সোমবার ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বিষ দিয়ে পাঁচ কোটি টাকার মাছ নিধন

বিষ দিয়ে পাঁচ কোটি টাকার মাছ নিধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ১৪ আগস্ট ॥ আশুলিয়ায় পূর্ব শক্রতার জের ধরে প্রায় ৪০ বিঘা জমি নিয়ে গঠিত একটি মাছের খামারে বিষ প্রয়োগ করে খামারের সব মাছ নিধনের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাতে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা জিরাবো মৎস্য খামার নামে খামারটিতে বিষ প্রয়োগ করেছেন বলে অভিযোগ করেন খামারের মালিক। তবে কে বা কারা এই কান্ড ঘটাতে পারে এ বিষয়ে কোন ধারণা দিতে পারেননি মালিক।

সরেজমিনে শুক্রবার দুপুরে গিয়ে দেখা গেছে, আশুলিয়া থানাধীন জিরাবো এলাকার দেওয়ান ইদ্রিস আলী স্কুল এ্যান্ড কলেজ সংলগ্ন এলাকার ওই খামারে মরা মাছের স্তূপ। পুরো এলাকার বাতাসে মরা মাছের দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। এছাড়াও ভুক্তভোগীর মাছের খামারের পাশে জাহাঙ্গীরসহ আরও কয়েক জনের মাছের খামার রয়েছে। যা পানির মধ্যে জাল দিয়ে সীমানা ভাগ করা। তবে ওই মৎস্য খামারিদের কোন ক্ষতি হয়নি।

খামারের মালিক একই এলাকার মৃত চাঁন মিয়া বেপারির ছেলে শরিফুল ইসলাম আলমাস বলেন, ‘প্রায় ৪০ বিঘা জায়গায় খামার করে দীর্ঘদিন ধরে মাছের চাষ করে আসছি আমরা পাঁচ ভাই। বৃহস্পতিবার রাত থেকে হঠাৎ খামারের মাছগুলো মরে পানিতে ভেসে উঠতে শুরু করে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কেউ পানিতে বিষ প্রয়োগ করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫০ টন মাছ মরে পানিতে ভেসে ওঠায় আমাদের প্রায় পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।’ তিনি আরও জানান, তাদের খামারে রুই, কাতলা, সিলভার কার্প, ব্রিগেড কার্প, টেংরা, কালবাউশ এবং পুঁটি মাছসহ আরও ২০ প্রজাতির মাছ চাষ করতেন তারা।

সাভার উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ বলেন, পুকুরে মাছ মরে ভেসে ওঠার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিকভাবে পানি পরীক্ষা করে অক্সিজেনের পরিমাণ কম এবং এ্যামেনিয়া ও পিএইচ-এর পরিমাণ বেশি পাওয়া গেছে। যদিও পুকুরের মালিকরা অভিযোগ করেন বিষ প্রয়োগে তাদের মাছগুলো মেরে ফেলা হয়েছে। কিন্তু পানিতে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে কিনা তা পরীক্ষার কোন যন্ত্রপাতি আমাদের কাছে নেই। তবে ভুক্তভোগী ওই খামারির পাশে অন্য মৎস্য খামারিদের কোন ক্ষতি হয়নি। তাই ধারণা করা হচ্ছে খাবারে বিষক্রিয়ায় মাছগুলোর মৃত্যু হয়েছে। তিনি আরও বলেন, সাধারণত পানিতে পিএইচ থাকার কথা সাড়ে ৭ থেকে সাড়ে ৮ সেখানে পাওয়া গেছে ৯-এর ওপরে, এ্যামোনিয়া থাকার কথা .০৫, কিন্তু পাওয়া গেছে .৫ যা অনেক বেশি এবং অক্সিজেন থাকার প্রয়োজন সর্বনিম্ন ৫, সেখানে মাত্র ২ পাওয়া গেছে।

শীর্ষ সংবাদ:
প্রণোদনায় গতি ॥ করোনার ধকল কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি         শীতে করোনার প্রকোপ বাড়তে পারে, এখন থেকে প্রস্তুতি চাই         অনলাইনে ৩৬ টাকা দরে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু         তিতাসের বকেয়া সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা উদ্ধারের সুপারিশ         গ্রীষ্মকালে পেঁয়াজ আবাদ করা গেলে ঘাটতি থাকবে না         আবার সংসদের বিশেষ অধিবেশন বসছে         আইনমন্ত্রীর সহায়তায় নবজাতককে ফিরে পেলেন আঞ্জুলা         পাঁচ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধ উৎপাদনে বাধা নেই         স্বাস্থ্যের ড্রাইভারের ঢাকায় একাধিক বাড়ি, গাড়ি, শত কোটির মালিক         ইলিশ উৎপাদন আরও বাড়ানোর উদ্যোগ         ইস্পাত কারখানায় গলিত লোহা ছিটকে দগ্ধ পাঁচ শ্রমিক         যোগান বাড়াতে পেঁয়াজের শুল্ক প্রত্যাহার         ব্যাংক যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দেওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রীর         ‘বিএনপি নেতাদের কারণেই খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর দাবি ওঠতে পারে’         করোনা ভাইরাসে আরও ২৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪৪         ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ ॥ আসামি মজনুর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন বাবা         করোনা ভাইরাসমুক্ত হলেন অ্যাটর্নি জেনারেল         দুদকের মামলায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর         ‘বিএনপির আন্দোলনের তর্জন গর্জনই শোনা যায়, কিন্তু বর্ষণ দেখা যায় না’         সৌদি এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বাতিল করল বেবিচক