ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার উদ্বোধন

প্রকাশিত: ২২:৫৭, ২৯ নভেম্বর ২০২০

শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার উদ্বোধন

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামের চান্দগাঁওয়ে শনিবার উদ্বোধন হয়েছে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টারের। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) ১ দশমিক ৭১ একর জায়গায় ৬তলা বিশিষ্ট ৬ হাজার বর্গফুটের এ সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ সময় অন্যদের মধ্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মোসলেম উদ্দিন আহমদ এমপি ও বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। নির্মাণ কাজের উদ্বোধন শেষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী প্রকল্প এলাকায় আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, সিটি কর্পোরেশনের পুরো জায়গায় ২০২১ সালের জুনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ হাইটেক পার্ক গড়ে তোলা হবে। ইতোমধ্যে চসিক এবং বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে। এ জমিতেই শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণ হবে। গত আগস্ট মাসে চসিক থেকে ১ দশমিক ৭১ একর জমি বুঝে নিয়েছে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। এ সেন্টার নির্মাণে সম্পূর্ণ অর্থ ব্যয় করবে হাইটেক কর্তৃপক্ষ। নির্মাণ কাজ শেষে এর লভ্যাংশ চসিক ও হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ৫০ শতাংশ করে পাবে। প্রায় ৪৭ কোটি টাকায় এ সেন্টার নির্মাণ হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে আইটি বিষয়ে বছরে ২ হাজার শিক্ষার্থী বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ পাবে বলে চসিক সূত্রে জানানো হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, মীরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিল্পনগর প্রতিষ্ঠা হচ্ছে। মীরসরাই থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত একটি মেরিন ড্রাইভ তৈরির পরিকল্পনা নেয়া যেতে পারে। চট্টগ্রামে বে-টার্মিনাল ও আউটার রিং রোড তৈরি হচ্ছে। মীরসরাই ইকোনমিক জোন ঘিরে অনেক পরিকল্পনা নিয়েছে বর্তমান সরকার। এ ইকোনমিক জোনে সকল সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে পারলেও এখনও সুপেয় পানির সঙ্কট রয়ে গেছে। এ জন্য কাজ করছে সরকার। তাই হালদা থেকে পানি উত্তোলনের চিন্তা ভাবনা হচ্ছে। তার মতে, হালদা থেকে যে পরিমাণ পানি উত্তোলন করা হবে তা নিয়ে সমস্যা হবে না। ইতোমধ্যে এ ব্যাপারে গবেষণা হয়েছে। মুহুরি নদী থেকেও পানি নেয়ার চিন্তা হচ্ছে। কিন্তু কর্ণফুলী নদী থেকে পানি নেয়া হলে খরচ বেশি পড়বে। মন্ত্রী বলেন, চসিক প্রশাসক বেশকিছু ভাল কাজ করেছেন। যা সকলের মাঝে আশার সঞ্চার করেছে।