বুধবার ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দু’একটি ম্যাচ জিততে চায় বাংলাদেশ

  • মহিলা টি২০ বিশ্বকাপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টানা দুটি নারী টি২০ বিশ্বকাপে খুব খারাপ সময় গেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের। একটি ম্যাচও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে চারটি ও ২০১৮ সালে চারটি ম্যাচ হারে। জয়হীন থাকে। এবার চতুর্থবারের মতো টি২০ বিশ্বকাপ খেলবে বাংলাদেশ। কঠিন গ্রুপে আছে। এরপরও আশা এক বা দুটি ম্যাচ জেতার। রবিবার টি২০ বিশ্বকাপ খেলার উদ্দেশে অস্ট্রেলিয়ায় যাবে দল। এর আগে বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিক ফটো সেশন হয়। ফটো সেশন শেষে অধিনায়ক সালমা খাতুন বিশ্বকাপে এক দুটি ম্যাচ জেতার আশার কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা তো আশা করে যাই যে ভাল করব, একটি-দুটি ম্যাচ জিতব। এবারও আশা করছি একটি-দুটি ম্যাচ জিতব। সেই আশা নিয়েই বিশ্বকাপে যাচ্ছি।’ সঙ্গে স্মার্ট ক্রিকেট খেলার কথাও জানান সালমা, ‘অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড অনেক কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে ওরা এখনও আমাদের সম্পর্কে জানে না, আমরাও ওদের সম্পর্কে জানি না। ভিডিওতে ওরা দেখেছে আমাদের, আমরাও দেখেছি ওদের। মাঠে যখন আমরা খেলব, তখনই বুঝতে পারব কে কার চেয়ে ভাল। অবশ্যই নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া আমাদের চেয়ে ভাল। আমরা চেষ্টা করব স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে। আমরা চেষ্টা করব আমাদের সেরাটা দিতে। ওদেরটা তো ওদের ব্যাপার। আমরা যা শিখেছি, সেটিই ওখানে করার চেষ্টা করব।’

অস্ট্রেলিয়ায় নারী টি২০ বিশ্বকাপ ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ ফাইনাল ম্যাচ পর্যন্ত চলবে। এ বিশ্বকাপ খেলার জন্য দলে আছেন সালমা খাতুন, ফিরেছেন রুমানা আহমেদ, রয়েছেন জাহানারা আলম, শামিমা সুলতানা, মুরশিদা খাতুন হ্যাপি, আয়েশা রহমান, নিগার সুলতান জ্যোতি, সানজিদা ইসলাম, খাদিজাতুল কুবরা, পান্না ঘোষ, ফারজানা হক পিংকি, নাহিদা আখতার, ফাহিমা খাতুন, রিতু মনি ও সোবহানা মুস্তারি। এ ক্রিকেটাররা রবিবার দেশ ছাড়বেন। বিশ্বকাপে ক্যানবেরায় ২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়েই মূলপর্বের মিশন শুরু হবে। এরপর ক্যানবেরায় ২৭ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়া, ২৯ ফেব্রুয়ারি মেলবোর্নে নিউজিল্যান্ড, ২ মার্চ মেলবোর্নে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে লড়াই করবে বাংলাদেশ। কঠিন গ্রুপে পড়েছে। বোঝাই যাচ্ছে এই গ্রুপ থেকে এক দুটি ম্যাচ জয় করে নেয়াও অনেক বড় ব্যাপার হবে। উপমহাদেশের দলগুলোর অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশনে খেলা যে কতটা কঠিন তা তো সবারই জানা। এই কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে অনেকদিন আগেই যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ২০১৪ সালে প্রথমবার দেশের মাটিতে হওয়া বিশ্বকাপে খেলে যে দুটি ম্যাচ জয় করেছিল বাংলাদেশ, সেই জয়ই এখন পর্যন্ত প্রাপ্তি হয়ে আছে। টি২০ বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ২০১৪ সাল থেকে ১৩টি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ড নারী ক্রিকেট দলকে হারানো গেছে। এবার প্রতিপক্ষ দলগুলো অনেক শক্তিশালী। তাই এক দুটি ম্যাচ জিতলেই অনেক প্রাপ্তি মিলবে।

আরেকটি লক্ষ্যও থাকছে বাংলাদেশ দলের। দুই গ্রুপে ১০ দল খেলছে। যে আটটি দল পয়েন্ট তালিকায় থাকবে তারা আগামী টি২০ বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে। বাংলাদেশ দল সরাসরি খেলার লক্ষ্য নিয়েও এগিয়ে যেতে চায়। সালমা যেমন বলেছেন, ‘পরের বিশ্বকাপে যেন আমাদের কোয়ালিফাই খেলতে না হয়, সেটি চাইব।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড অনেক ভাল দল। ভারতকে এশিয়া কাপে দুবার হারালেও কাজটা অনেক কঠিন। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ভাল কিছু করতে পারব বলে আমরা আশা করি।’

শীর্ষ সংবাদ:
‘আংশিকভাবে প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সুযোগ নেই’         দেশব্যাপী পরিকল্পিত রাস্তা নির্মাণে মাস্টারপ্ল্যান হচ্ছে : অর্থমন্ত্রী         সংসদ ভবন উন্নয়ন সম্পর্কিত উপস্থাপনা দেখলেন প্রধানমন্ত্রী         ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্ব সুদৃঢ় হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         প্রবাসীদের ফেরাতে সৌদি কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয়েছে : প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৩৭ জনের, নতুন শনাক্ত ১৬৬৬         ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলা ॥ আজ শিক্ষকসহ তিনজন সাক্ষ্য দিয়েছেন         আপনাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা বিশৃঙ্খলা করবেন না ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         করোনার সেকেন্ড ওয়েভ মোকাবিলায় স্বাস্থ্যবিভাগ প্রস্তুত রয়েছে ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         তোপখানায় অনুমোদনহীন অক্সিমিটার ও এন ৯৫ মাস্ক উদ্ধার         প্রবাসী কল্যাণ ভবনের সামনে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ         করোনা মেট্রোরেলের সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে         করোনা আছে এবং সেটা শীতকালে বাড়তে পারে ॥ তথ্যমন্ত্রী         রবির আইপিও অনুমোদন         জাহালমের ক্ষতিপূরণের রায় ২৯ সেপ্টেম্বর         করোনার কারণে এবার নোবেল পুরস্কার অনুষ্ঠান স্থগিত         যানবাহন পরীক্ষায় আরও ফিটনেস সেন্টার স্থাপনের নির্দেশ         ওমরাহ পালনে কাবা ঘর খুলে দিচ্ছে সৌদি         কক্সবাজারে ব্যাংক থেকে টাকা সরানোর হিড়িক         জাতিসংঘের অধিবেশন : সংহতির ওপর জোর দিলেন মহাসচিব