বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শুধু লকডাউন করে করোনার বিরুদ্ধে জেতা যাবে না

  • জাতিসংঘ প্রধানের হুঁশিয়ারি

করোনাভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে বিশ্বের বহু দেশ এখন অবরুদ্ধ। এর মধ্যে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ জনসংখ্যার দেশ ভারত নিয়ে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা। বুধবার সংস্থাটির প্রধান টেড্রস আধানম গ্রেব্রেয়েসাস বলেন, অনেকেই ভাবছেন, ক’দিন ঘরে কাটাতে পারলেই করোনার হাত রেহাই মিলবে। ঠিক তা নয়। টেড্রস আধানম গ্রেব্রেয়েসাস বলেন, শুধুমাত্র লকডাউন করে ওই মারণ ভাইরাসের আক্রমণ ঠেকানো যাবে না। তিনি বলেন কোভিড-১৯’র বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্যে শুধুমাত্র ঘরবন্দী থাকা দেশ তথা গোটা বিশ্ব থেকে এই ভাইরাস নির্মূল করার পক্ষে যথেষ্ট পদক্ষেপ নয়। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ রোধের জন্যে, অনেক দেশই ‘লকডাউন’ ব্যবস্থা চালু করেছে। তবে শুধুমাত্র, এই পদক্ষেপের ফলে এই মহামারী হার মানবে না। আমরা সব দেশকে একসঙ্গে করোনাভাইরাসের আক্রমণের বিরুদ্ধে লড়ার আহ্বান জানাচ্ছি। আপনাকে এর বিরুদ্ধে লড়তে গেলে ও সাফল্য পেতে হলে একটি দ্বিতীয় উইন্ডো বা দ্বিতীয় পথও বেছে রাখতে হবে। লকডাউনে সংক্রমণ কমানো যেতে পারে মাত্র, কিন্তু ওই মহামারীর বিরুদ্ধে জেতা যাবে না, লোকজনকে ঘরবন্দী করে রাখলে হয়তো স্বাস্থ্য সুরক্ষায় হাতে কিছুটা সময় পাওয়া যাবে, কিন্তু পুরোপুরি দূর করা যাবে না এই রোগকে। তাই এর সামাধানে খোঁজে কাজ জরুরী। বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। একই অবস্থা ভারতেও। এই অবস্থায় আরও আক্রমণাত্মক হওয়ার কথা বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান। তাই এই মারণ ভাইরাসকে চিরতরে নির্মূল করতে জনস্বাস্থ্য সুরক্ষিত করার উপরে জোর দিয়েছেন তিনি।

এমনকী করোনাভাইরাসকে রুখতে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া এবং সিঙ্গাপুরের মডেল মেনে চলার জন্যে অন্য দেশগুলোকে পরামর্শ দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাটি। এই সংক্রমণ রুখতে এ সব দেশে লকডাউনের পাশাপাশি প্রত্যেক সম্ভাব্য রোগীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। একমাত্র এই মডেল মেনে চললেই স্থায়ীভাবে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করে দেয়া সম্ভব হবে বলে মনে করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এদিকে চীন বুধবার হুবেই প্রদেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে আরোপ করা কঠোর বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে। দেশটির অভ্যন্তরে নতুন করে আর কেউ আক্রান্ত না হওয়ায় দীর্ঘ এক মাসের লকডাউনের পর তারা এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল। তবে জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানায়, দেশটিতে বিদেশ থেকে আসা আরও ৪৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বিদেশ থেকে আসা লোকের আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায় চীনে বিদেশ থেকে আসা মোট ৪৭৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এদের অধিকাংশই চীনের নাগরিক। তারা বিদেশ থেকে দেশে ফিরেছে। বুধবার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, চীনে করোনাভাইরাসে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জনই হুবেই প্রদেশের বাসিন্দা। গত বছরের শেষের দিকে সেখানে প্রথম করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়।

শীর্ষ সংবাদ:
কুয়াকাটায় টোয়াকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত         ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত         রামপুরায় বাসে আগুন ও ভাঙচুর ॥ আসামি ৮০০         যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরের গুলিতে নিহত ৩, আহত ৮         রেফারিকে হত্যার হুমকি আর্জেন্টাইন ফুটবলারের         নিরাপদ সড়ক দাবি ॥ রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ         শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হলো আপিল বিভাগের বিচারকাজ         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজার ৩০০ জনের         বায়োএনটেক প্রধান ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন         সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে রাজশাহীর পৌর মেয়র আব্বাস গ্রেফতার         ঢাবি জাতিকে যা কিছু উপহার দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের         রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে