তবে এটা বাস্তবায়ন করা মন্ত্রণালয়ের একার কাজ না। এ আইন পূর্ণাঙ্গ কার্যকরের জন্য আমরা চেষ্টা করছি।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে নিরাপদ সড়ক চাই আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এ কথা জানান সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ‘স্বাধীনতার ৫০ বছরে নিসচার ২৭ বছর সড়ক দুর্ঘটনা রোধে আমরা কতটা আন্তরিক’ শীর্ষক এই গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজক নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিগত ১২ বছরে ব্যাপক যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়ন করেছে সরকার। তবে আমাদের এ কথা বলতে দ্বিধা নেই যে, সড়ক নিরাপত্তার বিষয়টি যতদূর এগোনের কথা, ততোদূর আমরা এগুতে পারিনি। নতুন সড়ক আইন আংশিক বাস্তবায়ন হয়েছে। আমরা যদি সড়কের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করতে না পারি তাহলে আমাদের উন্নয়ন ম্লান হয়ে যাবে।

নতুন সড়ক আইনটি বাস্তবায়ন ও প্রয়োগে কিছু সমস্যা আছে, যার কারণে আইনটি বাস্তবায়ন করতে পারিনি জানিয়ে আওয়ামী লীগের এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের আরও সচেতন হতে হবে। মানুষ এখন ট্রাফিক আইন মানতে চান না, পথচারীরা পথ চলার নিয়ম মানতে চান না। এ বিষয়ে সচেতনতা জরুরি।

আরটিভি সিইও সৈয়দ আশিকুর রহমানের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন। বক্তব্য রাখেন, প্রথম আলোর যুগ্ন সম্পাদক মিজানুর রহমান খান, সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

তিনি বলেন, সকলের সহযোগিতায় শিগগিরই এই আইন পূর্ণাঙ্গভাবে কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। নিরাপদ সড়ক যোগাযোগ নিশ্চিত করা শুধুমাত্র যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের কাজ নয়। এতে আরও অনেক সংস্থা রয়েছে। সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন জনগণের সচেতনতা।

নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের ২৭ বছর পূর্তিতে আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে তিনি বলেন, আধুনিক সড়ক ব্যবস্থাপনার অংশ হিসেবে উন্নত বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও চালু করা হয়েছে রোড সেফটি অডিট। এ পর্যন্ত সড়ক অধিদফতরের আওতাধীন প্রায় পাঁচশ কিলোমিটার মহাসড়কে রোড সেফটি অডিট পরিচালনা করা হয়েছে। বর্তমানে তিনশ কিলোমিটারে অডিট কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘বিগত এক যুগে প্রায় সাড়ে চারশ কিলোমিটার মহাসড়ক চার বা তারও বেশি লেনে উন্নীত করা হয়েছে। গাড়ি চালক বিশেষ করে ট্রাক চালকদের জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে নির্মাণ করা হচ্ছে চারটি বিশ্রামাগার।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে নিসচার চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, সড়ককে নিরাপদ করার কাজটি অত্যন্ত কঠিন। পরিবহনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মালিক, প্রশাসন ও যাত্রীদের অধিকাংশই শিক্ষিত হওয়া সত্ত্বেও নিজ দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কে তারা কতটা আন্তরিক, সেটাই এখন প্রশ্ন। সেখানে সচেতনতা কতটুকু আশা করা যায়। আর পরিবহনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কম শিক্ষিত ব্যক্তিদের কাছ থেকে সচেতনতা কতটুকু আশা করা যায়, তা সবারই জানা।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ২৭ বছর নিসচা যে দাবিতে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করেছে, সব স্তরে তা আছড়ে পড়েছে। ২০১৮ সালের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন তার প্রমাণ। কিন্তু সফলতা দেখা যাচ্ছে না।

বৈঠকে প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান সড়ক নিরাপত্তাবিষয়ক আইন নিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-আহত ব্যক্তিদের জন্য ক্ষতিপূরণ বিষয়ে কী করা যেতে পারে, সেটি দেখতে হবে।

ভিডিওকলে যুক্ত হয়ে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, সড়কে ট্রাফিক যেন বেশি না হয়, এ জন্য ডিএমপি কাজ করছে। নতুন আইন সংযোজিত হয়েছে। এর মাধ্যমে সড়কে ট্রাফিক কমানোর চেষ্টা চলছে। রাস্তা যাঁরা ব্যবহার করেন, তাঁদের সচেতনতাও জরুরি।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৯৬০৭০৭৫৫
আক্রান্ত
৫২৯০৩১
সুস্থ
৬৮৭৩৮৮৪৫
সুস্থ
৪৭৩৮৫৫
শীর্ষ সংবাদ:
নদী দখলের থাবা ॥ ৬৪ জেলায় দখলদার ৬৩ হাজার         প্রেসিডেন্ট হিসেবে আজ বাইডেনের অভিষেক         রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু এপ্রিল-মে মাসে         ভারতের উপহার ২০ লাখ ডোজ টিকা আসছে কাল         প্রায় সবাই স্কুল খোলার পক্ষে         বিএনপি-জামায়াতের সব ষড়যন্ত্র রুখতে হবে ঐক্যবদ্ধভাবে         সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করা হলেও ধর্ষণ নির্যাতন থামছে না         আন্তঃজেলা বাসের জন্য নগরীর বাইরে হচ্ছে চার টার্মিনাল         দেশে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে         অভিবাসন খাত উন্নয়নে ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ চালু হচ্ছে         ৩০ লাখ গণস্বাক্ষরযুক্ত আহ্বান জাতিসংঘে পাঠানোর সিদ্ধান্ত         তুফান কাহিনী- মানুষের মধ্যে কৌতূহল বাড়ছে, সেই সঙ্গে শঙ্কাও         ধর্ষণ ॥ নারী-শিশুর ছবি প্রকাশে নিষেধাজ্ঞার বাস্তবায়ন চেয়ে রিট         ভোটারদের দ্বারে দ্বারে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা         বছরের মাঝামাঝি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু         ভাসানচরে দশম থানা উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         করোনায় শিক্ষা কার্যক্রম চালু নিয়ে বসছে দুই মন্ত্রনালয়         ৪ আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে ঢাকার যানজট কমবে ॥ তাপস         করোনা ভাইরাসে আরও ২০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৭০২         বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ২৪ হাজার ৪২১ মেগাওয়াট : নসরুল হামিদ