ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

আর ৪৫ দিন

প্রকাশিত: ১১:০৫, ৩১ জানুয়ারি ২০২০

আর ৪৫ দিন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাকি আর ৪৫ দিন। আগামী ১৭ মার্চ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপন শুরু হবে। আনুষ্ঠানিক শুরুর প্রাক্কালে চলছে ক্ষণগণনা। ডিজিটাল ঘড়ি বলে দিচ্ছে, সময় ঘনিয়ে আসছে। এদিকে সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই দৃশ্যমান হচ্ছে মুজিববর্ষের ছবিটা। একে একে নানা পরকিল্পনার কথা সামনে আসছে। জানা যাচ্ছে, সরকারী-বেসরকারী উদ্যোগের পাশাপাশি জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকেও যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করা হবে মুজিববর্ষ। ইতোমধ্যে পৃথক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্পীকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ তথ্য দেন। সাম্প্রতিক বক্তব্যে তিনি বলেন, মুজিববর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করা হবে। অধিবেশন থেকে সংসদ সদস্যরা বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করবেন। পাশাপাশি অধিবেশনে একজন বিশ্বখ্যাত ব্যক্তিত্ব বক্তব্য রাখবেন বলে জানান তিনি। বলেন, তাকে ইতোমধ্যে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিশেষ অধিবেশনে দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের স্পীকারসহ বিখ্যাত ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলেও বক্তৃতায় উল্লেখ করেন স্পীকার। এদিকে, বৃহস্পবিার বাংলা একাডেমিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে জানানো হয়েছে, অমর একুশে গ্রন্থমেলার মূল থিম হয়ে আসছেন শেখ মুজিবুর রহমান। বিশাল আয়োজনটিকে জাতির জনকের প্রতি অর্ঘ্য নিবেদনের বড় প্ল্যাটফর্ম হিসেবে দেখছেন আয়োজকরা। সংবাদ সম্মেলনে মেলার আয়োজক বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী জানান, মুজিবর্ষের রং এসে ছুঁয়ে দেবে বইমেলাকেও। বই, বইয়ের প্রচ্ছদ, প্রতিকৃতি, কবিতা, সেমিনারসহ নানা শিল্পভাষায় তুলে ধরা হবে বঙ্গবন্ধুকে। মহান নেতার সংগ্রামী জীবন ও দর্শন সম্পর্কে জানতে পারবেন মেলায় আগতরা। বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা মেলা চলবে ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।