মঙ্গলবার ১২ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মাদ্রাসার চিহ্ন নেই তবু পরীক্ষায় অংশগ্রহণ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ এবতেদায়ি মাদ্রাসার কোন চিহ্ন না থাকলেও দুই বছর যাবত মাদ্রাসা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে শিক্ষার্থীরা। কাগজ-কলমে শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও বাস্তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোন চিহ্ন নেই। এমনকি শিক্ষাদানের জন্য টেবিল, চেয়ার কিংবা পাঠদানের কোন উপকরণ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

এ জালিয়াতির বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে পরীক্ষা শেষ হওয়ার একদিন আগে (শনিবার থেকে) টিন দিয়ে মাদ্রাসা ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসের যাচাই-বাছাই ছাড়াই এবং কোন রকম পাঠদান কিংবা মাদ্রাসা ভবন না থাকা সত্ত্বেও শিক্ষার্থীরা কিভাবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে তা নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি বাবুগঞ্জ উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ চর উত্তর ভূতেরদিয়া এলাকার। রবিবার দুপুরে সরেজমিনে ঠাকুরমল্লিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, কাগজ-কলমে দেখানো দক্ষিণ চর উত্তর ভূতেরদিয়া মসজিদ সংলগ্ন এবতেদায়ি মাদ্রাসা থেকে সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা ১৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে চারজন অনুপস্থিত রয়েছে। পরীক্ষার্থীরা হলো-মোঃ ইউনুস, রোল-৫৭, সিয়াম, রোল-৫৯, আব্দুল হক, রোল-৬১, মোঃ আহাদ, রোল-৬২, তহুরা, রোল-৬৩, সাদিয়া, রোল-৬৪, লামিয়া, রোল-৬৫, আফসানা, রোল-৬৬, বুশরা, রোল-৬৭, মরিয়ম, রোল-৬৮, সীমা, রোল-৭০, রুমা, রোল-৭১, মিতু, রোল-৭৩। এরমধ্যে মোঃ নাইম, রোল-৫৮, মোঃ ফয়েজ, রোল-৬০, মারুফা, রোল-৬৯, ফারজানা, রোল-৭২ নামের চার পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত।

ওই গ্রামের ছত্তার হাওলাদারের পুত্র আলিম হোসেন পনুসহ স্থানীয় একাধিক বাসিন্দা জানান, দক্ষিণ চর উত্তর ভূতেরদিয়া মসজিদ সংলগ্ন এবতেদায়ী মাদ্রাসার দৃশ্যমান কোন কার্যক্রম নেই। কোনদিন তারা ওই মাদ্রাসায় ক্লাস নিতেও দেখেননি। কিন্তু স্থানীয় রহমান ফরাজী (কাজী) নামের এক লোক কাগজ-কলমে মাদ্রাসা দেখিয়ে অন্য স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের ওই মাদ্রাসার নামে রেজিষ্ট্রেশন করিয়ে মাদ্রাসা সমাপনী পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ করিয়েছে। বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে রাতারাতি রহমান ফরাজীর বাড়ির পাশে টিন দিয়ে মাদ্রাসা নির্মাণের কাজ শুরু করেন। সূত্রে আরও জানা গেছে, কাগজ-কলমে মাদ্রাসায় পাঁচজন শিক্ষকের কথা উল্লেখ করা হলেও বাস্তবে স্থানীয়রা কোনদিন মাদ্রাসায় ক্লাস হয়েছে বা কোন শিক্ষক ক্লাস নিয়েছেন তা তারা দেখেননি। বর্তমানে মাদ্রাসাটি এমপিওভুক্ত করণের জন্য রহমান ফরাজী উঠে পড়ে লেগেছেন। এ জন্য জালিয়াতির মাধ্যমে অন্য স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের ওই মাদ্রাসার নামে রেজিস্ট্রেশন করিয়ে মাদ্রাসা সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করিয়েছে। পুরো অভিযোগ অস্বীকার করে রহমান ফরাজী (কাজী) জানান, ১৯৮৪ সালে দক্ষিণ চর উত্তর ভূতেরদিয়া মসজিদ সংলগ্ন এবতেদায়ি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করা হয়। ২০১৮ সালে তিনি (রহমান ফরাজী) মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হন। পরবর্তীতে মাদ্রাসাটি নদী ভাঙ্গনে বিলীন হওয়ায় একই মৌজার তার (রহমান) বাড়ি সংলগ্ন মাদ্রাসায় জমি দেয়া হয়। এরপর বাঁশখুঁটি দিয়ে মাদ্রাসা নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু মাদ্রাসাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় মসজিদের ভেতর ক্লাস নেয়া হচ্ছে। সব পরীক্ষার্থী তার মাদ্রাসার ছাত্র বলেও তিনি দাবি করেন। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আকবর কবির জানান, প্রতিষ্ঠান না থাকলে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার কোন সুযোগ নেই। তিনি আরও জানান, বিষয়টি তার জানা ছিল না। এ বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
প্রথমবারের মত দক্ষিণ কোরিয়ায় দৈনিক সংক্রমণ ৮ হাজার ছাড়িয়েছে         ভারতে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৭ মেডিকেল শিক্ষার্থী নিহত         ওমিক্রনে শিশুদের ঝুঁকি বাড়ছে         ‘জাতিসংঘে চিঠি শান্তিরক্ষা মিশনে প্রভাব ফেলবে না’         রাজশাহীতে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৫৫.৭৮%         ক্যামেরুনের স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালে হুড়োহুড়িতে ছয় দর্শকের মৃত্যু         এবার র‌্যাবকে নিষিদ্ধ করতে ইইউতে চিঠি         ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১৩তম         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৯২২ জন         ইন্দোনেশিয়ায় জাতিগত সংঘাতে ১৯ জন নিহত         কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা         আজ বাংলাদেশ-রাশিয়া সম্পর্কের ৫০ বছর         আগুন যেন অপ্রতিরোধ্য ॥ একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে         শাবি ভিসির পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত         উলন বিদ্যুত উপকেন্দ্র পুড়ে ছাই         ইসি গঠনের বিলে দুই পরিবর্তনের সুপারিশ         খাদ্য মজুদ ২০ লাখ টন ছাড়িয়েছে         কিউকমের ২০ গ্রাহক ফেরত পেলেন আটকে থাকা টাকা         মধ্য ফেব্রুয়ারির আগে করোনা নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে পারে         অর্ধেক জনবলে অফিস চলা শুরু