ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মেরামতের তিন মাসেই ফের বেড়িবাঁধে ভাঙ্গন

প্রকাশিত: ২১:২২, ২৫ আগস্ট ২০২০

মেরামতের তিন মাসেই ফের বেড়িবাঁধে ভাঙ্গন

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, পটুয়াখালী, ২৪ আগস্ট ॥ প্রায় সাত কিলোমিটার বেড়িবাঁধ এক যুগ ধরে বিধ্বস্ত থাকায় লালুয়ার রাবনাবাদপাড়ের ১১ গ্রামের মানুষ ছয় মাস অস্বাভাবিক জোয়ারের পানিতে ভাসছে। অন্তত ১২শ’ পরিবার এবারে অমাবস্যার জোতে টানা পাঁচদিনের অস্বাভাবিক জোয়ারে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে ল-ভ- হয়ে গেছে। বাড়িঘর, বসতি, পুকুর, জনপদ সব ডুবেছে পানিতে। এখনও পানি বন্দীদশায় হাজারো পরিবার। এদের দুঃখের সাতকাহন শেষ হয় না। এরই মধ্যে নতুন করে মহিপুর ইউনিয়নের নিজামপুরসহ চার গ্রামের মানুষের কপাল পোড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। জানা গেছে, এ বছর (২০২০ সালে) জুন মাসে শেষ করা দুই কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয় করে নির্মাণ করা ৪৭/১ পোল্ডারের মেরামত করা ৮৮৫ মিটার বেড়িবাঁধ এখনই চরম হুমকির মুখে রয়েছে। বাঁধের একটি পয়েন্টে প্রায় ২৫ মিটারজুড়ে বাঁধের রিভার সাইটের স্লোপসহ মূলবাঁধের টপের অর্ধেকটা গিলে খেয়েছে আন্ধারমানিক নদী। মানুষ তাদের আমন আবাদ নিয়ে ফের শঙ্কায় পড়েছেন। সিডরের পরে বছরের পর বছর ফসল হারানো এ মানুষগুলো বাঁধটি নির্মিত হওয়ায় স্বপ্ন দেখছিলেন ফের আমন আবাদের। কিন্তু পাঁচ প্যাকেজের চার ঠিকাদার নিয়মনীতি, ডিজাইন না মেনে মাটির কমপ্যাকশন যথাযথভাবে না করেই ৩০ জুন বাঁধ নির্মাণের ইতি টানেন। ফলে ফের ভেঙ্গে যাচ্ছে বাঁধটি। এখন বাঁধ ভেসে জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। যেসব জিও ব্যাগ দেয়া হয়েছে। তা এখনও জমাট বাঁধেনি। স্থানীয় হানিফ চৌকিদার জানান, এসবের প্রতিবাদ করেও কোন লাভ হয় না। নূর জামাল হাওলাদার জানালেন, কাজ করার তিন মাসের মধ্যে বাঁধটি আবার ভেঙ্গে যাচ্ছে। জিও ব্যাগে সিমেন্ট বালু ঠিকমতো দেয়া হয়নি।
monarchmart
monarchmart