বৃহস্পতিবার ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

করোনা রোধে সরকারের রোডম্যাপ নেই ॥ ফখরুল

করোনা রোধে সরকারের রোডম্যাপ নেই ॥ ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ করোনা প্রতিরোধে সরকারের কোন রোডম্যাপ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রবিবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরার বাসা থেকে অনলাইনে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় জাতীয়তাবাদী হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক দল আয়োজিত ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। এই ক্যাম্প থেকে হোমিওপ্যাথিক করোনাভাইরাস প্রতিষেধক ওষুধ বিতরণ করা হয়।

ফখরুল বলেন, স্বাস্থ্যখাতের বেহাল দশা নিরসনে বাজেটে বরাদ্দ অন্যান্য খাতের তুলনায় সবচেয়ে কম। তিনি বলেন, দেশের এই করোনা মহামারীতে সবচেয়ে ফ্রন্টলাইনে কাজ করার কথা স্বাস্থ্য বিভাগের। কিন্তু এই মহামারীর সময়েও স্বাস্থ্য বিভাগে দুর্নীতি ছেয়ে গেছে। এটা আমাদের জাতির দুর্ভাগ্য। বিএনপি মহাসচিব বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত প্রায় ৫ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছে। আমাদের দেশে সরকারী হিসাব মতে আক্রান্ত হয়েছে সোয়া লাখেরও বেশি মানুষ। এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে প্রায় দুই হাজারের কাছাকাছি।

দেশে চিকিৎসা ব্যবস্থা একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, আমরা বরাবরই বলে আসছি সরকার এই স্বাস্থ্যখাতে চরম অবহেলা করছে। সরকারের ব্যর্থতার কারণে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা এখন একেবারেই লেজেগোবরে অবস্থা হয়ে গেছে। তাদের উদাসীনতার জন্য এবং করোনা আক্রমণের পর থেকে তারা সঠিক সিদ্ধান্ত না নেয়ার কারণে, ভ্রান্ত নীতির কারণে দেশে করুণ অবস্থা বিরাজ করছে। এখানে কারও কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। স্বাস্থ্য অধিদফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা একেক সময় একেক কথা বলে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।

ফখরুল বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে সারাবিশ্বে একটা ভীতি, একটা ত্রাস, একটা আতঙ্ক হিসেবে পুরো মানবজাতিকে গ্রাস করেছে। এই রোগ কাকে কখন কিভাবে আক্রমণ করে এই কথা ভেবে আমরা এই বিষয়টা নিয়ে প্রতি মুহূর্তে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন এবং চিন্তিত। এই রোগকে মোকাবেলা করার জন্য সাধারণ চিকিৎসকরা হিমিশিম খেয়ে যাচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বলেছেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় আর কালবিলম্ব না করে অনতিবিলম্বে জোনভিত্তিক ব্যবস্থা লকডাউন প্রয়োজন। কতটা সামঞ্জস্যহীনতা হলে, কতটা নৈরাজ্য সৃষ্টি হলে মেয়রকে এই কথা বলতে হয়। তিনি বলেন, আজকে জাতীয়তাবাদী হোমওিপ্যাথি চিকিৎসক দল দেশের মানুষকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য যেভাবে এগিয়ে এসেছে আমরা তাদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই এবং তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। দেশের সকল রাজনৈতিক দল, সকল সংস্থাকে এগিয়ে এসে করোনা মোকাবেলায় কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

ফখরুল বলেন, অনেক আগেই বলা হয়েছে, দেশের বিভিন্ন এলাকা রেড জোন, ইয়োলো জোন, গ্রীন জোনে ভাগ করা হবে। বলা হয়েছিল ঢাকা শহরের কিছু অঞ্চলকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা করে কঠোরভাবে লকডাউনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এখন পর্যন্ত রাজধানীর একটি এলাকা ছাড়া আর কোথাও লকডাউন করা হয়নি। আমার মনে হয় সরকার জানেই না তারা এখন কি করবেন।

শীর্ষ সংবাদ:
গণমুখী প্রশাসন ॥ স্বাধীনতার ৫০ বছরে বড় অর্জন         ছাত্রদের কাজ লেখাপড়া, রাস্তায় নেমে যান ভাংচুর নয়         উন্নয়নে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে         ১১ খাতে বিপুল বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা         ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তিতে বদলে গেছে পাহাড়         রামপুরায় ছাত্র বিক্ষোভ, মতিঝিলে গাড়ি ভাংচুর         দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুত কেন্দ্র অবশেষে বাস্তবায়ন হচ্ছে         বাল্যবিয়ে রোধে কাজীদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে         হত্যা মিশনে ব্যবহৃত গুলি-অস্ত্র উদ্ধার         শ্রদ্ধা ভালবাসায় জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের চিরবিদায়         সুপ্রীমকোর্টে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কাজ শুরু         খালেদা জিয়াকে স্তব্ধ করে দিতে চায় সরকার ॥ ফখরুল         মুক্তিপণের টাকা আদায় হচ্ছিল মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে         সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে লাল সবুজের মহোৎসবে মুখরিত হাতিরঝিল         ৯০ কার্যদিবসে সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে         এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা উপলক্ষে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ডিএমপি         আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলে ব্যবস্থা নেবো : অর্থমন্ত্রী         হৃদরোগ ঝুঁকি হ্রাসে সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু